শাড়িতেই নারীর সাজ

রকমারি

স্টাফ রিপোর্টার | ১২ অক্টোবর ২০১৭, বৃহস্পতিবার | সর্বশেষ আপডেট: ২:৫৮
মডেল : বিদ্যা সিনহা মিম
শাড়ি। বাঙালি নারীর সাজগোজের অন্যতম আকর্ষণ। পরিপক্কতার সঙ্গে সঙ্গেই আমাদের দেশের মেয়েরা শাড়ির সঙ্গে সখ্য গড়ে তোলে। সাজতে চাই! সবার আগে শাড়িকেই পছন্দের তালিকায় রাখবেন। নিজেকে কোন ধরণের কিংবা কোন রঙের শাড়িতে সাজিয়ে তুলবেন এ নিয়ে ভাবনায় পড়েন অনেক নারী।
হালকা, আরামদায়ক এবং সব বয়সের জন্য মানানসই জর্জেট শাড়ি পরার মজাটাই আলাদা।
এগুলো এখনকার আবহাওয়ার সঙ্গে মানিয়েও যায় বেশ। কড়া রোদেও যেমন গরম লাগে না তেমন আবার বৃষ্টির পানি লাগলেও শুকিয়ে যায় বেশ তাড়াতাড়ি। জর্জেট, শিফন জর্জেটের শাড়িগুলোতে রয়েছে বৈচিত্র্যের ছোঁয়া।
ফুলেল নকশা, কলকা, লতাপাতা, জ্যামিতিক নকশা, একরঙার সঙ্গে চিকন লেস এখন বেশি দেখা যাচ্ছে। কর্মক্ষেত্রে পরার জন্য পোলকা ডট, জ্যামিতিক নকশা, বিমূর্ত নকশা বেছে নিতে পারেন। আবার একরঙা জর্জেট শাড়িতে কাপড় লাগিয়ে বৈচিত্র্য আনতে পারেন। প্রিন্ট এবং একরঙা পাড়ের জর্জেট শাড়িগুলোই এখন সময়ের সঙ্গে মানানসই।
সিল্কে রয়েছে নানা রকমফের। কোটা সিল্ক, জুট সিল্ক, চন্দ্রমুখী সিল্ক, পার্বতী সিল্ক, সিল্ক শিফন, কাশ্মীর সিল্ক, সুপরা সিল্ক, বলাকা সিল্ক- সবই সিল্ক। হ্যান্ডপেইন্ট, কাটওয়ার্ক, কাঁথাস্টিক, ব্লক, মিরর, কারচুপি, বাটিক, ভেজিটেবল ডাই সবই খুঁজে পাওয়া যায় এই সিল্ক শাড়িতে। আর তাই নানা ধরনের সিল্ক যেমন বেছে নেয়া যায় অফিসে পরার জন্য তেমনি অনায়াসে পরা যায় কোনো পার্টিতেও।

রয়েছে হালকা রঙ নকশার কিংবা গর্জিয়াস কাজেরও। হ্যান্ডপেইন্ট, স্প্রে, অ্যাম্ব্রয়ডারি, কাঁথাস্টিকসহ নানা ডিজাইনের সিল্ক, হাফসিল্কগুলো এখন নজর কাড়ছে সবার। এসব শাড়িতে বৈচিত্র্য আনতে এখন পাড়ে ব্যবহার করতে দেখা যায় কাতান, নেটের কাপড়, হাতের কাজসহ নানা রকম সুকুইন।

তাঁত, টাঙ্গাইল, কোটাসহ নানা রকম সুতি শাড়ি যেমন জনপ্রিয় তরুণীদের কাছে তেমনি মধ্যবয়সীদের কাছেও। পরতে আরামদায়ক হওয়ায় এই শাড়ির প্রতি রয়েছে একটু বাড়তি মনোযোগ। বর্তমানে বৈচিত্র্যময় বুননের সুতি শাড়িতে যোগ হয়েছে নানা কারুকাজ ও নকশা। মণিপুরী তাঁত, সিল্ক তাঁত, কোটা শাড়িতে এখন কারচুপি, চুমকি, অ্যাপ্লিক ব্যবহার করায় এগুলো এখন মেয়েদের কাছে বেশ আকর্ষণীয় ও গর্জিয়াস হয়ে উঠেছে। তাই অনায়াসে পরতে পারেন যে কোনো পার্টিতে।
[এমকে]

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

ছাত্রদের সঙ্গে একই হলে থাকার দাবিতে আন্দোলনে ছাত্রীরা

সুপ্রিম কোর্টের কর্মকর্তাদের নতুন কর্মস্থলে যোগদানের নির্দেশ

বঙ্গবন্ধুর ব্যক্তিগত সচিব অনু আর নেই

আইন ও জবাবদিহিতার উর্ধ্বে নই আমরা: মেয়র নাছির

ডাকাতি হওয়া ১১৮ বস্তা চাল মুন্সীগঞ্জে উদ্ধার

‘ক’ ইউনিটে ২৩.৩৭ ও ‘চ’ ইউনিটে ২.৭৫ শতাংশ উত্তীর্ণ

আফগানিস্তানে সিরিজ হামলায় নিহত ৭৪

কায়রো মেয়েদের জন্য সবচেয়ে ‘বিপজ্জনক শহর’

মুসলমানের মতো দেখা যায় তাই...

‘চীন ও রাশিয়ার অবস্থান আগের চেয়ে পরিবর্তন হয়েছে’

ভোলায় যাত্রীবাহি বাস খাদে, নিহত ১

মিয়ানমার সেনাবাহিনীর মানবতাবিরোধী অপরাধ সহ্য করা হবে না

চট্টগ্রামে মহাসড়কের পাশে নারীর লাশ

চট্টগ্রামে হোটেলে জুয়ার আসর, ব্যবস্থাপকসহ আটক ৬২

‘আওয়ামী লীগ ইসিকে স্বাধীনতা প্রদান করেছে’

বাংলাদেশেও সেখানকার মতো বিচার ব্যবস্থা দেখতে চান