প্রেসিডেন্টের ভাষণের খসড়া মন্ত্রিসভায় অনুমোদন

দেশ বিদেশ

বিশেষ প্রতিনিধি | ৮ ডিসেম্বর ২০১৭, শুক্রবার
দশম জাতীয় সংসদের ২০১৮ সালের প্রথম অধিবেশনে (শীতকালীন অধিবেশন) প্রেসিডেন্টের ভাষণের (বিস্তারিত ও সংক্ষিপ্ত) খসড়া অনুমোদন করেছে মন্ত্রিসভা। গতকাল প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকে এ অনুমোদন দেয়া হয়। বিকালে সচিবালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানিয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম বলেন, প্রেসিডেন্টের বিস্তারিত ভাষণ হবে ৭২ হাজার ৩৮৬ শব্দের এবং সংক্ষিপ্ত ভাষণ হবে সাত হাজার ৪৫৭ শব্দের। তবে এ ভাষণ আরো সংক্ষিপ্ত করা হতে পারে। সংক্ষিপ্ত ভাষণটি ছয় হাজার শব্দের মধ্যে আনা হবে। তিনি বলেন, খসড়ায় নয়টি বিষয়কে গুরুত্ব দেয়া হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে দেশের সার্বিক অর্থনীতি, দেশের আর্থ-সামাজিক অবস্থা, রূপকল্প-২০২০-২১ বাস্তবায়নের অগ্রগতি, ডিজিটাল বাংলাদেশ, বাংলাদেশের কর্মসংস্থান, সামাজিক নিরাপত্তা বলয়, যুদ্ধাপরাধীদের বিচার এবং প্রশাসনিক বিন্যাস। আগামী ৪ঠা জানুয়ারির মধ্যে এ খসড়া চূড়ান্ত করা হবে। অধিবেশনের প্রথম দিনেই প্রেসিডেন্ট সংসদে ভাষণ দেবেন। শীতকালীন অধিবেশন কবে বসতে পারে- সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, এটা প্রেসিডেন্টের বিষয়। তিনি যেদিন সংসদের অধিবেশন ডাকবেন সেদিনই অনুষ্ঠিত হবে। এদিকে মন্ত্রিসভা বাংলাদেশের শীতল পাটির জাতিসংঘের শিক্ষা, বিজ্ঞান ও সংস্কৃতি সংস্থার (ইউনেস্কো) স্বীকৃতিতে সংশ্লিষ্টদের ধন্যবাদ জানিয়েছে মন্ত্রিসভা। মন্ত্রিসভা বৈঠকে এ ধন্যবাদ জানানো হয়। মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম বলেন, সিলেটের ঐতিহ্যবাহী শীতল পাটি ইউনেস্কোর নির্বস্তুক সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য হিসেবে যে স্বীকৃতি পেয়েছে সেটি মন্ত্রিসভায় উপস্থাপন করা হয়। মন্ত্রিসভা এ জন্য সংশ্লিষ্ট সবাইকে ধন্যবাদ জানায়। এর আগে গত বুধবার দক্ষিণ কোরিয়ার জেজু দ্বীপে ইউনেস্কোর ইন্টারগভর্নমেন্টাল কমিটি ফর দ্য সেফগার্ডিং অব দ্য ইনটেনজিবল কালচারাল হেরিটেজ কমিটির ১২তম অধিবেশনে সিলেটের ঐতিহ্যবাহী শীতল পাটিকে বিশ্বের নির্বস্তুক সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য (ইনটেনজিবল কালচারাল হেরিটেজ অব হিউম্যানিটি) হিসেবে স্বীকৃতি দেয়। এছাড়া মন্ত্রিসভা বৈঠকে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আনিসুল হকের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করা হয়। মন্ত্রিসভার বৈঠকে এ শোক প্রস্তাব গ্রহণ করা হয়। মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম বলেন, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র, খ্যাতিমান টেলিভিশন ব্যক্তিত্ব, সফল উদ্যোক্তা ও ব্যবসায়ী নেতা আনিসুল হকের মৃত্যুতে মন্ত্রিসভা গভীর শোক প্রকাশ করেছে। তার বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা এবং তার শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়েছে। এর আগে মেয়র আনিসুল হক ৩০শে নভেম্বর বাংলাদেশ সময় রাত ১০টা ২৩ মিনিটে লন্ডনের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। ২রা ডিসেম্বর তার মরদেহ ঢাকায় আনা হয় ও বনানী কবরস্থানে দাফন করা হয়।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

ম্যানহাটন হামলায় আটক ব্যক্তি বাংলাদেশি?

২৯ রোহিঙ্গা নারীর মুখে ধর্ষণযজ্ঞের বর্ণনা

বাংলাদেশের দুই নেত্রীর লড়াইয়ের ইতি

বাড়ির পাশে ম্যারাডোনা

আওয়ামী লীগকে হারানোর মতো কোনো দলই নেই

৩ দিনের সফরে ফ্রান্স গেলেন প্রধানমন্ত্রী

৫০ শতাংশের বেশি মানুষ মানসম্পন্ন সেবা পায় না

বিএনপি’র পিন্টু না টুকু নতুন প্রার্থীর খোঁজে আওয়ামী লীগ

তন্নতন্ন করে খুঁজেও বিদেশে সম্পদের অস্তিত্ব মেলেনি

ঢাকা-রংপুর ফাইনাল আজ

জনগণের মুখোমুখি রসিক মেয়র প্রার্থীরা

‘যাদেরকে টিফিন খাওয়ালো তারাই হত্যা করলো’

ওয়াসা আর ফ্লাইওভারে লণ্ডভণ্ড চট্টগ্রামের সব সড়ক

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ত্রাণ বিতরণ এক সপ্তাহ স্থগিত

বাকেরগঞ্জে সাবেক এমপি মাসুদ রেজার ভাই গুলিবিদ্ধ

কংগ্রেসের নতুন প্রেসিডেন্ট রাহুল গান্ধী