চীনা বিজ্ঞানীদের দাবি

টীকা ছাড়াই করোনা থামাবে ওষুধ

মানবজমিন ডেস্ক

বিশ্বজমিন ২০ মে ২০২০, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ১১:০৭

চীনা গবেষণাগারে করোনা চিকিৎসার একটি নতুন ওষুধ উদ্ভাবন হচ্ছে। দেশটির বিজ্ঞানীরা মনে করছেন টীকা ছাড়াই এই নতুন ওষুধটি করোনা মহামারি থামিয়ে দিতে পারবে। এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা এএফপি। চীনের অভিজাত পেকিং ইউনিভার্সিটির বিজ্ঞানীরা এই ওষুধটির পরীক্ষা করছেন। তারা বলছেন, এটি শুধু আক্রান্ত ব্যক্তিকে কম সময়েই সুস্থ করবে এমন না, একই সঙ্গে এই ভাইরাসের বিরুদ্ধে স্বল্প সময়ে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বা ইমিউনিটি বৃদ্ধি করবে। এই বিশ^বিদ্যালয়ের বেইজিং এডভান্সড ইনোভেশন সেন্টার ফর জিনোমিকসের পরিচালক সানি শি বলেছেন, প্রাণিদের ওপর পরীক্ষায় এই ওষুধটির সফলতা পাওয়া গেছে। তার ভাষায়, আক্রান্ত ইঁদুরের দেহে আমরা এই ওষুধটি ইঞ্জেক্ট করেছিলাম। এর পাঁচদিন পরেই ভাইরাল লোড ২৫০০ ফ্যাক্টর কমে গেছে।
এর অর্থ হলো এই ওষুধটির চিকিৎসায় কার্যকারিতা আছে। করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর সুস্থ হয়েছেন এমন ৬০ জন রোগীর দেহ থেকে রক্ত সংগ্রহ করে তা আলাদা করেছিলেন শি’র টিম। সেখান থেকে নিউট্রালাইজ এন্টিবডি ব্যবহার করা হয়েছে এই ওষুধে। এই গবেষণার বিষয়ে রিপোর্ট রোববার প্রকাশিত হয়েছে বিজ্ঞান বিষয়ক জার্নাল ‘সেল’-এ। শি বলেছেন, এই এন্টিবডির জন্য তিনি ও তার টিম রাতদিন কাজ করে যাচ্ছেন। তিনি আশা করেন এই ওষুধটি এ বছরের শেষ নাগাদ ব্যবহারের জন্য প্রস্তুত করা যাবে। শীতকালে যদি এই ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব দেখা দেয় তখনও এটি ব্যবহার করা যাবে। তিনি বলেন, ওষুধটির ক্লিনিক্যাল পরীক্ষা চলমান। এই পরীক্ষা করা হবে অস্ট্রেলিয়া ও অন্য কিছু দেশে।

আপনার মতামত দিন

বিশ্বজমিন অন্যান্য খবর

এরই নাম প্রেম

৪ জুন ২০২০



বিশ্বজমিন সর্বাধিক পঠিত