এফডিএ-র বিশ্বাসযোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন তুললেন বিল গেটস

নিজস্ব সংবাদদাতা

অনলাইন ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, বৃহস্পতিবার, ৯:১১ | সর্বশেষ আপডেট: ৩:৩৩

করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন নিয়ে এবার মুখ খুললেন মাইক্রোসফট কর্ণধার বিল গেটস। তাঁর মতে, কেবলমাত্র একটি ওষুধ প্রস্তুতকারী সংস্থাই আগামী মাসের মধ্যে করোনা ভাইরাস ভ্যাকসিন সরবরাহ করার সুযোগ পাবে। ব্লুমবার্গ টিভিতে এক সাক্ষাৎকারের সময়ে ফুড এন্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশন বা এফডিএ -র বিশ্বাসযোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন মাইক্রোসফট কর্ণধার। তাঁর মতে , 'নির্বাচনের আগে রাজনৈতিক ফায়দা তোলার জন্য মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বিজ্ঞানকে অগ্রাহ্য করে এফডিএ-কে ব্যবহার করছেন। সেই কারণেই এফডিএ কমিশনার স্টিফেন হন-কে নিজের সাংবাদিক সম্মেলনে আমন্ত্রণ জানান ট্রাম্প। করোনা চিকিৎসায় ব্লাড প্লাজমার উপকারিতা প্রসঙ্গে প্রেসিডেন্টের সাংবাদিক সম্মেলনে অতিরঞ্জিত করে বক্তব্য রাখেন এফডিএ কমিশনার'। গেটসের মতে , স্টিফেন হন রক্তের প্লাজমা নিয়ে যে বক্তব্য রেখেছেন, তার সবটাই বুদবুদের মতো , ভিত্তিহীন। তিনি বলেন, আপনি যখন মানুষকে কোনো বিষয়ে জোর দিয়ে কিছু বলবেন , বিশেষ করে তা যদি কোনো সংকটের সময়ে হয় তাহলে সেই কথার ওপর মানুষটির বিশ্বাস জন্মে যায়, তারা অনেক ভুল জিনিসের ওপর বিশ্বাস, ভরসা করতে শুরু করে, এখানেই ফুড এন্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশন তার বিশ্বাসযোগ্যতাকে প্রশ্নের মুখে দাঁড় করিয়ে দিয়েছে বলে মনে করেন বিল গেটস।
তবে মার্কিন প্রেসিডেন্টের জন্য সেই অর্থে কোনো ভালো খবর দিতে পারেননি মাইক্রোসফট কর্ণধার। সিএনবিসিতে বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি বলেন, নভেম্বরের আগে ভ্যাকসিন চলে আসার বিষয়টি যতটা সহজ বলে মনে করা হচ্ছে ততটা সহজ নয়। প্রতিযোগিতার দৌড়ে অনেক ওষুধ কোম্পানি আছে। তবে কারোর একার ভাগ্যে শিকে ছিড়বে বলে মনে করেন গেটস। গেটস সিএনবিসিকে বুঝিয়ে দিয়েছিলেন যে আরও অনেক ফার্মা সংস্থার দৌড়ের মধ্যে কেবল ফাইজার সম্ভবত কয়েক সপ্তাহের মধ্যে ভ্যাকসিন সরবরাহ করতে পারে। বাকিরা ভ্যাকসিন আনতে আনতে ডিসেম্বর বা পরের বছরের জানুয়ারী হয়ে যেতে পারে।
ফাইজারের সিইও অ্যালবার্ট বোরলা সোমবার সিএনবিসিকে বলেছিলেন যে তাঁর কোম্পানির করোনা ভাইরাস ভ্যাকসিনের "কয়েক হাজার ডোজ" বছরের শেষের আগে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে বিতরণ করা যেতে পারে।চলতি বছরের শেষেই করোনা টিকার গবেষণা এবং উৎপাদনের ক্ষেত্রে সাফল্যের আশা করছেন বিল গেটস। তিনি বলেন, ‘‘করোনা টিকা সংক্রান্ত গবেষণায় ছ’টি সংস্থা অগ্রণী ভূমিকায় রয়েছে। আগামী বছরের গোড়াতেই এক মধ্যে তিনটির উৎপাদন ও বণ্টনের কাজ শুরু হয়ে যাবে।’’আগামী বছর করোনা টিকা ব্যবহার পুরোদমে শুরু হবে এবং কোভিড-১৯ সংক্রমণ এড়াতে তার সুফল মিলতে শুরু করবে বলেও জানান গেটস।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Kazi

২০২০-০৯-১৬ ২২:৪১:৩৫

ইনি আমেরিকার প্রেসিডেন্ট যিনি আমেরিকার জনগণের জীবনের মূল্যের চাইতে নির্বাচনে জিতা অধিক গুরুত্বপূর্ণ মনে করেন । এটাই যদি আমেরিকাবাসীর পছন্দ হয় ট্রাম্পকে ভোট দিন। নতুবা সাবধানে আপনার মূল্যবান ভোট দিন। যাতে আপনার জীবন রক্ষা হয়।

আপনার মতামত দিন

অনলাইন অন্যান্য খবর

পূর্ণাঙ্গ হলো সেচ্ছাসেবক দল

১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০

নবাবগঞ্জে কলেজ ছাত্রীর লাশ উদ্ধার

১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০

নবাবগঞ্জ উপজেলায় এক কলেজ ছাত্রীর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তিনি গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে ...

নয় বছরে ৯ বিয়ে, অপেক্ষায় আরও ৪

১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০



অনলাইন সর্বাধিক পঠিত