ঐতিহাসিক টেস্টের ঘণ্টা বাজলো ইডেনে

স্পোর্টস রিপোর্টার, কলকাতা (ভারত) থেকে

প্রথম পাতা ২৩ নভেম্বর ২০১৯, শনিবার | সর্বশেষ আপডেট: ৩:১৫

প্রধানমন্ত্রী হিসেবে প্রথম ইডেন গার্ডেন্স স্টেডিয়ামের ঘণ্টা বাজালেন শেখ হাসিনা। সেই সময় তাকে সঙ্গ দেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। দু’জন মিলে ঢং..ঢং.. করে ঘণ্টা নাড়িয়ে দিতেই মাঠে গড়ায় বাংলাদেশ ও ভারতের ইতিহাসে প্রথম দিন-রাতের গোলাপি বলের টেস্ট ম্যাচ। সকাল থেকেই বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্য অপেক্ষায় ছিল কলকাতার ইডেন গার্ডেনের ৭০ হাজার দর্শক। বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী মাঠে প্রবেশ করতেই যেন এলাহী কাণ্ড। মাঠে বেশকিছুটা অনুষ্ঠানিকতা সেরে তিনি চলে যান গ্যালারির দ্বিতীয় তলায় ঘণ্টার সামনে।

খেলা শুরুর আগে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সঙ্গে নিয়ে তিনি নাড়তে শুরু করেন ঘণ্টা। এরপরই মাঠে গড়ায় ভারতের বিপক্ষে সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্ট।
২০১৬তে ইডেন গার্ডেন স্টেডিয়ামে প্রথম ঘণ্টা বাজানোর রীতি চালু হয়। তখনকার ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন অব বেঙ্গলের (সিবিএ) সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলী ইংল্যান্ডের লর্ডসের মতো এই প্রথা চালু করেছিলেন। প্রথম ঘণ্টা বাজিয়েছিলেন ভারতের বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়ক কপিল দেব। এবার সৌরভ ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) প্রেসিডেন্ট হয়ে আয়োজন করেন প্রথম গোলাপি বলের টেস্ট। যেখানে দুই দেশের শীর্ষ দুই নারী নেত্রীর হাতে বাজালেন ইতিহাসের ঘণ্টা।

গতকাল সকালে বিমানের বিশেষ ফ্লাইটে চড়ে ঢাকা থেকে প্রধানমন্ত্রী পৌঁছান কলকাতায়। হোটেল তাজ বেঙ্গলে কিছুক্ষণ বিশ্রাম নিয়েই তিনি চলে যান ইডেনে। তার জন্য সাজিয়ে রাখা মঞ্চ তখন কড়তালিতে মুখর হয়ে ওঠে। খেলা শুরুর আগে শেখ হাসিনা আর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিয়ে মাঠে যান সৌরভ গাঙ্গুলী। এ সময় শেখ হাসিনাকে হাত উঁচু করে দর্শকদের তুমুল উল্লাস আর শুভেচ্ছার জবাব দিতে দেখা যায়। এরপর মাঠে প্রবেশ করে দুই দেশের খেলোয়াড়দের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন প্রধানমন্ত্রী। এর পর আসে ঘণ্টা পর্ব। তার আগে মাঠে দুই দেশের জাতীয় সংগীত বাজানো হয়। এই টেস্টের জন্য গোটা কলকাতা গোলাপি জ্বরে আক্রান্ত। পুরো ইডেন গার্ডেনকে সাজিয়ে তোলা হয়েছে নতুন সাজে। প্রবেশ পথ সাজানো সাদা আর গোলাপি ফুল দিয়ে। দেয়ালে দেয়ালে চিত্রকর্ম সেখানেও গোলাপি রংয়ের প্রাধান্য। সন্ধ্যায় গোটা কলকাতায় শুধু গোলাপি আলোই চোখে পড়ে।

টেস্টের প্রথম সেশনের খেলা দেখার পর হোটেলে ফেরেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মধ্যাহ্নভোজ শেষে তার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। প্রথম দিনের খেলার পর ইডেন গার্ডেনে বেঙ্গল ক্রিকেট আয়োজিত একটি সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হয়, তখন আবার স্টেডিয়ামে যান প্রধানমন্ত্রী। সেই অনুষ্ঠান শেষে রাতে নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসু বিমানবন্দর থেকে ঢাকার উদ্দেশে কলকাতা ছাড়েন তিনি।

প্রথম পাতা অন্যান্য খবর

স র জ মি ন

রোহিঙ্গা ক্যাম্প এলাকায় কেউ ভালো নেই

১৫ ডিসেম্বর ২০১৯

রুম্পার মৃত্যু

ময়নাতদন্তে ধর্ষণের আলামত মেলেনি

১৫ ডিসেম্বর ২০১৯

ব্যাংক কমিশন গঠন

অগ্রগতির খবর নেই

১৫ ডিসেম্বর ২০১৯

শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস আজ

১৪ ডিসেম্বর ২০১৯

মোটরসাইকেলে অগ্নিসংযোগ

কারাগারে থেকেও দুই ছাত্রদল নেতা মামলার আসামি

১৪ ডিসেম্বর ২০১৯

আদালতে চোখ ক্যাম্পের রোহিঙ্গাদের

কত রক্ত বইলে তাকে গণহত্যা বলা যায়

১৩ ডিসেম্বর ২০১৯





আপনার মতামত দিন

প্রথম পাতা সর্বাধিক পঠিত