বিএনপি স্থায়ী কমিটির জরুরি বৈঠক অনুষ্ঠিত

দেশ বিদেশ

স্টাফ রিপোর্টার | ১১ ডিসেম্বর ২০১৭, সোমবার
আগামী জাতীয় নির্বাচন, ডিএনসিসি উপনির্বাচন, চেয়ারপারসনের বিরুদ্ধে মামলার গতি-প্রকৃতি এবং দলের সাংগঠনিক বিষয়াদি নিয়ে জরুরি বৈঠক করেছে বিএনপি জাতীয় স্থায়ী কমিটি। চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে খালেদা জিয়ার নেতৃত্বেই গতরাতে এ বৈঠক হয়। বৈঠক সূত্র জানায়, বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বক্তব্য পর্যালোচনা করা হয়। বিশেষ করে আগামী নির্বাচন নিয়ে বিএনপির সঙ্গে আলোচনার সম্ভাবনা নাকচ করে প্রধানমন্ত্রী যে বক্তব্য দিয়েছেন তা আলোচনায় গুরুত্ব পায়। নেতারা তাদের মতামতে বলেন, প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য অত্যন্ত ইঙ্গিতময় এবং আগ্রাসী। আওয়ামী লীগ ২০১৪ সালের মতো বিএনপিকে আবারো নির্বাচনের বাইরে রাখতে চায়।
সবদলের অংশগ্রহণে একটি গ্রহণযোগ্য নির্বাচন দিতে সরকারকে বাধ্য করার জন্য পাল্টা কৌশল প্রয়োজন। সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের আসন্ন উপনির্বাচন নিয়ে আলোচনা হয়েছে। সেখানে সম্ভাব্য প্রার্থীদের নাম আলোচিত হয়। তবে বেশিরভাগ নেতাই বিগত নির্বাচনে বিএনপির মনোনয়ন পাওয়া তাবিথ আউয়ালের পক্ষে ইতিবাচক মতামত দেন। তার ব্যাপারে নেতারা বেশকিছু যুক্তিও তুলে ধরেন। বৈঠক সূত্র জানায়, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে ওয়ান ইলেভেনের জরুরি সরকার বেশ কয়েকটি মামলা দায়ের করেছিলেন। তার মধ্যে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট ও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলার বিচারিক কার্যক্রম প্রায় চূড়ান্ত পর্যায়ে। ইতিমধ্যে মামলায় আত্মপক্ষ সমর্থনে খালেদা জিয়ার বক্তব্যও শেষ হয়েছে। আগামী ১৯ থেকে ২১শে ডিসেম্বর মামলার আর্গুমেন্টের দিন ধার্য করেছে আদালত। সে হিসেবে মামলার কার্যক্রম একই গতিতে এগোলে আগামী বছরের প্রথম মাসেই রায় ঘোষণার সম্ভাবনা রয়েছে। সম্ভাব্য রায়ে খালেদা জিয়া ন্যায় বিচার না পেলে পরবর্তী পরিস্থিতিতে আইনগত ও রাজনৈতিকভাবে মোকাবিলার ব্যাপারে স্থায়ী কমিটির সদস্যরা নিজেদের মতামত তুলে ধরেন। সূত্র জানায়, বিএনপি ও অঙ্গ দলগুলোর সাংগঠনিক পরিস্থিতি এবং পুনর্গঠনের বিষয়গুলোও বৈঠকে আলোচনায় উঠে আসে।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন