আদালতে খালেদা জিয়া

‘আমি এ মিথ্যা অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করছি’

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার | ৫ ডিসেম্বর ২০১৭, মঙ্গলবার, ১০:২১ | সর্বশেষ আপডেট: ৮:০৫
বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া বলেছেন, চাকরিতে পদন্নোতি ও ব্যক্তিগতভাবে লাভবান হওয়ার অসৎ উদ্দেশ্যে তদন্ত কর্মকর্তা আমার প্রতিদ্বন্দ্বী রাজনৈতিক মহলের ইচ্ছা ও নির্দেশে এসব করেছেন তা স্পষ্ট প্রতীয়মান। আমি এ মিথ্যা অভিযোগ প্রত্যাখান করছি ও ন্যায়বিচার প্রার্থনা করছি। । আজ মঙ্গলবার রাজধানীর বকশীবাজারে স্থাপিত ৫নং বিশেষ জজ আদালতে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় আত্মপক্ষ সমর্থনে বক্তব্য প্রদানকালে তিনি এ কথা বলেন।
খালেদা জিয়া বলেন, তদন্ত কর্মকর্তা অসৎ উদ্দেশ্য ও অন্যের অঙ্গুলী হেলনে আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা সাক্ষ্য দিয়েছেন। তিনি আরো বলেন, আমাদের রাজনৈতিক প্রতিদ্বন্দ্বী পক্ষ বিশেষ করে বর্তমান সরকারের প্রধানমন্ত্রী ও তার মন্ত্রী পরিষদের কতিপয় সদস্য প্রায়শই আমাকে জড়িয়ে জনসম্মূখে মিথ্যা বক্তব্য প্রচার করে
বিএনপি চেয়ারপারসন বলেন, আমি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্টের অনুকূলে কখনো কোনো অর্থ নিইনি। সাক্ষী হারুণ অর রশীদ একজন অনুসন্ধানকারী ও তদন্তকারী কর্মকর্তা হিসেবে কোনো দালিলিক প্রমাণ ছাড়া আমার ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করার উদ্দেশ্যে এইরূপ মনগড়া সাক্ষ্য দিয়েছেন।
খালেদা জিয়া বলেন, আমি এই ট্রাস্টের তহবিল সংগ্রহ, বন্টন এবং কোনো রকম ব্যাংকিং লেনদেনের সঙ্গে কোনোভাবে জড়িত ছিলাম না। কাজেই এর মাধ্যমে নিজের লাভবান হওয়ার বা অন্য কাউকে লাভবান করার কোনো প্রশ্নই উঠতে পারে না। বিএনপি সরকার একজন বিচারপতির নেতৃত্বে স্বাধীন দুর্নীতি দমন কমিশন প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে দুর্নীতি দমন কমিশন আইন প্রণয়ন করে।
সাবেক এ প্রধানমন্ত্রীন আরো বলেন, আমি আরো উল্লেখ করতে চাই যে, এই সাক্ষী হারুণ অর রশীদকে কমিশনের সেটআপে অন্তর্ভূক্ত না করায় পরবর্তীতে আমার বিরুদ্ধে মামলা করা এবং সাক্ষী দেয়ার জন্য তাকে আবার কমিশনে ফিরিয়ে আনা হয়েছে।
এর আগে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট ও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় জামিন পেয়েছেন বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। সকাল ১১টা ১০মিনিটে ড. আখতারুজ্জামানের আদালতে হাজির হয়ে আত্মসমর্পণ করেন তিনি। এ সময় তার পক্ষে জামিন আবেদন করা হয়।
এ বিষয়ে শুনানি শেষে বিচারক ড. আখতারুজ্জামান খালেদা জিয়ার জামিন মঞ্জুর করেন। আদালতে খালেদা জিয়ার পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার জমিরউদ্দিন সরকার এবং দুদকের পক্ষে ছিলেন মোশাররফ হোসেন কাজল। এসময় জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় আগামী ১৯, ২০ ও ২১শে ডিসেম্বর যুক্তিতর্কের জন্য দিন ধার্য করেন আদালত।
উল্লেখ্য, আত্মপক্ষ সমর্থন করতে সময়মতো আদালতে হাজির না হওয়ায় গত ৩০শে নভেম্বর বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন রাজধানীর বকশিবাজারে আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে স্থাপিত ঢাকার ৫ নম্বর বিশেষ জজ ড. আখতারুজ্জামানের আদালত।
[কাফি/সুমন/উৎপল/এমকে]

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

নিম্ন আদালতের বিচারকদের চাকরির শৃঙ্খলাবিধির গেজেট প্রকাশ

রাজধানীতে গলাকাটা লাশ উদ্ধার

অতিরিক্ত সচিব হলেন ১২৮ জন

ভুয়া ডাক্তারকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ

মাহমুদুর রহমানের বিরুদ্ধে ৫০০ কোটি টাকার মানহানি মামলা

হবিগঞ্জে ৫ জেএমবি সদস্য গ্রেপ্তার

ইসরাইল একটি সন্ত্রাসী রাষ্ট্র- এরদোগান

বুধবার সারাদেশে বিএনপির প্রতিবাদ কর্মসূচি

বিদ্যুৎ গ্রিডের ট্রান্সফরমারে আগুন, তিন ঘণ্টার চেষ্টায় নিয়ন্ত্রণে

জেরুজালেম ইসরাইলেরই রাজধানী- নেতানিয়াহু

নির্বাচনে নিষিদ্ধ ভেনিজুয়েলার বিরোধী দল

ভারী তুষারপাতে বিপর্যয়ের আশঙ্কা বৃটেনে

সুদের ৮ হাজার টাকার জন্য যুবককে পিটিয়ে হত্যা, মামলা দায়ের

রাজকীয় দুই পুরস্কার ফেরত দিলেন মাহাথির মোহাম্মদ

এবি ব্যাংক চেয়ারম্যানসহ ৪ জনকে দুদকে তলব

আড়াইহাজারের এমপির সঙ্গে মাওলানা হাবিবুরের বাগবিতণ্ডার ভিডিও ভাইরাল