হার মানতে নারাজ

ষোলো আনা

ষোলো আনা ডেস্ক | ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, শুক্রবার | সর্বশেষ আপডেট: ৫:০৫
প্রতীকী ছবি
আমেনা বেগম। বয়স মাত্র ৩৫। স্বামীর সঙ্গে যোগাযোগ নেই তার। শুধু জানেন ঢাকায় থাকেন। বিয়ে করেছেন আরেকটা। ২ বছর ধরে কোনো যোগাযোগ নেই। এক পুত্রসন্তানকে নিয়ে যুদ্ধ তার। ছেলে আমিনুর রহমান পড়ে পঞ্চম শ্রেণিতে।
হেরে যাওয়ার পাত্র নন তিনি। কঠোর পরিশ্রমী হত দরিদ্র আমেনা দেখছেন নতুন স্বপ্ন।

আমেনার বাড়ি নীলফামারী জেলার, ডোমারে। স্বামী চলে যাওয়ার পর থেকে থাকেন বাবার বাড়িতে। মিলেছে কোনোরকম মাথা গোঁজার ঠাঁই। এখানে তিনি পালন করেন গরু। তার তত্ত্ব্বাবধানে বড় হয় দু’টি গরু। পরম যত্নে গরু দু’টি ৮ মাস ধরে পালন করেছেন তিনি। বিক্রির জন্য দিয়ে দেন বড় ভাইয়ের হাতে। তার ভাই ধানের ব্যবসা করেন। তবে কোরবানি ঈদে বিভিন্ন এলাকা থেকে গরু নিয়ে ঢাকায় বিক্রি করেন।

বড় ভাই রাজধানীতে আনেন ১৮টি গরু। সব গরু বিক্রি হয়। আর তার বোনের গরু দু’টি বিক্রি করে মেলে প্রায় ২ লাখ টাকা। এতে লাভ হয় প্রায় ৮০ হাজার টাকা। এই টাকা দিয়ে আবার ২টি গরু কিনেছেন ৪৫ হাজার টাকা দিয়ে। বাকি টাকা সারা বছরের চলার রশদ। এছাড়াও তিনি করেন মৌসুমি বিভিন্ন কৃষি কাজ।


এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

প্রথম ‘মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশ’ হলেন শিরিন শিলা

বোর্ডের সঙ্গে ক্রিকেটারদের আলোচনা চলছে

ঢাবি ছাত্রলীগের ৪ নেতাকে বহিষ্কার

এমপি বুবলীকে নিয়ে কী করবে সংসদ

বোর্ডকে ক্রিকেটারদের চিঠি

২ এমপিসহ ২২ জনের দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা

ক্যাসিনোতে স্বেচ্ছাসেবা পদচ্যুত মোল্লা কাওছার

সিঙ্গাপুরে বাংলাদেশিরাই বাংলাদেশিদের ক্ষতির কারণ!

সমাবেশে পুলিশের বাধা

এমপিওভুক্ত হলো ২৭৩০ প্রতিষ্ঠান

বৃটেনে লরির ভেতর মিললো ৩৯ মৃতদেহ

রুমমেট মিজান ৫ দিনের রিমান্ড

আলোচিত নুসরাত হত্যা মামলার রায় আজ

বিএনপি’র আন্দোলন হালে পানি পাচ্ছে না- ওবায়দুল কাদের

জাফলংয়ে নির্মমতা

দোহারে ‘অবৈধ ভবনের’ আওয়ামী লীগ কার্যালয় উচ্ছেদে সালমান এফ রহমানের নির্দেশ