মধ্যপ্রদেশ বিধানসভায় বিল পাস

শিশু ধর্ষণের শাস্তি ফাঁসি

ভারত

কলকাতা প্রতিনিধি | ৫ ডিসেম্বর ২০১৭, মঙ্গলবার | সর্বশেষ আপডেট: ৪:৩১
ভারতের নানা প্রান্তে শিশু ধর্ষণের ঘটনা বেড়েই চলেছে। এমনকি তিন-চার বছরের শিশুও যৌন নিগ্রহের শিকার হচ্ছে। অথচ যৌন নির্যাতনকারির জন্য কঠিন সাজার ব্যবস্থা করতে পারে নি কোনও সরকার। তবে মধ্যপ্রদেশ সরকার এক নজির তৈরি করেছে। সোমবারই মধ্যপ্রদেশ বিধানসভায় পাস হয়েছে ঐতিহাসিক একটি বিল। এতে বলা হয়েছে ১২ বছর বা তার থেকে কম বয়সী মেয়েদের ধর্ষণ করলে ফাঁসি দেয়া হবে অপরাধীকে। আগেই মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহানের মন্ত্রিসভায় অনুমোদন মিলেছিল বিলটির।  প্রসিডেন্টের অনুমোদন মিললেই বিলটিকে আইনে পরিণত করা হবে বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। শুধু ধর্ষণই নয়, মেয়েদের উত্যক্ত করা, ধাওয়া করা এমনকি বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে সহবাসের জন্যও কড়া সাজার বিধান রাখা হয়েছে বিলে। বিধানসভায় বিলটি পাস হওয়ার পর মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান বলেছেন, যারা ১২ বছর বা তার চেয়ে কম বয়সী মেয়েদের ধর্ষণ করে, তারা মানুষ নয় দৈত্য। তাদের বেঁচে থাকার কোনও অধিকার নেই।  একাধিকবার মেয়েদের উত্যক্ত করার অভিযোগে জামিন অযোগ্য ধারায় অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করা হবে বলেও জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। দিল্লির গণধর্ষণের পর এখনও পর্যন্ত কোনও কড়া আইন তৈরি হয় নি ভারতে। ঘটনায় দোষীদের ফাঁসির সাজা শোনানো হলেও সেটি এখনও পর্যন্ত কার্যকর করা হয় নি।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Nixon pandit

২০১৭-১২-০৫ ০৫:৩১:১৫

আমি কাজী ভাইয়ের মতামতের সমর্থক । ধন্যবাদ তাকে ।

kazi

২০১৭-১২-০৪ ২৩:০৪:১৯

মিঃ চৌহান ও তার রাজ্য বিধান সভা ভারতে নজির বিহীন ঐতিহাসিক আইন প্রণয়নের জন্য ভারতের ইতিহাসে স্বর্নাক্ষরে লিখিত হবে তাদের নাম। অন্যান্য রাজ্য সরকার গুলির পথ প্রদর্শক হিসাবে অনুসৃত হবে তাদের আইন । মুখ্য মন্ত্রী চৌহান ও বিধান সভার সদস্যদের ধন্যবাদ । যোগ্য নেতৃত্ব ও পথ প্রদর্শক শুদু ভারতে নয় সারা উপমহাদেশে তারা অনুকরণীয় হবেন।

আপনার মতামত দিন

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ত্রাণ বিতরণ এক সপ্তাহ স্থগিত

বাকেরগঞ্জে সাবেক এমপি মাসুদ রেজার ভাই গুলিবিদ্ধ

বিরাট-আনুশকার বিয়ে সম্পন্ন

কংগ্রেসের নতুন প্রেসিডেন্ট রাহুল গান্ধী

কলকাতায় ডিয়াগো ম্যারাডোনা, খেলবেন ফুটবল

আওয়ামী লীগকে হারানোর মতো দল নেই: জয়

কুমিল্লাকে হারিয়ে রংপুর ফাইনালে

স্বর্ণের দাম কমেছে

‘আওয়ামী লীগ নেতার নির্দেশে ছাত্রলীগ নেতাকে গুলি করি’

১৫টি পদের ১৪টিতেই আওয়ামীপন্থীদের জয়

ফি বৃদ্ধির প্রতিবাদে আন্দোলনে প্রগতিশীল ছাত্র সংগঠন

নিম্ন আদালতের বিচারকদের চাকরির শৃঙ্খলাবিধির গেজেট প্রকাশ

রাজধানীতে গলাকাটা লাশ উদ্ধার

অতিরিক্ত সচিব হলেন ১২৮ জন

ভুয়া ডাক্তারকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ

এবি ব্যাংক চেয়ারম্যানসহ ৪ জনকে দুদকে তলব