‘রিসারজেন্ট বাংলাদেশ’ প্ল্যাটফর্মের যাত্রা

অর্থনৈতিক রিপোর্টার

অনলাইন ১৯ মে ২০২০, মঙ্গলবার, ৮:১০ | সর্বশেষ আপডেট: ৮:১১

বেসরকারি খাতের সুরক্ষা এবং অর্থনৈতিক গতিশীলতা আনয়নে করণীয় নির্ধারণে ‘রিসারজেন্ট বাংলাদেশ’ নামক প্ল্যাটফর্মের যাত্রা শুরু হয়েছে। বিশ্বব্যাপী করোনার প্রাদুর্ভাবে দেশের সামগ্রিক অর্থনীতি বিশেষ করে বেসরকারি খাতের ব্যবসা বাণিজ্য চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছে। এ কঠিন বাস্তবতা থেকে উত্তরণ এবং বেসরকারি খাতের কর্মচঞ্চল গতিশীলতা পুনরুদ্ধারে করণীয় নির্ধারণে দেশের শীর্ষস্থানীয় চারটি বাণিজ্য সংগঠন ও একটি বেসরকারি খাত ভিত্তিক অর্থনৈতিক থিংক ট্যাংকের সমন্বয়ে ‘রিসারজেন্ট বাংলাদেশ’ নামক প্ল্যাটফর্ম কাজ করবে।

প্রতিষ্ঠানগুলো হচ্ছে- মেট্রোপলিটান চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (এমসিসিআই), ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (ডিসিসিআই), চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ (সিএসই), বিজনেস ইনিশিয়েটিভ লিডিং ডেভেলপমেন্ট (বিল্ড) এবং পলিসি এক্সচেঞ্জ।

মঙ্গলবার প্ল্যাটফর্মের পক্ষ থেকে এক বার্তায় এ তথ্য জানানো হয়েছে।

‘রিসারজেন্ট বাংলাদেশ’ নামক এ প্ল্যাটফর্মটি বাংলাদেশের অর্থনীতির সার্বিক উত্তরণের লক্ষ্যে যে সব কর্মকাণ্ড পরিচালনা করবে তন্মধ্যে বেসরকারি খাতে করোনা ভাইরাসের প্রকৃত প্রভাব নিরূপণে প্রণালিবদ্ধ মূল্যায়ন পরিচালন এবং করোনার প্রাদুর্ভাব থেকে অর্থনীতির উত্তরণের কৌশল প্রণয়ন করবে। পাশাপাশি জাতীয় অর্থনীতি পুনরুদ্ধার কৌশল নিরূপণে সরকারের কাছে সুসংগঠিত তথ্য-উপাত্তভিত্তিক এবং অভিযোগ্য সুপারিশমালা প্রেরণ করা, তৃতীয়ত সরকারি প্রয়োজনীয় সহায়ক নীতিমালা প্রণয়নের স্বার্থে সরকারি-বেসরকারি অংশীদারিত্ব-ভিত্তিক আলোচনার আয়োজন করবে।

বেসরকারি খাতে গতিশীলতা পুনরুদ্ধার প্রক্রিয়াকে অনুপ্রাণিত এবং এ বিষয়ে বাজেট প্রক্রিয়াতে সংশ্লিষ্ট নীতিসহায়তামূলক প্রস্তাবনা পেশ করা। এছাড়া করোনা উদ্ভূত পরিস্থিতিতে যে সব ক্ষুদ্র ও একক মালিকানাধীন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান কঠিন চ্যালেঞ্জে পড়েছে তাদের প্রয়োজনীয় সহায়তা প্রাপ্তির লক্ষ্যে সংশ্লিষ্ট মহলে অভিমত তুলে ধরা হবে।

এছাড়া ৭টি সুনির্দিষ্ট অর্থনৈতিক বিষয়ের উপর যথা উৎপাদন খাত, সেবা খাত, আন্তর্জাতিক বাণিজ্য/রপ্তানি, ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প (এসএমই), আর্থিক খাত, বেসরকারি বিনিয়োগ এবং কৃষি খাতের উপর বিশ্লেষণাত্মক নীতিসহায়তা এবং পলিসি ডায়ালগ আয়োজনের মাধ্যমে এ প্ল্যাটফর্মটি দেশের বেসরকারি খাতের গতিশীলতা পুনরুদ্ধারে সহায়ক ভূমিকা পালন করবে।

প্ল্যাটফর্মটির কার্যক্রম একটি স্টিয়ারিং কমিটির দিক-নির্দেশনায় গৃহীত হবে। স্টিয়ারিং কমিটির সদস্যবৃন্দরা হলেন- লেদার ফুটওয়্যার অ্যান্ড গুডস ম্যানুফেকচারার্স অ্যান্ড এক্সপোটার্স এসোসিয়েশন উপদেষ্টা সৈয়দ নাসিম মঞ্জুর, এমসিসিআইয়ের সভাপতি নিহাদ কবির, ডিসিসিআইয়ের সভাপতি শামস মাহমুদ, বিল্ডের চেয়ারম্যান আবুল কাসেম খান, সিএসইর চেয়ারম্যান আসিফ ইব্রাহীম এবং পলিসি এক্সচেঞ্জের চেয়ারম্যান ড. মাশরুর রিয়াজ। পলিসি এক্সচেঞ্জ, এ প্ল্যাটফর্মটির টেকনিকাল সচিবালয় হিসেবে কাজ করবে এবং ডেলয়েটসহ বেশকিছু আন্তর্জাতিক সংস্থা, নলেজ পার্টনার হিসেবে এ প্ল্যাটফর্মটিকে সহায়তা দেবে।।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

siddique mf

২০২০-০৫-২০ ০৬:২৭:৪০

বেসসরকারী উদ্যোগে গঠিত এ প্রতিষ্টানের প্রতি অকুণ্ঠ সমর্থন রইল। বাংলাদেশকে বুলি আওড়ানো আর চামচাগিরির দেশ থেকে উত্তোরণে আপনাদের উদ্যোগকে সাধারন ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীদের আন্তরিক শুভেচ্ছা আর সালাম।

আপনার মতামত দিন

অনলাইন অন্যান্য খবর



অনলাইন সর্বাধিক পঠিত



গণস্বাস্থ্যের কিটে পরীক্ষা

করোনায় আক্রান্ত ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী