এনআরবি কমার্শিয়ালের এমডি অপসারিত

শেষের পাতা

স্টাফ রিপোর্টার | ৭ ডিসেম্বর ২০১৭, বৃহস্পতিবার | সর্বশেষ আপডেট: ১০:৪২
এবার এনআরবি কমার্শিয়াল ব্যাংকের (এনআরবিসিবি) ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) দেওয়ান মুজিবুর রহমানকে অপসারণ করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। ৭০১ কোটি টাকা ঋণ অনিয়ম এবং ব্যাংক চালাতে ব্যর্থ হওয়ায় তার বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক এ ব্যবস্থা নেয় কেন্দ্রীয় ব্যাংক। আগামী দুই বছর তিনি কোনো ব্যাংক বা আর্থিক প্রতিষ্ঠানেও চাকরি করতে পারবেন না বলে বাংলাদেশ ব্যাংকের এক আদেশে জানানো হয়েছে। মঙ্গলবার তার অপসারণপত্র অনুমোদন করেন গভর্নর ফজলে কবির। তবে ব্যাংকটিতে অপসারণ সংক্রান্ত চিঠি পাঠানো হয় বুধবার সকালে। বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র শুভঙ্কর সাহা গতকাল জানিয়েছেন, ব্যাংক কোম্পানি আইনের ৪৬ (১) ধারা অনুযায়ী এনআরবিসিবির এমডিকে অপসারণ করা হয়। বাংলাদেশ ব্যাংকের উচ্চ পর্যায়ের একটি সূত্র জানিয়েছে, প্রক্রিয়া অনুযায়ী এ ঘটনায় আরো অনেককে বিচারের আওতায় আনা হতে পারে।
অপসারণের প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে এর আগে এনআরবিসিবির এমডি মুজিবুর রহমান ব্যক্তিগত শুনানিতে আগ্রহী কি-না তা জানতে চেয়ে বাণিজ্যিক ব্যাংকের প্রধান নির্বাহীদের অনিয়ম-দুর্নীতি প্রতিরোধে গঠিত বাংলাদেশ ব্যাংকের স্থায়ী কমিটি চিঠি দেয়। একই রকম প্রক্রিয়া অনুসরণ শেষে এর আগে বেসিক ও অগ্রণী ব্যাংকের এমডিকে অপসারণ করে বাংলাদেশ ব্যাংক।
বাংলাদেশ ব্যাংকের তদন্তে ২০১৬ সালেই এনআরবিসিবির ৭০১ কোটি টাকা ঋণে গুরুতর অনিয়মের তথ্য বেরিয়ে আসে। এর পরিপ্রেক্ষিতে ব্যাংকটিতে পর্যবেক্ষক নিয়োগ দেয় বাংলাদেশ ব্যাংক। চলতি বছরের ২০শে মার্চ ব্যাংকটির চেয়ারম্যান ও এমডির কাছে পাঠানো পৃথক নোটিশে বাংলাদেশ ব্যাংক জানায়, আমানতকারীদের স্বার্থে ও জনস্বার্থে এনআরবিসি ব্যাংক চালাতে ব্যর্থ হয়েছে ফরাছত আলীর নেতৃত্বাধীন পরিচালনা পর্ষদ। আর এমডি ব্যর্থ হয়েছেন ব্যাংকটিতে যথাযথ ব্যবস্থাপনা নিশ্চিত করতে। এমন কি তারা গুরুতর প্রতারণা ও জালিয়াতি করেছেন, যা ফৌজদারি আইন অনুযায়ী দণ্ডনীয়।
এমডিকে এসব কথা জানিয়ে ব্যাংক কোম্পানি আইনের ৪৬ ধারা অনুযায়ী কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয় বাংলাদেশ ব্যাংক। চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে কেন আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে না এবং এমডিকে কেন অপসারণ করা হবে না, নোটিশে তা জানতে চাওয়া হয়েছে। ৪৬ ধারা অনুযায়ী ব্যাংকের পরিচালক/এমডিকে অপসারণ করা যায়। তবে উপরমহলের চাপের কারণে চেয়ারম্যানকে বাঁচাতে ৪৬ ধারার বিষয়টি এড়িয়ে যায় বাংলাদেশ ব্যাংক। ওই নোটিশে ১০টি কারণ তুলে ধরে বাংলাদেশ ব্যাংক। এ নোটিশের বিরুদ্ধে দুজনই আদালতে যান। পরে বাংলাদেশ ব্যাংকের পক্ষে রায় এলে গত ৩রা মে ব্যাংকটির চেয়ারম্যান ও এমডি নোটিশের জবাব দেন। জবাব সন্তোষজনক না হওয়ায় তার বিরুদ্ধে এ ব্যবস্থা নেয়া হলো। এদিকে আমানতকারীর স্বার্থ রক্ষার ক্ষেত্রে দায়িত্ব পালনে ব্যর্থ উল্লেখ করে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নোটিশে বলা হয়, মার্কেন্টাইল ব্যাংকের চেয়ারম্যান শহীদুল আহসানের স্বার্থ-সংশ্নিষ্ট এজি এগ্রোকে প্রিন্সিপাল শাখা থেকে ১৮৩ কোটি টাকা ও চন্দ্রগঞ্জ শাখা থেকে বেগমগঞ্জ ফিডের নামে ১১৮ কোটি টাকাসহ বিভিন্ন শাখায় ৭০১ কোটি টাকার ঋণ অনিয়মের সঙ্গে এমডি’র সংশ্লিষ্টতা পাওয়া গেছে। এ ছাড়া বেনামি শেয়ার ধারণ, পরিচালক না হয়েও পর্ষদ সভায় উপস্থিতিসহ বিভিন্ন অনিয়মের তথ্য গোপন করা হয়েছে। এসব অনিয়মের বিষয়ে চিঠি পাওয়ার ১০ দিনের মধ্যে জবাব দিতে বলা হয়। তবে জবাব না দিয়ে তিনি এর কার্যকারিতা স্থগিতের আবেদন করে ২৯শে মার্চ উচ্চ আদালতে যান। সাময়িকভাবে নোটিশের কার্যকারিতা স্থগিত হলেও কয়েক দিনের মাথায় বাংলাদেশ ব্যাংকের সিদ্ধান্তকে সঠিক বলে রায় দেন আদালত। এরপর নোটিশের জবাব দেন তিনি। তবে ওই জবাব বাংলাদেশ ব্যাংকের কাছে সন্তোষজনক না হওয়ায় বিষয়টি পাঠানো হয় স্থায়ী কমিটির কাছে।
বাংলাদেশ ব্যাংকের সর্বশেষ আদেশে বলা হয়েছে, আদেশ দ্বারা সংক্ষুব্ধ হলে ব্যাংক কোম্পানি আইন অনুযায়ী বাংলাদেশ ব্যাংকের পরিচালক পর্ষদের কাছে আপিল করতে পারবেন দেওয়ান মুজিবুর রহমান।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

নিম্ন আদালতের বিচারকদের চাকরির শৃঙ্খলাবিধির গেজেট প্রকাশ

রাজধানীতে গলাকাটা লাশ উদ্ধার

অতিরিক্ত সচিব হলেন ১২৮ জন

ভুয়া ডাক্তারকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ

মাহমুদুর রহমানের বিরুদ্ধে ৫০০ কোটি টাকার মানহানি মামলা

হবিগঞ্জে ৫ জেএমবি সদস্য গ্রেপ্তার

ইসরাইল একটি সন্ত্রাসী রাষ্ট্র- এরদোগান

বুধবার সারাদেশে বিএনপির প্রতিবাদ কর্মসূচি

বিদ্যুৎ গ্রিডের ট্রান্সফরমারে আগুন, তিন ঘণ্টার চেষ্টায় নিয়ন্ত্রণে

জেরুজালেম ইসরাইলেরই রাজধানী- নেতানিয়াহু

নির্বাচনে নিষিদ্ধ ভেনিজুয়েলার বিরোধী দল

ভারী তুষারপাতে বিপর্যয়ের আশঙ্কা বৃটেনে

সুদের ৮ হাজার টাকার জন্য যুবককে পিটিয়ে হত্যা, মামলা দায়ের

রাজকীয় দুই পুরস্কার ফেরত দিলেন মাহাথির মোহাম্মদ

এবি ব্যাংক চেয়ারম্যানসহ ৪ জনকে দুদকে তলব

আড়াইহাজারের এমপির সঙ্গে মাওলানা হাবিবুরের বাগবিতণ্ডার ভিডিও ভাইরাল