আরও গুরুত্ব দিতে হবে চিকিৎসা বিজ্ঞানে

বাবর আশরাফুল হক

মত-মতান্তর ১২ এপ্রিল ২০২০, রোববার | সর্বশেষ আপডেট: ৫:৫৩

সারাবিশ্ব আজ প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত। প্রতিদিনই দীর্ঘ হচ্ছে আক্রান্ত ও মৃত্যুর তালিকা। এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ১৭ লাখের বেশি মানুষ। আর মৃত্যুর সংখ্যা লাখ পেরিয়ে বাড়ছে দ্রুত গতিতে। বিশ্বের সব দেশই প্রাণান্ত চেষ্টা চালাচ্ছে এ ভাইরাস ঠেকাতে। না পারছে প্রতিষেধক তৈরি করতে, না পারছে নিরাময়ের ওষুধ বানাতে। একেবারেই অসহায় পৃথিবী। স্তব্ধ, নিরুপায়।
বিশ্বের শক্তিধর দেশগুলোও অসহায় হয়ে পড়েছে এই ভাইরাসের কাছে। লাখে লাখে আক্রান্ত মানুষের চিকিৎসা নিয়ে হিমশিম খাচ্ছে। চিকিৎসার উপকরণ যোগান দিতে পারছে না। বিশ্বের মানুষ শুধু ফ্যালফ্যাল করে চেয়ে আছে। প্রত্যাশা একটাই কবে বের হবে প্রতিষেধক বা জীবন রক্ষাকারী ওষুধ। এখন শুধুমাত্র মহান সৃষ্টিকর্তার কৃপা ছাড়া মানুষের সামনে আর কোন উপায় নেই। অসহায় মানুষের আর কিছু করার নেই। কেবল সাধারণ মানুষই অসহায় নয়, করুনদশা শক্তিশালী দেশ ও অহংকারী নেতাদেরও। হাজার হাজার মাইল দুরে থেকেই দুর্বল দেশগুলির টুঁটি চেপে ধরা যাদের কাজ, আজ তারাও কুপোকাত। এই বেয়াদব ভাইরাস ইজ্জত করছে না কাউকে। রাজা, বাদশা, মন্ত্রী, এমপি, ধনকুবের সবাইকে এনেছে এক কাতারে। সবার সঙ্গে একই ব্যবহার। এমন অসহায় অবস্থায় বিশ্বের ধনী আর শক্তিশালী দেশগুলোর কি বোধদয় হবে?

অন্যকে ঘায়েল করার চিন্তা থেকে তারা কি দূরে সরে আসতে পারবে? করোনা কিন্তু তাদের সামনে নতুন বার্তা নিয়ে এসেছে। নতুন করে বিশ্বকে নিয়ে উপলব্দি করার সুযোগ এনে দিয়েছে। তাদেরকে সে সুযোগ কাজে লাগাতে হবে। মারণাস্ত্র তৈরিতে হাজার হাজার কোটি ডলার খরচ বন্ধ করতে হবে এখনই। বরাদ্দ বাড়াতে হবে স্বাস্থ্যবিজ্ঞানের উন্নয়ন আর মানবকল্যাণে। সত্য উপলব্ধি না করলে করোনার ক্ষত সাারিয়ে উঠলেও সামনে হয়তো অন্য কোন ভাইরাস হানা দিয়ে আবারও বিপন্ন করে তুলতে পারে মানবজাতিকে।

- বাবর আশরাফুল হক, ব্যবস্থাপনা সম্পাদক, দৈনিক মানবজমিন

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

গোলাম কিবরিয়া

২০২০-০৪-১২ ০৬:৩১:৪১

পৃথিবীর শক্তি দিয়ে এ ভাইরাস বোধহয় আর ঠেকানো গেল না । বাকি থাকল শুধু উপর ওয়ালা। যিনি সবকিছুর মালিক । হে আল্লাহ্ আমাদের সহায় হোন ।

আপনার মতামত দিন



মত-মতান্তর সর্বাধিক পঠিত