বিবাহ বহির্ভূত যৌন সম্পর্ক নিষিদ্ধ করার আবেদন প্রত্যাখ্যাত ইন্দোনেশিয়ায়

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১৪ ডিসেম্বর ২০১৭, বৃহস্পতিবার | সর্বশেষ আপডেট: ১:৩০
বিবাহ বহির্ভূত যৌন সম্পর্ক নিষিদ্ধ করার এক আবেদন প্রত্যাখ্যান করেছে ইন্দোনেশিয়ার আদালত। দেশটির সাংবিধানিক আদালত বৃহস্পতিবার ওই আবেদন প্রত্যাখ্যান করে। এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়ার ক্ষেত্রে আদালতের ৯ জন বিচারকের মধ্যে ৫ জন ওই আবেদন প্রত্যাখ্যান করেন। বাকি চারজন ছিলেন আবেদনের পক্ষে। ফলে মাত্র একজন বিচারকের সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে আদালত ওই রায় দিয়েছে। আদালতের এমন রায়কে দেখা হচ্ছে অধিকারকর্মীদের বিজয় হিসেবে।
এমন সম্পর্ক নিষিদ্ধ করার আবেদন করেছিল ফ্যামিলি লাভ এলায়েন্স নামের একটি রক্ষণশীল গ্রুপ। এ গ্রুপের সঙ্গে রয়েছেন রক্ষণশীল শিক্ষাবিদ ও অধিকারকর্মীরা। তারা ব্যভিচার বিষয়ক যে সংজ্ঞা আছে তা শুধু বিবাহিত দম্পতির ক্ষেত্রে প্রয়োগ না করে সবার জন্য প্রয়োগ করার আহ্বান জানায়। এর মাধ্যমে তারা বলতে চায়, বিবাহ বহির্ভূত যেকোনো যৌন সম্পর্ক কার্যত একটি অপরাধ। প্রধান বিচারপতি আরিফ হিদায়েত বলেছেন, ব্যভিচারিতা বিষয়ক বিদ্যমান যে আইন আছে তা সংবিধানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক নয়। এক্ষেত্রে নতুন একটি পলিসি সৃষ্টি করার কোনো এক্তিয়ার নেই সাংবিধানিক আদালতের। আবেদনকারী তার এ সংক্রান্ত আবেদন পার্লামেন্ট বা আইন প্রণেতাদের কাছে করতে পারেন। এমন দৃষ্টিভঙ্গির প্রেক্ষিতে বলা যায়, সাংবিধানিক আদালতে এ আবেদনের কোনো আইনী ভিত্তি নেই। উল্লেখ্য, বর্তমানে জাতীয় পর্যায়ে দন্ডবিধির ত্রুটিবিচ্যুতি পুনর্বিবেচনা করছে ইন্দোনেশিয়ার পার্লামেন্ট।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন