কুলাউড়ায় স্কুলছাত্রীর রহস্যজনক মৃত্যু

বাংলারজমিন

কুলাউড়া (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি | ১১ ডিসেম্বর ২০১৭, সোমবার
কুলাউড়া উপজেলার ভারত সীমান্তবর্তী শরীফপুর ইউনিয়নের চাতলাপুর চা বাগান থেকে এক স্কুল ছাত্রীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। উদ্ধার হওয়া কান্তি হৃধন (১৫) তেলিবিল উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রী। শনিবার গভীর রাতে চাতলাপুর চা বাগানের বেগুন টিলা শ্রমিক বস্তির নিজ বসত বাড়ির একটি গাছে ঝুলন্ত অবস্থায় তার লাশটি উদ্ধার হয়। নিজের বসত ঘরের সামনের একটি চাতলাগাছে গলায় ফাঁস দেয়া অবস্থায় গাছের সঙ্গে লাশ দেখে ঘটনাটি রহস্যজনক বলে সাধারন চা শ্রমিকদের ধারণা। চাতলাপুর চা বাগান সূত্রে জানা যায়, বেগুন টিলা শ্রমিক বস্তির চা শ্রমিক ধনা হৃধনের মেয়ে কান্তি হৃধনকে শনিবার সন্ধ্যা থেকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। একপর্যায়ে গভীর রাতে নিজেদের বসত বাড়ির সামনের চালতা গাছে গায়ের ওড়না দিয়ে ফাঁস লাগানো অবস্থায় তাকে দেখা যায়।

ছাত্রী কান্তি হৃধনের বাবা ধনা হৃধন জানান, চালতা গাছের কান্ডের একটু উপরে ওড়না দিয়ে বাঁধা গলায় ফাঁস দেয়া অবস্থায় তাকে দেখতে পাই। তবে তার দুই হাঁটু ও পা মাটির সঙ্গে লাগানো ছিল। এতে বোঝা যায় কান্তিকে কেউ হত্যার পর লাশটি টেনে এনে চালতা গাছের সাথে বেঁধে রাখেছে। ঘটনার খবর পেয়ে কুলাউড়া থানার এসআই সনাক কান্দি দাশের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল রোববার ঘটনাস্থল থেকে সুরতহাল তৈরীর পর লাশ উদ্ধার করে।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন