অনন্যা সাহিত্য পুরস্কার পেলেন বেগম মুশতারী শফী

এক্সক্লুসিভ

স্টাফ রিপোর্টার | ৫ ডিসেম্বর ২০১৭, মঙ্গলবার | সর্বশেষ আপডেট: ১০:৫৪
মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক প্রবন্ধ, স্মৃতিকথা, সৃজনশীল সাহিত্য ও সাহিত্যসংগঠক হিসেবে বাংলাদেশের সাহিত্যে বিশেষ অবদান রাখার জন্য ‘অনন্যা সাহিত্য পুরস্কার’ পেলেন বিশিষ্ট  লেখক ও মুক্তিযোদ্ধা বেগম মুশতারী শফী। শনিবার সন্ধ্যায় চট্টগ্রাম মহানগরীর থিয়েটার ইন্সটিটিউট মিলনায়তনে পাক্ষিক ম্যাগাজিন অনন্যা’র পক্ষ থেকে এ সম্মাননা দেয়া হয়। পুরস্কৃত লেখক বেগম মুশতারী শফী তার অনুভূতি ব্যক্ত করতে গিয়ে জানান, আমি সম্মানিত বোধ করছি। আমি খুব সাধারণ মানুষ। যখন যেটা সত্য ও ন্যায় বলে মনে হয়েছে করেছি। অনুষ্ঠানের মুখ্য বক্তা লেখিকা অধ্যাপিকা ফেরদৌস আরা আলীম বলেন, মুশতারী শফী সৃজনশীল ও মননশীল দুই ধারাতেই কাজ করেছেন। তবে তিনি অনন্য এই কারণে যে তিনি কাজটা করেছেন যুদ্ধজীবন থেকে। বিশেষ অতিথির বক্তব্যে নারীনেত্রী মালেকা বেগম বলেন, বেগম মুশতারী শফী ও তার পরিবার বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামে ব্যাপক অবদান রেখেছে। তিনি ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটিতে থেকে যুদ্ধাপরাধীদের বিচারে কাজ করেছেন। প্রধান অতিথি আবুল মোমেন বলেন, বেগম মুশতারী শফী চলমান সব রকমের নেতিবাচক পরিস্থিতি পরিবর্তনের জন্য সবসময় দৃঢ়চেতা ছিলেন। তিনি ষাটের দশকে মধ্যবিত্ত ও নিম্নবিত্ত নারীদের প্রকাশ ও বিকাশের জন্য ‘বান্ধবী সংঘ’ প্রতিষ্ঠা করেন। একাত্তরের তিক্ত অভিজ্ঞতা থেকে তিনি শক্তি সঞ্চয় করে নতুন উদ্যমে সব ধরনের মানবিক কাজে ও সর্বসাধারণের অধিকার আদায়ে মাঠে নেমেছেন। সভাপতির বক্তব্যে অনন্যা সম্পাদক তাসমিমা হোসেন বলেন, অনন্যা আজ এমন একজন মহীয়সী নারীকে সাহিত্য পুরস্কারে ভূষিত করতে চলেছে যিনি কেবল লেখক নন, মুক্তিযোদ্ধা। বাংলাদেশের স্বাধীনতা আন্দোলন থেকে শুরু করে সব ধরনের নাগরিক আন্দোলনের সঙ্গে যিনি নিজেকে সম্পৃক্ত করে রেখেছেন। তিনি উল্লেখ করেন, সবকিছু এখন রাজধানীকেন্দ্রিক। রাজধানীর বাইরে যারা প্রতিনিধিত্বশীল কাজ করে চলেছেন তাঁদের দিকে দৃষ্টি সবসময় সঠিক সময়ে পড়ে না। অনন্যা সবসময় কেন্দ্রের বাইরে দৃষ্টি রাখতে চেয়েছে। এই বৃহত্তর চট্টগ্রাম থেকে অনন্যা শীর্ষ দশ সম্মাননায় ভূষিত হয়েছেন দশজন কৃতী নারী। মুশতারী শফীর প্রতি এবং যারা কেন্দ্রের বাইরে কাজ করছেন তাদের প্রতি সম্মান দেখিয়েই অনন্যা এবার চট্টগ্রাম শহরে অনন্যা সাহিত্য পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানের আয়োজন করছে। অনুষ্ঠানের শুরুতে দলীয় সংগীত পরিবেশন করেন উদীচী শিল্পী গোষ্ঠী এবং আবৃত্তি পরিবেশন করেন প্রমা আবৃত্তি সংগঠনের শিল্পীরা। অনুষ্ঠানের অতিথিরা শহীদজায়া বেগম মুশতারী শফীকে উত্তরীয় পরিয়ে দেন এবং ক্রেস্ট দিয়ে সম্মাননা জানানো হয়। এ ছাড়া এক লাখ টাকার চেক ও উপহার সামগ্রীও প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন অনুবাদক-লেখক খোরশেদ আলম।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

ম্যানহাটন হামলায় আটক ব্যক্তি বাংলাদেশি?

২৯ রোহিঙ্গা নারীর মুখে ধর্ষণযজ্ঞের বর্ণনা

বাংলাদেশের দুই নেত্রীর লড়াইয়ের ইতি

বাড়ির পাশে ম্যারাডোনা

আওয়ামী লীগকে হারানোর মতো কোনো দলই নেই

৩ দিনের সফরে ফ্রান্স গেলেন প্রধানমন্ত্রী

৫০ শতাংশের বেশি মানুষ মানসম্পন্ন সেবা পায় না

বিএনপি’র পিন্টু না টুকু নতুন প্রার্থীর খোঁজে আওয়ামী লীগ

তন্নতন্ন করে খুঁজেও বিদেশে সম্পদের অস্তিত্ব মেলেনি

ঢাকা-রংপুর ফাইনাল আজ

জনগণের মুখোমুখি রসিক মেয়র প্রার্থীরা

‘যাদেরকে টিফিন খাওয়ালো তারাই হত্যা করলো’

ওয়াসা আর ফ্লাইওভারে লণ্ডভণ্ড চট্টগ্রামের সব সড়ক

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ত্রাণ বিতরণ এক সপ্তাহ স্থগিত

বাকেরগঞ্জে সাবেক এমপি মাসুদ রেজার ভাই গুলিবিদ্ধ

কংগ্রেসের নতুন প্রেসিডেন্ট রাহুল গান্ধী