নাগরিকত্ব আইন বাতিলের দাবিতে সুপ্রিম কোর্টে কেরালা সরকার

কলকাতা প্রতিনিধি

ভারত ১৫ জানুয়ারি ২০২০, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ২:৫৯

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (সিএএ) প্রত্যাহারের দাবিতে কেরালা বিধানসভায় প্রস্তাব পাস করানোর পর এবার কেরালা সরকার এই আইনকে বাতিলের দাবিতে সুপ্রিম কোর্টে মামলা করেছে। অবশ্য ইতিমধ্যেই সিএএ-র বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে ৫৯টি মামলা জমা পড়েছে। বিভিন্ন রাজ্যের হাইকোর্টেও একাধিক মামলা হয়েছে। তবে এই প্রথম কোনও রাজ্য সরকার এই আইনের সাংবিধানিক বৈধতাকে  চ্যালেঞ্জ করে আদালতে মামলা করেছে। কেরালার বাম সরকারের মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন বলেছেন, সংবিধানের মর্যাদা রক্ষায় বাকি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদেরও একই রকম পদক্ষেপ করতে অনুরোধ করছি। এর আগে এ বিষয়ে অন্য মুখ্যমন্ত্রীদের চিঠিও লিখেছেন তিনি। সুপ্রিম কোর্টে দায়ের করা মামলায় কেরালা সরকারের মূল বক্তব্য, সিএএ সংবিধানের মৌলিক অধিকারের বিরোধী, অযৌক্তিক এবং অসঙ্গত। কিন্তু তা সত্ত্বেও সংবিধানের ২৫৬ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী রাজ্য সরকার কেন্দ্রের এই আইন মানতে বাধ্য।
তাই সিএএ-কে ‘অসাংবিধানিক’ বলে খারিজ করা হোক। কেন্দ্র ও রাজ্যের মধ্যে বিবাদ হলে সংবিধানের ১৩১ অনুচ্ছেদে প্রদত্ত ক্ষমতাবলে সুপ্রিম কোর্ট তাতে হস্তক্ষেপ করতে পারে। কেরালা সরকারের মতে, সিএএ সংবিধানের চতুর্দশ অনুচ্ছেদে প্রদত্ত সমানাধিকার, ২১তম অনুচ্ছেদে প্রদত্ত জীবন ও ব্যক্তি স্বাধীনতার অধিকার এবং ২৫তম অনুচ্ছেদে প্রদত্ত ধর্মাচরণের অধিকারের পরিপন্থি। এই আইন সংবিধানের মূল ভাবনা ধর্মনিরপেক্ষতারও বিরোধী। তবে বিজেপি মুখপাত্র জি ভি এল নরসিংহ রাও বলেছেন, কেরালা সরকার বুঝতে পেরেছে বিধানসভায় প্রস্তাব পাস করা ভুল হয়েছে। তাতে কোনও লাভ হবে না। তাই সুপ্রিম কোর্টে মামলা করে তারা অবশেষে পরিণতিবোধ দেখিয়েছে। এদিকে সুপ্রিম কোর্ট ১৮ ডিসেম্বর  কেন্দ্রীয় সরকারের বক্তব্য জানতে চেয়ে নোটিশ জারি করেছে। ২২ জানুয়ারি এই মামলার শুনানি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানা গেছে।

আপনার মতামত দিন



ভারত অন্যান্য খবর

নোবেলজয়ী অভিজিৎ-এস্থার পরামর্শ

আগে নোট ছাপিয়ে মানুষের হাতে দিন

৯ এপ্রিল ২০২০

ট্রাম্পের টুইটের জবাবে মোদী

এরকম সময় বন্ধুদের কাছাকাছি নিয়ে আসে

৯ এপ্রিল ২০২০

মুম্বইয়ে বন্ধ ওখার্ড হাসপাতাল

কলকাতায় ৩৯ চিকিৎসক কোয়ারেন্টিনে

৬ এপ্রিল ২০২০

সংক্রমণ ছড়িয়েছে ৩ গুণ

ভারতে করোনায় রেকর্ড সংখ্যক মৃত্যু ও আক্রান্ত

৬ এপ্রিল ২০২০



ভারত সর্বাধিক পঠিত