পা দিয়ে লিখেই অনার্স পাস

সৃষ্টি ঘটক

ষোলো আনা ২৫ জুলাই ২০১৯, বৃহস্পতিবার | সর্বশেষ আপডেট: ৪:০১

জন্মগতভাবেই দুটো হাত অকেজো। নাম তার শারমিন আক্তার। নোয়াখালীর এক অভাবী পরিবারে জন্ম তার। বিনা চিকিৎসায় বেড়ে উঠেছেন। তবুও দমে যাবার পাত্র নন তিনি। পা দিয়ে লিখে করেছেন অনার্স পাস। বিষয় দর্শন।
দরিদ্র্যতার মাঝেই বসবাস শারমিনের।

বাবা কৃষক।
তিন ভাইবোন নিয়ে পরিবার তাদের। শারমিন আক্তার বলেন- পরিবার, বাবা মায়ের জন্যই সম্ভব হয়েছে। আমার জন্মের পর থেকেই তারা অনেক কষ্ট করেছেন। আমার ভাইবোনের সহযোগিতা ছাড়াও এগিয়ে যাওয়া সম্ভব হতো না। তারা মনোবল জুগিয়ে আমার সামনে এগিয়ে যাবার পথটাকে সুগম করেছেন।

শারমিনের এমন সাফল্যে গর্বিত তার শিক্ষক ও প্রতিবেশীরাও। ছোট থেকেই পড়াশোনায় আগ্রহ এগিয়ে নিয়ে গেছে তাকে।

শারমিনের অনার্স শেষ হয়েছে কিছুদিন আগে। ভর্তি হবেন মাস্টার্সে। স্বপ্ন তার পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করা। দরিদ্র পরিবারের শারমিনের একার পক্ষে তা সম্ভব নয়। তার পাশে দাঁড়িয়ে সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন জেলা প্রশাসক।
শারমিনের স্বপ্ন সরকারি চাকরি করা। বড় কোনো পদে দেখতে চান নিজেকে। সেবা করতে চান পিছিয়ে পড়া অসহায় মানুষের। তার এই স্বপ্ন পূরণে সহযোগিতা চান সবার।

ষোলো আনা অন্যান্য খবর

একজন প্রতিবাদী শারমিন

৩ ডিসেম্বর ২০১৯

বিশ্বনাথের নিজের গল্প

৩ ডিসেম্বর ২০১৯

তবুও স্বপ্ন বুনছেন ওরা

৩ ডিসেম্বর ২০১৯

সরজমিন

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে অন্যরকম জীবন

১৫ নভেম্বর ২০১৯

বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়

ক্ষমতাধর জয়

১৮ অক্টোবর ২০১৯

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়

অঙ্গীকারেই সীমাবদ্ধ

১৮ অক্টোবর ২০১৯





পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

efti hasan

২০১৯-১০-১৭ ২১:৩৬:০৬

ভালো লাগছে রিপোর্টটা

আপনার মতামত দিন

ষোলো আনা সর্বাধিক পঠিত