নিবন্ধনের শর্ত প্রতিপালন ১২ রাজনৈতিক দলকে শোকজ

দেশ বিদেশ

স্টাফ রিপোর্টার | ৮ ডিসেম্বর ২০১৭, শুক্রবার
নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলগুলো তাদের শর্ত প্রতিপালন করছে কিনা তা জানাতে ব্যর্থ হওয়ায় ১২ রাজনৈতিক দলকে শোকজ করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। এসব দলের বিরুদ্ধে কেন ব্যবস্থা নেয়া হবে না তা ১৫ কার্যদিবসের মধ্যে কারণ দর্শাতে বলা হয়েছে। ইসি’র নির্ভরযোগ্য সূত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। সূত্র জানায়, রাজনৈতিক দলগুলো তাদের নিবন্ধনের শর্ত প্রতিপালন করছে কিনা তা জানতে চেয়ে চিঠি দিয়েছিল নির্বাচন কমিশন (ইসি)। ৩০শে নভেম্বর দলগুলোর কাছে পাঠানো চিঠিতে ১৫ কার্যদিবসের মধ্যে এ বিষয়ে অবগত করার জন্য বলা হয়। ক্ষমতাসীন দল বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ও সংসদের বিরোধী দল জাতীয় পার্টিসহ পাঁচটি দল জবাব দেয়ার জন্য আরো সময় চায়। এর প্রেক্ষিতে তাদেরকে অতিরিক্ত সময় দিয়ে ৩০ কার্যদিবসের মধ্যে জবাব দিতে বলা হয়েছে। অপরপক্ষে ১২টি দল নির্ধারিত সময়ে কোনো জবাব দেয়নি। এমনকি অতিরিক্ত সময়ও চায়নি কমিশনের কাছে। তাই তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা কেনো নেয়া হবে না- তা ১৫ কার্যদিবসের মধ্যে ইসিতে জানাতে বলা হয়েছে। বুধবার এ সংক্রান্ত ইসির যুগ্ম সচিব আবুল কাসেম স্বাক্ষরিত চিঠি দুটি দলগুলোর কাছে পাঠানো হয়। সূত্র জানায়, ইসির নিবন্ধিত ৪০টি দলের অর্ধেকের মতো দল তাদের জবাব দিয়েছে। এছাড়া সময় চেয়েছে আওয়ামী লীগ, জাতীয় পার্টি, বাংলাদেশ মুসলিম লীগ (বিএমএল), জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টি (জাগপা) ও জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জেএসডি)। সময় চাওয়ার প্রেক্ষিতে এদেরকে ৩০ কার্যদিবসের মধ্যে ইসির জবাব দিতে বলে কমিশন। এছাড়া, বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি, বাংলাদেশ খেলাফত মজলিস, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি, তরিকত ফেডারেশন, গণতন্ত্রী পার্টি, ঐক্যবদ্ধ নাগরিক আন্দোলন, গণফোরাম, বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল (বাসদ) সহ ১২ দল ইসির চিঠির কোনো জবাব দেয়নি এবং তারা জবাব দেয়ার জন্য কোনো সময়ও চায়নি। তাই তাদের বিরুদ্ধে কেনো আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে না- তা আগামী ১৫ কার্যদিবসের মধ্যে কমিশনে জানাতে বলা হয়েছে। এর আগে ইসির ভারপ্রাপ্ত সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ জানিয়েছিলেন, কিছু দল সময় চেয়েছে তাদেরকে সময় দেয়া হবে। আর যারা কিছুই জানায়নি তাদেরকে জবাব দেয়ার জন্য আবারো তাগাদা দিয়ে চিঠি দেয়া হবে। ইসি সূত্র জানায়, দলগুলো শর্তপূরণ করেই নিবন্ধিত হয়েছিল। তাদের বেশকিছু বিষয় প্রতিপালনের বাধ্যবাধকতাও রয়েছে। এজন্য ইসির ঘোষিত কর্মপরিকল্পনা মেনে সর্বশেষ অবস্থা জানাতে নিবন্ধিত দলগুলোকে চিঠি দেয়া হয়েছে। ইসির রোডম্যাপে বলা হয়েছে নিবন্ধিত দলগুলো বিধি-বিধানের আলোকে পরিচালিত হচ্ছে কিনা তা খতিয়ে দেখার আইনানুগ দায় ইসির রয়েছে। তারা শর্ত যথাযথভাবে প্রতিপালন করছে কিনা তা খতিয়ে দেখতে সিদ্ধান্ত হয়েছে। যাতে সব নিবন্ধিত দল একাদশ সংসদ নির্বাচনে অংশ নিতে পারে। ইসি কর্মকর্তারা জানান, দলগুলোর প্রতিবেদন পাওয়ার পর নির্বাচিত কমিটি ও মাঠ অফিসের কার্যক্রম ঠিক রয়েছে কিনা তা সঠিকভাবে যাচাইয়ে একটি বিশেষ দল তদন্তে নামবে। নিবন্ধনের সময় দেয়া শর্ত পূরণ করতে না পারলে ইসির নিজস্ব কর্মকর্তাদের প্রতিবেদনের ভিত্তিতে শোকজ নোটিশ দিয়েই প্রাথমিক পদক্ষেপ শুরু হবে। উল্লেখ্য, ২০০৮ সালে নিবন্ধন প্রথা চালুর পর এ পর্যন্ত ৪২টি দল নিবন্ধিত হয়েছে। এরমধ্যে স্থায়ী সংশোধিত গঠনতন্ত্র দিতে না পারায় ২০০৯ সালে ফ্রিডম পার্টির নিবন্ধন বাতিল এবং আদালতের আদেশে ২০১৩ সালে জামায়াতের নিবন্ধন অবৈধ রয়েছে।


এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

নিম্ন আদালতের বিচারকদের চাকরির শৃঙ্খলাবিধির গেজেট প্রকাশ

রাজধানীতে গলাকাটা লাশ উদ্ধার

অতিরিক্ত সচিব হলেন ১২৮ জন

ভুয়া ডাক্তারকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ

মাহমুদুর রহমানের বিরুদ্ধে ৫০০ কোটি টাকার মানহানি মামলা

হবিগঞ্জে ৫ জেএমবি সদস্য গ্রেপ্তার

ইসরাইল একটি সন্ত্রাসী রাষ্ট্র- এরদোগান

বুধবার সারাদেশে বিএনপির প্রতিবাদ কর্মসূচি

বিদ্যুৎ গ্রিডের ট্রান্সফরমারে আগুন, তিন ঘণ্টার চেষ্টায় নিয়ন্ত্রণে

জেরুজালেম ইসরাইলেরই রাজধানী- নেতানিয়াহু

নির্বাচনে নিষিদ্ধ ভেনিজুয়েলার বিরোধী দল

ভারী তুষারপাতে বিপর্যয়ের আশঙ্কা বৃটেনে

সুদের ৮ হাজার টাকার জন্য যুবককে পিটিয়ে হত্যা, মামলা দায়ের

রাজকীয় দুই পুরস্কার ফেরত দিলেন মাহাথির মোহাম্মদ

এবি ব্যাংক চেয়ারম্যানসহ ৪ জনকে দুদকে তলব

আড়াইহাজারের এমপির সঙ্গে মাওলানা হাবিবুরের বাগবিতণ্ডার ভিডিও ভাইরাল