পাকিস্তানের প্রশংসা করলেন ভারতের রাজনীতিক শারদ পাওয়ার

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯, রোববার | সর্বশেষ আপডেট: ৬:৪৬
কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে ভারত-পাকিস্তান যখন উত্তেজনা তুঙ্গে তখন পাকিস্তানের ভূয়সী প্রশংসা করলেন ভারতের ন্যাশনালিস্ট কংগ্রেস পার্টির (এনসিপি) প্রধান শারদ পাওয়ার। তিনি বলেছেন, ভারত সরকার রাজনৈতিক উদ্দেশ্য সাধনের জন্য পাকিস্তানের বিষয়ে মিথ্যাচার করছে। এ খবর দিয়েছে অনলাইন জি নিউজ। এতে বলা হয়, বর্ষীয়ান এই রাজনীতিক বলেছেন, আমি পাকিস্তান সফর করেছি। সেখানে তাদের আতিথেয়তা গ্রহণ করেছি। পাকিস্তানি জনগণ অসুখী বলে মিথ্যা কথা বলা হচ্ছে। ভারতের বর্তমান সরকার নিজেদের রাজনৈতিক সুবিধা আদায়ের জন্য মিথ্যা ছড়িয়ে দিচ্ছে পাকিস্তান সম্পর্কে।

মুম্বইয়ে এনসিপির প্রধান কার্যালয়ে সংখ্যালঘুদের একটি বিশেষ অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখছিলেন শারদ পাওয়ার।
এ সময় তিনি পিটিয়ে মানুষ মেরে ফেলা, সংবিধান থেকে ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিল করা নিয়ে কথা বলেন। অনুচ্ছেদ ৩৭০ বাতিল করার মধ্য দিয়ে ভারত কাশ্মীরের স্বায়ত্তশাসন বাতিল করে। এই অনুচ্ছেদ বাতিল করার জন্য ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের সমালোচনা করেছেন শারদ পাওয়ার। তিনি বলেছেন, এই অনুচ্ছেদের মাধ্যমে জম্মু ও কাশ্মীরের জনগণকে বিশেষ কিছু ক্ষমতা দেয়া হয়েছিল। কিন্তু তা বাতিল করে সরকার এমন বার্তা দিতে চায় যে, তারা সংখ্যালঘু সম্প্রদায় অধ্যুষিত রাজ্যের বিরোধী। সরকারের এই উদ্যোগে কাশ্মীর উপত্যকায় আরো সন্ত্রাস সৃষ্টি করবে বলে মন্তব্য করেন শারদ পাওয়ার।

এ সময় তিনি পিটিয়ে মানুষ মেরে ফেলার ইস্যু উত্থাপন করেন। তিনি উল্লেখ করেন, জাতীয়তার নামে বিশেষ একটি সম্প্রদায়কে (মুসলিম) টার্গেট করা হচ্ছে। শারদ পাওয়ারের ভাষায়, কিছু মানুষ জাতীয়তাবাদের প্রকাশ ঘটানোর চেষ্টা করছে। আমি বলি, আমি একজন ভারতীয়। আমি মনে করি, একজন ভারতীয়ের জন্য এটা খুব প্রয়োজনীয় নয় যে, তাকে দিয়ে এমন কিছু বলানোর চেষ্টা করতে হবে, যাতে প্রমাণ হয় তিনি ভারতীয় নাগরিক। এ সময় বিজেপির নাম উল্লেখ না করে শারদ পাওয়ার বলেন, নিজেদের রাজনৈতিক স্বার্থের কথা মাথায় রেখে অপ্রয়োজনীয়ভাবে একটি রাজনৈতিক দল ইস্যুটিকে সামনে ঠেলে দিচ্ছে। এখানে উল্লেখ্য, আসামে এনআরসি নিয়ে ব্যাপক বিতর্ক আছে। ওই রাজ্যের বিজেপি নেতারাও এর বিরুদ্ধে ক্ষোভ ঝেড়েছেন। ওদিকে সম্প্রতি ভারতে পিটিয়ে বেশ কয়েকজন মুসলিমকে হত্যা করা হয়েছে। তার আগে তাদের কাউকে কাউকে ‘জয় শ্রীরাম’ স্লোগান দিতে বাধ্য করা হয়েছে।  

মহারাষ্ট্রে এবার বন্যায় মারাত্মক ক্ষতি হয়েছে। কিন্তু বন্যাদুর্গত এলাকা সফরে না যাওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফদনবিসের কড়া সমালোচনা করেছেন এনসিপি প্রধান শারদ পাওয়ার। তিনি অভিযোগ করেন, বন্যাদুর্গত এলাকা সফরে না গিয়ে এ দু’জন তাদের ওপর অর্পিত দায়িত্বের অবহেলা করেছেন। ওদিকে গত কয়েক দিনে দল থেকে পদত্যাগ করেছেন এনসিপির বেশ কয়েকজন সিনিয়র নেতা। এর প্রেক্ষিতে আগামী ১৭ই সেপ্টেম্বর থেকে মহারাষ্ট্রে সফরে যাওয়ার কথা রয়েছে শারদ পাওয়ারের।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

৮৮ পাউন্ডের লুলুলেমন, নির্মাতারা নির্যাতিত

সম্রাটের মুখে কুশীলবদের নাম

বাংলাদেশের ফুটবলের উন্নয়নে সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে ফিফা প্রেসিডেন্ট

ফরিদপুরে মানবজমিন উধাও

সীমান্তে গোলাগুলি বিএসএফ সদস্যের নিহতের খবর ভারতীয় মিডিয়ায়

৩৬০০ মেগাওয়াটের বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণ করবে সৌদি কোম্পানি

গ্রামীণফোন-রবিতে প্রশাসক নিয়োগে মন্ত্রণালয়ের অনুমোদন

বালিশকাণ্ডের তদন্তে দুদক

ব্রেক্সিট নিয়ে বৃটেন ইইউ সমঝোতা

মুসা বিন শমসেরের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

দক্ষিণ আফ্রিকায় গিয়েও নিরাপত্তাহীনতায়

ভুলে আসামি, ১৮ বছর পর খালাস পেলেন নাটোরের বাবলু শেখ

গ্রামীণফোনের কাছ থেকে ১২৫৮০ কোটি টাকা আদায়ের ওপর হাইকোর্টের নিষেধাজ্ঞা

‘ফিরোজের কাছে ফিরে আসবো’

শেখ হাসিনা প্রধানমন্ত্রী বলেই আবরার হত্যার পর দ্রুত পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে

পদযাত্রায় বাধা, আমরণ অনশনে নন-এমপিও শিক্ষকরা