বারাক ওবামাকে হত্যার পরিকল্পনাকারী গ্রেপ্তার

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ২৫ নভেম্বর ২০১৭, শনিবার
 যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামাকে হত্যার পরিকল্পনা করেছিলেন ট্যাক্সাস অঙ্গরাজ্যের এক নারী। ওই নারীর নাম জুলিয়া পফ(৪৬)। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছে, ওবামা প্রেসিডেন্ট থাকাকালীন সময়ে তার বাড়িতে এক হোমমেড(বাড়িতে তৈরি)  বিস্ফোরক প্যাকেজ পাঠিয়েছিলেন। ধারণা করা হচ্ছে, প্রেসিডেন্টকে আঘাত হানার উদ্দেশ্যে ও সম্ভাব হলে হত্যার উদ্দেশ্যে ওই প্যাকেজ পাঠিয়েছিলেন জুলিয়া পফ। তবে প্যাকেজটি বিস্ফোরিত হওয়ার সুযোগ পায়নি, তার আগেই সিক্রেট সার্ভিসের সদস্যদের হাতে পড়ে যায়। উপরন্তু প্যাকেজটির গায়ে লেগে থাকা ছোট ছোট বিড়ালের লোম ব্যবহার করে খুঁজে বের করা হয়েছে এই হত্যা পরিকল্পনার ‘মাস্টারমাইন্ডকে’।
প্যাকেজের গায়ে লেগে থাকা লোম ও পফের বিড়ালের লোমের সঙ্গে মিলে গেলে তাকে মাস্টারমাইন্ড হিসেবে চিহিত করা হয়। এ খবর দিয়েছে দ্য গার্ডিয়ান।
খবরে বলা হয়, শুধু ওবামা নয়, আরও দুইজনের বাড়িতে এমন প্যাকেজ পাঠিয়েছেন তিনি। তার মধ্যে একজন হচ্ছেন, ট্যাক্সাসের তৎকালীন গভর্নর, গ্রেগ এবট। তবে এবটের ভাগ্য ভালো, তিনি প্যাকেজটি খুলে দেখেননি। অপর একজন হচ্ছেন, সোশ্যাল সিকিউরিটি এডমিনিস্ট্রেশনের এক কমিশনার। ওই কমিশনারের বাড়িতে হত্যার উদ্দেশ্যে ক্ষতিকর আর্টিকেল ও পরিবহনযোগ্য বিস্ফোরক পাঠান তিনি। ২০১৬ সালের অক্টোবর মাসে এই ঘটনা ঘটে। এই সপ্তাহে হুস্টন আদালতে জুলিয়ার বিরুদ্ধে আইনী নথিপত্র জমা দেয়া হয়। নথিপত্র অনুসারে, এবট প্যাকেজটি না খোলায় বেঁচে গেছেন। নয়তো বিস্ফোরণ ঘটে শিকার হতে পারতেন গুরুতর জখমের। এমনকি তার মৃত্যুও ঘটতে পারতো।  সব মিলিয়ে তিন ব্যক্তিকে হত্যার পরিকল্পনার দায়ে আদালত তাকে, ৬টি অভিযোগে অভিযুক্ত করেছে। পাশাপাশি তার বিরুদ্ধে ৫ হাজার ডলারের খাবার টিকেট জালিয়াতি ও ভুয়া দেউলিয়া হওয়ার ঘোষণা দেয়ার অভিযোগও আনা হয়েছে। আদালতের নথিপত্র অনুযায়ী, এফবিআই তদন্তকারীরা বিভিন্ন উপাদান ব্যবহার করে প্যাকেজগুলোর খোঁজ পেয়েছেন ও পফের কাছে পৌঁছেছেন। এসবের মধ্যে ই-বে’র মাধ্যমে কেনা একটি পালমাল সিগারেটের বক্সও অন্তর্ভুক্ত। তদন্তকারীরা জানিয়েছে, ওবামাকে পছন্দ করতেন না পফ। আর গ্রেগ এবটের ওপর তার ক্ষোভ ছিল এই কারণে যে, তিনি তার সাবেক স্বামীর কাছ থেকে কোন প্রকার সাহায্য পান নি।     

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন