হযরত শাহপরান (রহ.) মসজিদে ইমাম নিয়ে আপত্তি, স্মারকলিপি

স্টাফ রিপোর্টার, সিলেট থেকে

বাংলারজমিন ২৪ মে ২০২০, রোববার | সর্বশেষ আপডেট: ৪:০৭

সিলেটের হযরত শাহপরান (রহ.) জামে মসজিদের ‘বিতর্কিত’ খতিব ও ইমামদের অপসারন করে পরিচালনা কমিটি গঠনপূর্বক নতুন করে যোগ্য আলেমদের দিয়ে খতিব ও ইমাম নিয়োগ দেওয়ার দাবি জানিয়েছেন এলাকাবাসী। মাজার ও মসজিদস্থ গ্রামের পঞ্চায়েতদের পক্ষে সিলেট সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার বরাবর স্মারকলিপিতে এ দাবি জানান তিনি। বর্তমান খতিব মুফতি হাফিজ মাওলানা তজমুল আমীনকে হঠাৎ করে বাদ দেওয়ার পর এই দাবি উঠেছে। এ নিয়ে সৃষ্ট ঘটনায় উত্তেজনা দেখা দিলে শাহপরান থানার ওসি আব্দুল কাইয়ূম উপস্থিত হয়ে যে নির্দেশনা দিয়েছিলেন সেটিও পালন করেনি মসজিদ কর্তৃপক্ষ।
হযরত শাহপরান (রহ.) মাজার পরিচালনায় সরকার কর্তৃক অনুমোদিত এখন কোনো বৈধ কমিটি নেই। ফলে মাজারের বর্তমান খাদিম দাবিদার মামুনুর রশীদ ও লোকজন মাজারের খাদেম বলে দাবি করে লুটপাট চালাচ্ছেন। বর্তমানে মাজারের অবৈধ দখলদার চক্র মসজিদ ও মাদ্রাসা পরিচালনা করেন। এতে অংশ গ্রহন থাকার কথা ছিলো শাহপরান (রহ.) লালখাটঙ্গী গ্রামের মানুষের।
কিন্তু কখনোই এলাকার মানুষকে তারা সম্পৃক্ত করেনি। স্মারকলিপিতে এলাকার মানুষ জানান- হযরত শাহপরান (রহ.) জামে মসজিদের দীর্ঘ দিন ধরে খতিব হিসেবে দায়িত্বে রয়েছেন মাদ্রাসার জনপ্রিয় শিক্ষক ও আলেম আলহাজ্ব হাফেজ তজমুল আমীন। তার সঙ্গে ইমাম হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন হাফিজ আব্দুল হান্নান ও ছানী ইমাম ছিলেন মাওলানা আব্দুন নূর (খাদেম)। গত ৮ই মে জুম্মার দিনে হঠাৎ করে মসজিদ কর্তৃপক্ষ দাবিদার অংশের নির্দেশে ইমাম আব্দুল হান্নান ও আব্দুর নূর খতিব মাওলানা তজমুল আমীনকে চাকুরীচ্যুত করেন। তার স্থলে অন্য একজন ইমামকে তার দায়িত্ব দেন। এই ঘটনায় এলাকার মানুষের মধ্যে ক্ষোভ দেখা দেয়। ১৫ই মে জুম্মার দিনে নতুন খতিবের মাধ্যমে জুম্মার নামাজ পড়াতে চাইলে এলাকার মানুষ রাজি হননি। এ নিয়ে আপত্তি তুললে উত্তেজনা দেখা দেয়। খবর শুনে সেখানে যান শাহপরান থানার ওসি আব্দুল কাইয়ূম। তিনি উপস্থিত হয়ে প্রধান মুয়াজ্জিন হাফিজ নুরুল করিমকে দিয়ে জুম্মার নামাজ পড়ান। এবং বিষয়টি নিস্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত প্রধান মুয়াজ্জিনকে জুম্মা সহ ৫ ওয়াক্ত নামাজ পড়ানোর নির্দেশ দিয়ে চলে আসেন। কিন্তু ওসি ফিরে আসার পর সেই নির্দেশ আর কার্যকর হয়নি। বিতর্কিত ইমাম মাওলানা আব্দুন নূরকে (খাদেমকে) দিয়ে নামাজ পড়ানো শুরু হয়। এ নিয়ে নতুন করে উত্তেজনা চলছে এলাকায়।
এই অবস্থায় ২০ মে সিলেট সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে স্মারকলিপি দেন এলাকার মানুষ। স্মারকলিপিতে তারা তদন্তক্রমে শাহপরান (রহ.) জামে মসজিদ ও মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটি গঠন করে প্রথম শ্রেনীর সনদপ্রাপ্ত আলেমদের ইমাম ও খতিব হিসেবে নিয়োগ দানের আবেদন জানিয়েছেন। একই সঙ্গে বর্তমান দখলদার ইমাম হাফিজ আব্দুল হান্নান ও ছানী ইমাম মাওলানা আব্দুন নূরকে (খাদেম) দ্রুত অপসারনের দাবি জানান। স্মারকলিপি দাতারা হলেন- মো. আনছার মিয়া, ওয়ারিস আহমদ, সুয়েব আহমদ, মো. আলমগীর হোসেন, মো. বেলাল আহমদ, আনোয়ার হোসেন, খয়রুল ইসলাম, ফারুক আহমদ, আব্দুল মজিদ, পারভেজ মিয়া, করিম মিয়া, একে খলিল, মো. জবরুল হোসেন, মো. জাভেদ আহমদ প্রমুখ। অভিযোগ পাওয়ার পর বিষয়টি তদন্তের জন্য সিলেটের ইসলামী ফাউন্ডেশনের কর্মকর্তাদের তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন ইউএনও।

আপনার মতামত দিন

বাংলারজমিন অন্যান্য খবর

রামগতিতে খামারিদের ওষুধ ও উপকরণ বিতরণ

১৪ জুলাই ২০২০

লক্ষ্মীপুরের রামগতি উপজেলা প্রাণিসম্পদ দপ্তরের অধীনে মহিষের বাথান মালিক ও উপকূলীয় চরাঞ্চলে সমন্বিত প্রাণিসম্পদ উন্নয়ন ...

নবাবগঞ্জে নতুন শনাক্ত ১১

১৪ জুলাই ২০২০

ঢাকার নবাবগঞ্জ উপজেলায় আরও ১১ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে উপজেলায় করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ...

রাজশাহীতে যুবককে পিটিয়ে হত্যা

১৪ জুলাই ২০২০

রাজশাহীতে স্বপন ইসলাম (২৮) নামে এক যুবককে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে কৃষ্টগঞ্জ এলাকার ...

পুঠিয়ায় ৯৯৯-এ ফোন, প্রেমিক-প্রেমিকা আটক

১৪ জুলাই ২০২০

জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ নাম্বারে প্রেমিকার মামা কাজল ফোন করে জানান, তার ভাগনী রুকু (১৬)কে ...

ঠাকুরগাঁওয়ে আমবাগান মালিকের লাশ উদ্ধার

১৩ জুলাই ২০২০

ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জ উপজেলায় আশরাফ আলী (৫৫) নামে এক আমবাগাান মালিকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহতের ...



বাংলারজমিন সর্বাধিক পঠিত