জমকালো আয়োজনে ‘বাংলাসিনে অ্যাওয়ার্ড’-এর মনোনয়ন ঘোষণা

স্টাফ রিপোর্টার | ২০১৫-০৯-০৪ ৮:২৪
জমকালো আয়োজনের মধ্য দিয়ে আমেরিকার নিউ ইয়র্কের আমাজুরায় আগামী ১৫ই নভেম্বর হতে যাচ্ছে ‘বাংলাসিনে অ্যাওয়ার্ড ২০১৫’। এ উপলক্ষে মনোনয়নপ্রাপ্তদের নাম ঘোষণা করলেন অ্যাওয়ার্ড প্রদানের জন্য গঠিত জুরি বোর্ডের চেয়ারম্যান, বিশিষ্ট চলচ্চিত্র ব্যক্তিত্ব ও একাধিকবারের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত শিল্প নির্দেশক মহিউদ্দিন ফারুক। বুধবার সন্ধ্যায় গুলশানের একটি হোটেলে ‘বাংলাসিনে অ্যাওয়ার্ড ২০১৫’-এর পুরস্কারের জন্য প্রাথমিকভাবে প্রতিটি শাখায় তিনজন করে মনোনয়ন প্রাপ্তের নাম ঘোষণা করা হয়। এ পুরস্কারে আজীবন সম্মাননা পাচ্ছেন চার দশকের প্রখ্যাত অভিনেত্রী নূতন ও জনপ্রিয় অভিনেতা ইলিয়াস কাঞ্চন। সমাজ, বাস্তব এবং জীবনধর্মী চলচ্চিত্রের রূপকার হিসেবে বিশেষ সম্মাননা পাচ্ছেন এটিএন বাংলা ও এটিএন নিউজের চেয়ারম্যান এবং মাল্টি মিডিয়া ফিল্ম প্রোডাকশনের কর্ণধার ড. মাহফুজুর রহমান। কেবল বাংলাদেশের চলচ্চিত্রকে নিয়ে অনুষ্ঠেয় এ বাংলা সিনে অ্যাওয়ার্ড ২০১৫-এর মনোনয়নপ্রাপ্তরা হলেন- শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র ‘এই তো প্রেম’, ‘দেশা দ্য লিডার’ ও ‘ইভটিজিং’, শ্রেষ্ঠ পরিচালক কাজী হায়াৎ (ইভটিজিং), জাকির হোসেন রাজু (অনেক সাধের ময়না) এবং সৈকত নাসির (দেশা দ্য লিডার), শ্রেষ্ঠ অভিনেতা অনন্ত জলিল (মোস্ট ওয়েলকাম টু), শাকিব খান (এই তো প্রেম), আরেফিন শুভ (তারকাঁটা), শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী বর্ষা (মোস্ট ওয়েলকাম টু), জয়া আহসান (পূর্ণদৈর্ঘ্য প্রেম কাহিনী) ও মাহিয়া মাহি (দেশা দ্য লিডার), পার্শ্বচরিত্রে অভিনেতা মিজু আহমেদ (ইভটিজিং), কাবিলা (ইভটিজিং) ও আনিসুর রহমান মিলন (অনেক সাধের ময়না), শ্রেষ্ঠ খলনায়ক তারিক আনাম খান (দেশা দ্য লিডার), অমিত হাসান (এই তো প্রেম) ও আরেফিন শুভ (পূর্ণদৈর্ঘ্য প্রেম কাহিনী টু), বর্তমান চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় নায়ক-নায়িকা কাজী মারুফ ও বিদ্যা সিনহা মিম। স্পেশাল জুরি অ্যাওয়ার্ড ইমন, নবাগত নায়ক-নায়িকা মশান্ত ও অমৃতা খান, শ্রেষ্ঠ গায়ক চন্দন সিনহা (আমি নিঃস্ব হয়ে যাবো) ও হাবিব ওয়াহিদ (আমি তোমার মনের ভিতর)। শ্রেষ্ঠ গায়িকা মমতাজ ও লেমিস। শ্রেষ্ঠ ফোক গায়ক ফকির শাহাবুদ্দিন। মনোনয়নপ্রাপ্তদের মধ্যে অনুভূতি প্রকাশ করেন ইলিয়াস কাঞ্চন, নূতন, অনন্ত জলিল ও কাজী হায়াৎ। উপস্থিত ছিলেন অঞ্জনা, কাজী মারুফ, বর্ষা, অমিত হাসান, মিজু আহমেদ, কাবিলা, নিরব, অমৃতা খান, শান্ত, শিপন, আলিশা প্রধান, তপু, পথিক নবী, লেমিস, জুরি বোর্ডের সদস্য সাঈদুর রহমান সাঈদ, রশিদুল আমিন হলি ও মোহাম্মদ আওলাদ হোসেন। কাজী আফরোজা মীম ও তামান্না জাহানের উপস্থাপনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন আয়োজক বিএনএস লজিস্টিকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও সালাউদ্দিন আহমেদ শিমুল। জুরি বোর্ডের পক্ষে বক্তব্য রাখেন ভারপ্রাপ্ত সদস্য সচিব মোহাম্মদ আওলাদ হোসেন। জুরি বোর্ডের সদস্য সচিব আবদুস সামাদ খোকন বর্তমানে পবিত্র হজ পালনের জন্য মক্কায় অবস্থান করছেন। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট চলচ্চিত্র ব্যক্তিত্ব সৈয়দ হাসান ইমাম, এফডিসির সাবেক এমডি পীযূষ বন্দ্যোপাধ্যায়, অ্যাওয়ার্ডের চিফ কোঅর্ডিনেটর রফিকুল ইসলাম লিটন, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী রাসেক রহমান, চলচ্চিত্র প্রযোজক পরিবেশক সমিতির উপদেষ্টা কমিটির আহ্বায়ক নাসিরুদ্দিন দিলু, ফিল্ম এডিটর গিল্ডের সভাপতি আবু মুসা দেবু, চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক অমিত হাসান, বিশিষ্ট সাংবাদিক অঞ্জন রায় এবং বিএনএস লজিস্টিকের পরিচালক আতিকুর রহমান। সবশেষে জুরি বোর্ডের চেয়ারম্যান, সদস্য এবং মনোনয়নপ্রাপ্তদের নিয়ে কেক কাটার মধ্য দিয়ে বাংলাসিনে অ্যাওয়ার্ডের আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু করা হয়। তপুর গান পরিবেশনের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি টানা হয়।