জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদকে মিয়ানমার, বাংলাদেশ সফরের আহ্বান

অনলাইন

অনলাইন ডেস্ক | ১৩ ডিসেম্বর ২০১৭, বুধবার, ৮:২৩
জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদকে মিয়ানমার ও বাংলাদেশ সফরের আহ্বান জানিয়েছেন সংস্থাটির শীর্ষ এক কর্মকর্তা। মঙ্গলবার জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে রোহিঙ্গা মুসলিম নারীদের ওপর হওয়া যৌন নৃশংসতার হৃদয়বিদারক বর্ণনা তুলে ধরে এ আহ্বান জানান বিশেষ দূত প্রমিলা প্যাটেন। মিয়ানমার সফর করে বেসামরিক জনগোষ্ঠীর ওপর হামলা বন্ধ করার দাবি জানানোর তাগিদ দেন তিনি। প্রমিলা প্যাটেন বলেন, এক নারী তাকে বলেছেন, তাকে ৪৫ দিন আটকে রেখে বার বার ধর্ষণ করেছে মিয়ানমারের সেনারা। অপর এক নারী প্রমিলাকে বলেছেন, তিনি আর এক চোখে দেখতে পারেন না। কারণ, যৌন নিপীড়ন চালানোর সময় এক সেনা তার চোখে কামড় দিয়েছিল।

নিরাপত্তা পরিষদকে প্রমিলা আরো জানান, ‘কিছু প্রত্যক্ষদর্শী এও রিপোর্ট করেছে যে, নারী ও মেয়েদের পাথর বা গাছের সঙ্গে বেঁধে রেখে মরার আগ পর্যন্ত ধর্ষণ করা হয়েছে। কিছু নারী বলেছেন, সেনারা তাদের শিশু সন্তানদের কুয়ার মধ্যে ফেলে দিয়েছে। অনেক নারী জানিয়েছেন, তাদের একদিকে গণধর্ষণ করা হয়েছে, অপরদিকে তাদের সন্তানদের আগুনে ছুড়ে ফেলে জীবন্ত হত্যা করা হয়েছে।’
প্রমিলা প্যাটেন বলেন, ১৫ সদস্যের নিরাপত্তা পরিষদের উচিত মিয়ানমার ও বাংলাদেশের কক্সবাজার সফর করা যেখানে ৬ লাখ ২৬ হাজারের বেশি শরণার্থী প্রাণ বাঁচাতে মিয়ানমার থেকে পালিয়ে আশ্রয় নিয়েছে।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Salim Khan

২০১৭-১২-১৪ ১১:২৮:৩৩

আপনার কথা গুলোকে পূর্ণ সমর্থন জানাই। মিয়ানমারের ন্যাড়া বৌদ্ধ সন্ত্রাসীরা মুসলিম মা বোনদের উপর ইতিহাসের বর্বরতম নির্যাতন চালিয়েছে।

আপনার মতামত দিন