যুক্তরাজ্যে করোনা উপসর্গের সরকারি তালিকায় যুক্ত হলো ‘স্বাদ-গন্ধের ক্ষমতা বিলুপ্তি’

মানবজমিন ডেস্ক

বিশ্বজমিন ১৮ মে ২০২০, সোমবার | সর্বশেষ আপডেট: ১১:১২

যুক্তরাজ্যে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার উপসর্গের সরকারি তালিকায় যুক্ত করা হয়েছে স্বাদ ও গন্ধের ক্ষমতা বিলুপ্তি। এখন থেকে এই উপসর্গ দেখা দিয়েছে এমন ব্যক্তিরাও করোনা পরীক্ষা করাতে পারবেন।  এর আগে কেবলমাত্র জ্বর বা কাশিতে ভোগা ব্যক্তিরাই পরীক্ষা করাতে পারতেন।  আজ সোমবার এক ঘোষণায় এমনটা জানিয়েছেন দেশটির ডেপুটি চিফ মেডিক্যাল অফিসার অধ্যাপক জোনাথান ভ্যান টাম। তিনি বলেন, নতুন এই সংযুক্তির কারণে দেশটিতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দুই শতাংশ বেড়ে যেতে পারে। এ খবর দিয়েছে দ্য ইন্ডিপেন্ডেন্ট।
নতুন এই সংযুক্তির কারণে এখন থেকে যুক্তরাজ্যে, কোন ব্যক্তির টানা কাশি বা জ্বর বা ‘আনসমিয়া’ হলে তিনি সন্দেহভাজন করোনা আক্রান্ত হিসেবে বিবেচিত হবেন। উল্লেখ্য, আনসমিয়া হচ্ছে ঘ্রাণ ও স্বাদের ক্ষমতা বিলুপ্ত হওয়া। এই উপসর্গ দেখা দেয়া যেকোনো ব্যক্তিকে সাত দিনের জন্য ও তাদের পরিবারের সদস্যদের ১৪ দিনের জন্য আইসোলেশনে যাওয়ার পরামর্শ দেয়া হয়েছে।
জন হপকিন্স ইউনিভার্সিটির হিসাব অনুসারে, যুক্তরাজ্যে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ২ লাখ ৪৪ হাজার ৯৯৫ জন। এর মধ্যে প্রাণ হারিয়েছেন ৩৪ হাজারের বেশি। ইন্ডিপেন্ডেন্ট জানিয়েছে, করোনা উপসর্গের তালিকায় নতুন এই সংযুক্তি সরকারের জন্য বেশ গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠতে পারে।
কেননা, তারা দেশজুড়ে লকডাউন প্রত্যাহারের পর পরীক্ষা, ট্র্যাক ও আইসোলেট ব্যবস্থা চালুর কথা চিন্তা করছে। কিন্তু অনেকে সমালোচনা করছেন, এই সংযুক্তি আসতে অনেক দেরি হয়েছে।     
প্রসঙ্গত, করোনায় আক্রান্ত হওয়ার লক্ষণ হিসেবে স্বাদ ও গন্ধের ক্ষমতা হারানোর কথা জানিয়েছেন বহু করোনা রোগী। একাধিক গবেষণায়ও করোনার সঙ্গে স্বাদ-গন্ধহীনতার সম্পর্ক পাওয়া গেছে। গত সপ্তাহে বৃটিশ রাইনোলজিক্যাল সোসাইটি ও ইএনটি ইউকে এই লক্ষণকে সরকারি তালিকায় যুক্ত না করায় তীব্র সমালোচনা করেছে। এরপর সোমবার সকালে দেশটির ডেপুটি চিফ মেডিক্যাল অফিসার ভ্যান টাম সরকারি তালিকায় আনসমিয়া সংযুক্তির কথা জানান।

আপনার মতামত দিন

বিশ্বজমিন অন্যান্য খবর

বিশ্বের পরবর্তী বিপর্যয় মুম্বইয়ে!

যেখানে মৃতদেহ আর করোনা রোগী একই ওয়ার্ডে

১ জুন ২০২০

চীন-ভারত মুখোমুখি

দক্ষিণ এশিয়া উদ্বেগে

১ জুন ২০২০



বিশ্বজমিন সর্বাধিক পঠিত



চীন-ভারত মুখোমুখি

দক্ষিণ এশিয়া উদ্বেগে