রয়টার্সের প্রতিবেদন

উদ্ধারকারী নাকি সুযোগসন্ধানী

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৭, শনিবার
নির্যাতন থেকে বাঁচতে মিয়ানমারের রাখাইন প্রদেশ ত্যাগ করে লাখ লাখ রোহিঙ্গা বাংলাদেশে পালিয়ে আসছে। কেউ আসছে পায়ে হেঁটে, কেউ ছোট মাছ ধরার কাঠের নৌকায় চড়ে। বাংলাদেশী জেলেরা রোহিঙ্গাদের পালাতে সহায়তা করছে তাদের নৌকা দিয়ে। ছোট ছোট নৌকা ভর্তি করে রোহিঙ্গারা নাফ নদ পার করে আসছেন বাংলাদেশ সীমান্তে। অনেক রোহিঙ্গার কাছে এই জেলেরা তাদের জীবন রক্ষাকারী দূত। আবার অনেকের কাছে সুযোগসন্ধানী মুনাফাবাজ।
বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, এক রোহিঙ্গা শরণার্থী বার্তা সংস্থাটিকে জানিয়েছে যে, মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশে আসতে তারা প্রতিজন পূর্ণবয়স্ক মানুষের জন্যে এক জেলেকে ১০ হাজার টাকা করে পরিশোধ করেছেন। এ বিষয়ে জেলেরা বলেন, নিপীড়ন থেকে বাঁচতে মরিয়া মুসলিম ভাইদের সাহায্য করার একটি নৈতিক দায়িত্ববোধ তাদের রয়েছে। তবে বাংলাদেশের সরকারি কর্মকর্তারা তাদের বিরুদ্ধে অর্থের লোভে এমন সাহায্য করার অভিযোগ তোলেন। তারা জেলেদের এই কর্মকা-কে মানবপাচার হিসেবে দেখছেন ও কয়েকজনকে গ্রেপ্তারও করেছেন। পাশাপাশি পুড়িয়ে দিয়েছেন কয়েকজনের নৌকাও।
শ্যামলাপুর গ্রামের জেলে মোহাম্মদ আলম (২৫)। তিনি বলেন, ‘অবশ্যই আমরা বারবার সেখানে(মিয়ানমারে) ফিরে গিয়ে আরও মানুষকে উদ্ধার করতে চাই। আমাদের মুসলিম ভাই-বোনেরা একটি খারাপ পরিস্থিতির মধ্যে বাস করছে। তাই আমাকে যেতে হবে। সেখানে গিয়ে তাদের নিয়ে আসতে হবে।’ সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে প্রায় ৪ লাখ রোহিঙ্গা শরণার্থী রাখাইন থেকে বাংলাদেশে এসে পৌঁছেছে। স্থলপথ, সমুদ্রপথে প্রতিদিন এসে পৌছাচ্ছে আরও অনেকে। রোহিঙ্গা বিদ্রোহীদের এক হামলার পাল্টা জবাবে রাখাইন প্রদেশে সামরিক অভিযান চালাচ্ছে সেদেশের সামরিক বাহিনী। জাতিসংঘের কর্মকর্তারা এই অভিযানকে জাতিগত নিধনযজ্ঞ বলে আখ্যা দিয়েছেন। রোহিঙ্গাদের এই ঢল প্রভাব ফেলছে বাংলাদেশের দক্ষিণাঞ্চলে। আর এর সুযোগ নিচ্ছেন অনেক জেলে। বাংলাদেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনী বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) টেকনাফ অঞ্চলের কমান্ডার লে. কর্নেল আরিফুল ইসলাম জেলেদের দিকে ইঙ্গিত করে বলেন, ‘উদ্ধারকারী বলবেন না। উদ্ধারকারীদের যাওয়া উচিৎ, মানুষদের সাহায্য করা উচিৎ, কিন্তু টাকার বিনিময়ে নয়।’ তিনি আরও বলেন, ‘এই মানুষগুলো(রোহিঙ্গারা) খুবই গরীব। এটা হচ্ছে তাদের যা আছে সেসব জোরপূর্বক আদায় করে নেয়া। যারা এখানে এসে পৌঁছাচ্ছে আমরা তাদেরকে সাহায্য করছি। কিন্তু আমরা সর্বাত্মক চেষ্টা করছি যাতে করে কোন মানব পাচারের ঘটনা না ঘটে। 

‘অর্থ নিয়ে সাহায্য করাও একটি মানবিক কাজ’
রয়টার্স, সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে অন্তত দুইবার মিয়ানমার ঘুরে এসেছেন এমন তিনজন রোহিঙ্গা জেলে ও দুইজন বাংলাদেশী জেলের সাক্ষাৎকার নিয়েছে। সাক্ষাৎকারে জেলেদের ভাষ্য, তারা এই কাজ থেকে অর্থ লাভ করলেও , তাদের কাছে এটা উদ্ধার কাজই। এক বাংলাদেশী জেলে শাইফ উল্লাহ(৩৪) একটি নৌকার আংশিক মালিক। তিনি বলেন, তিনি মালয়েশিয়া থেকে এক রোহিঙ্গা পরিবারকে উদ্ধার করে ১ লাখ টাকা আয় করেন। বাংলাদেশে আসার পর তাকে বিকাশের মাধ্যমে টাকা পরিশোধ করেছে ওই রোহিঙ্গা পরিবার। তিনি বলেন, ‘মালয়েশিয়া ও সৌদি আরব থেকে মানুষজন আমাকে ফোন করে সেখানে যেতে বলে। তাদের পরিবারকে নিয়ে আসতে বলে। তারা আমার সাহায্যের জন্যে কাঁদে পর্যন্ত। হ্যাঁ, আমি তাদের কাছ থেকে টাকা নেই। কিন্তু এটিও একটি মানবিক কাজ।’ দুই রোহিঙ্গা শরণার্থী রয়টার্সকে বলেছে, টাকা পরিশোধ করতে না পারায় বাংলাদেশে আসার পর তাদের পরিবারের সদস্যদের আটকে রেখেছিলো দালালরা। আরও কয়েকজন অভিযোগ করেছেন, তারা টাকা না দিতে পারায় নৌকার চালকদেরকে তাদের স্বর্ণ, গহনা দিয়ে দিতে হয়েছে।  
রাখাইনের মংডু গ্রামের বাসিন্দা ছিলেন আলি জোহর(৭৫)। বর্তমানে তিনি বাংলাদেশের শ্যামলাপুরে অবস্থান করছেন। তিনি বলেন, ‘নৌকা চালকের সঙ্গে মধ্যস্ততা করার কোন সুযোগই ছিলোনা আমাদের কাছে’। শিশুসহ তার যৌথ পরিবারের ৩০ সদস্যকে উদ্ধার করার ফি হিসেবে স্ত্রীর স্বর্ণের নেকলেস, আংটি সহ আরও অতিরিক্ত ৭ হাজার টাকা দিয়ে দিতে হয়েছে। তিনি বলেন, ‘আমাদের এখানে নিয়ে আসার জন্যে ওই জেলেদের কাছে আমরা কৃতজ্ঞ। আরও অনেকে এখানে আসার চেষ্টা করছিলো। তারা যদি আমাদের না নিয়ে আসতো তাহলে আমরা সেখানেই আটকে থাকতাম।’   

জ্বলন্ত নৌকা
প্রণয় চাকমার(৩১) মতে, এই সংকট মোকাবেলায় বাংলাদেশের হয়ে তিনি যে একটি গুরূত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছেন, এটা আসলে নিয়তির খেলা। মিয়ানমারের সহিংসতা শুরু হওয়ার ২ দিন আগে ২৩শে আগস্ট, জমি বিষয়ক উপজেলা সহকারী কমিশনার হিসেবে নতুন চাকরি শুরু করার জন্য টেকনাফে পৌঁছান তিনি। তিনি বলেন, ‘বিষয়টা হচ্ছে গিয়ে- হ্যা, জেলেরা সেখানে যেতে পারে। কোন সমস্যা না। কিন্তু তারা যদি দুর্দশায় ভুগতে থাকা বিপন্ন মানুষগুলোর থেকে টাকা দাবি করে, এটা কি মানবিক? না।’ চাকমা উপজাতির বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বী প্রণয় চাকমা দক্ষিণ এশিয়ার বিভিন্ন জায়গায় বাস করেছেন। তিনি একজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট। সাধারণ ফৌজদারি মামলায় তিনি মানুষকে জেলে পাঠাতে পারেন। এমনকি সাক্ষাৎকার দেয়ার মাঝখানে বিরতি নিয়ে, ৫টি মেথাএমফেটামিন ট্যাবলেট রাখার অভিযোগে এক ব্যক্তিকে তিন মাসের কারাদ- দেন তিনি। মি. প্রণয় ও অন্য এক স্থানীয় কর্মকর্তা মিলে, রোহিঙ্গা শরণার্থীদেরকে নিরাপদে পৌঁছে দেয়ার জন অর্থ গ্রহণ করায় কমপক্ষে ১০০ জনকে ছয় মাস পর্যন্ত সাজা দিয়েছেন। মি. প্রণয় বলেন, ‘আমরা প্রত্যেকবার তাদের সতর্ক করছি। হ্যা, তোমরা তা করতে পারো, কিন্তু টাকার বিনিময়ে নয়।’ তিনি সাতার না পারা নারী ও শিশুদের মৃত্যুর ঘটনার দিকে ইঙ্গিত করেন, যারা সাতার না জানার কারণে বাংলাদেশী উপকূলে নৌকাডুবির ঘটনায় মারা গেছে। জেলে ও স্থানীয় অধিবাসীরা বলেছে, কর্তৃপক্ষ তাদের গ্রামে মাইকিং করে রোহিঙ্গাদের নৌকায় করে তুলে না আনতে নির্দেশ দিয়েছে। টাকার বিনিময়ে শরণার্থী আনা হয়েছে এমন পাঁচটি নৌকা সৈকতে পুড়িয়ে দিয়েছে সরকারি কর্মকর্তারা। নৌকার মাঝিরা জানিয়েছেন, তারা প্রতিকূল আবহাওয়ায় নৌকা চালনার ব্যাপারে সতর্ক ছিলেন। এ সময় তারা টাকা আদায়ের জন্য রোহিঙ্গাদার জোর করা বা আটক করার অভিযোগ অস্বীকার করেন। শরণার্থী, জেলে ও মানবাধিকার সংস্থাগুলোর হিসাব অনুযায়ী, এখনো দশ হাজার মানুষ নাফ নদী পাড়ি দেয়ার অপেক্ষায় রয়েছে। বাংলাদেশী নৌকার মালিক মনি উল্লাহ(৩৮) বলেন, ‘আমি ফিরে গিয়ে ওইসব লোকদেরকে নিয়ে আসতে চাই। কেননা মুসলমানরা নির্যাতিত হচ্ছে। সেখানে না গিয়ে এখানে বসে থাকা আমার জন্যে কঠিন। আমি অনেক মানুষকে সৈকতে কাঁদতে দেখেছি।’

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

ওআইসি’র ঘোষণা নেতানিয়াহু’র প্রত্যাখ্যান

প্রধানমন্ত্রী দেশে ফিরেছেন

ট্রাম্পের কড়া সমালোচনা

গাজীপুরে মসজিদের ভেতর নৈশ প্রহরীকে গলা কেটে হত্যা

‘প্রেম’ করে বিয়ে, চাকরি হারালেন শিক্ষক দম্পতি

চবি শিক্ষকের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির সত্যতা মিলেছে

প্রশ্ন ফাঁস হতো প্রেস থেকে

আবাসিক এলাকায় রাতে হর্ন বাজানোয় নিষেধাজ্ঞা

‘বিএনপি প্রার্থীর নির্বাচনে বাধা নেই’

কুয়ালালামপুরে গ্রেপ্তার ২ ইমিগ্রেশন কর্মকর্তা

জামিনে আপন জুয়েলার্সের তিন মালিক

নারী সহশিল্পীর সঙ্গে যৌন সম্পর্কে বাধ্য করা হয় আমাকে

বিবাহ বহির্ভূত যৌন সম্পর্ক নিষিদ্ধ করার আবেদন প্রত্যাখ্যাত ইন্দোনেশিয়ায়

প্রথম ১ মাসে ৬৭০০ রোহিঙ্গাকে হত্যা

জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদকে মিয়ানমার, বাংলাদেশ সফরের আহ্বান

৪ সাংবাদিকের ওপর হামলার ঘটনায় ভূমিমন্ত্রীপুত্র কারাগারে