‘শেবাগ এমনটা বললে ওকে মাঠেই পেটাতাম’

স্পোর্টস ডেস্ক

খেলা ৫ আগস্ট ২০২০, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ১:৫৬

ভারত ও পাকিস্তানের ক্রিকেটারদের মধ্যে স্লেজিং নতুন কিছু নয়। শোয়েব আখতারের সঙ্গে স্লেজিংয়ে জড়ানোর একটি ঘটনা অনেক আগে এক টিভি শোতে বলেছিলেন বীরেন্দ্রর শেবাগ। স্লেজিংয়ের এক পর্যায়ে  নাকি শোয়েবকে উদ্দেশ্যে করে তিনি বলেছিলেন, ‘বেটা বেটা হোতা হে, বাপ বাপ হোতা হে’ অর্থাৎ বাপ বাপই থাকে, ছেলে ছেলেই। দীর্ঘদিন পর এ নিয়ে মুখ খুললেন শোয়েব।
ভারতীয় টিভি শোতে স্লেজিং নিয়ে শেবাগ বলেছিলেন, ‘পাকিস্তানের বিপক্ষে একটি টেস্টে আমি ২০০’র কাছাকাছি ছিলাম। শোয়েব একটার পর একটা বাউন্সার মেরে যাচ্ছিল এবং আমাকে হুক শট খেলতে প্রলুব্ধ করছিল। যখন বুঝতে পারলাম সে এটা করতেই থাকবে, তখন আমি অপর প্রান্তে থাকা শচীনের দিকে ইঙ্গিত করে শোয়েবকে বললাম- তোমার বাপ ওখানে দাঁড়িয়ে আছে। তাকে এভাবে বল করলে সে তোমাকে আঘাত করবে। পরের ওভারে শোয়েব তাই করেছিল এবং শচীন বলটা বাউন্ডারির উপর দিয়ে সীমানা ছাড়া করে।
তখন আমি শোয়েবকে কথাটা বলেছিলাম (বটা বেটা হোতা হে, বাপ বাপ হোতা হে)।
সম্প্রতি এআরআই নিউজের ‘এক্সট্রা ইনিংস’ শোতে স্লেজিংয়ের বিষয়টি অস্বীকার করেন শোয়েব। তিনি বলেন, ‘না, কখনোই এ ধরনের কথা বলা হয়নি। আমাকে এটা বলে কি সে পার পেয়ে যেত? আমি তাকে ছেড়ে দিতাম? আমি তাকে মাঠে একবার ও হোটেলে আরেকবার পিটাতাম।’
শোয়েবের দাবি উড়িয়ে দেয়া যায় না। ২০০৪ সালে পাকিস্তানের বিপক্ষে মুলতান টেস্টে ৩০৯ রান করেছিলেন শেবাগ। ওই ম্যাচে শচীন টেন্ডুলকার ১৯৫ রানে অপরাজিত থাকলেও কোনো ছক্কার মার ছিল না। দুই বছর পর পাকিস্তানের বিপক্ষে ২৫৪ রানের ইনিংস খেলেন শেবাগ। তবে ওই ইনিংসে শচীন ব্যাটিংয়ের সুযোগ পাননি। ২০০৭-এ পাকিস্তানের বিপক্ষে আরেকটি ডাবল সেঞ্চুরি করেছিলেন শেবাগ। শোয়েব ওই ম্যাচে ছিলেনই না।

আপনার মতামত দিন

খেলা অন্যান্য খবর

চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি হকি

‘চেষ্টা থাকবে বড় দলকে হারানোর’

২০ সেপ্টেম্বর ২০২০

লন্ডনে লাল নীলের যুদ্ধ আজ

২০ সেপ্টেম্বর ২০২০



খেলা সর্বাধিক পঠিত