‘এটা গৌরবময় এক অভিজ্ঞতা’

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক | ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭, বৃহস্পতিবার | সর্বশেষ আপডেট: ১১:২৬
অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজের জন্য বাংলাদেশ দলের স্পিন বোলিং কোচের দায়িত্ব পান সুনীল যোশি। দুই ম্যাচ সিরিজের প্রথম টেস্টে শক্তিধর অজিদের হারিয়ে চমক দেখায় টাইগাররা। আর সিরিজ শেষে অন্য স্বীকৃতি পেলেন কোচ সুনীল যোশিও।  ভারতীয় সাবেক এ বাঁ-হাতি স্পিনারের সঙ্গে এক বছরের স্থায়ী চুক্তি করলো বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। ২০১৮’র সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের স্পিন কোচের দায়িত্ব সামলাবেন সুনীল যোশি। টেস্ট ইতিহাসে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে প্রথমবারের মতো জয় দেখলো বাংলাদেশ। ঢাকা টেস্টে অস্ট্রেলিয়ার পতন হওয়া ২০ উইকেটের ১৯টিই ভাগাভাগি করেন বাংলাদেশ দলের তিন স্পিনার সাকিব আল হাসান, মেহেদী হাসান মিরাজ ও তাইজুল ইসলাম।
ম্যাচের উভয় ইনিংসে পাঁচ উইকেটের কৃতিত্ব দেখান বাঁ-হাতি স্পিনার সাকিব আল হাসান। অফস্পিনার মিরাজ ৫ অপর বাঁ-হাতি স্পিনার তাইজুল ইসলাম নেন ম্যাচে চার উইকেট। অস্ট্রেলিয়ার অন্য উইকেটটি ছিল রানআউট। আর কোচ সুনীল যোশি বলেন, ‘এটা ছিল ব্যতিক্রমী এবং গৌরবময় এক অভিজ্ঞতা।’ পূর্ণাঙ্গ সিরিজ খেলতে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে যাচ্ছে বাংলাদেশ দল। প্রধান কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহে, পেস বোলিং কোচ কোর্টনি ওয়ালশের সঙ্গে সফরে বাংলাদেশ দলের সঙ্গে থাকছেন সুনীল যোশিও। সফরে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে দুটি টেস্ট, তিনটি ওয়ানডে ও দুটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলবে টাইগাররা। তার আগে সুনীল যোশি বলেন, বোলিংয়ের মৌলিক ও টেকনিক্যাল কিছু বিষয় নিয়ে কাজ করেছি আমি।
কিভাবে ক্রিজটাকে ব্যবহার করতে হয় এবং সঠিক ফিল্ডিং নিয়ে ভিন্ন ভিন্ন কোণে বল করার পরামর্শ দিয়েছি তাদের। ফিল্ড প্লেসমেন্ট স্পিনারদের জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ। আর আমি খুশি, সাকিব ও মেহেদী দ্রুতই আমার পরামর্শ বুঝতে পেরেছে। কোচ সুনীল যোশি বলেন, মেহেদীর সিম ও রিস্ট (ক্রিকেট বলে) পজিশন দারুণ। আমি এতো কম বয়সী (১৯ বছর) কোনো খেলোয়াড়কে বোলিংয়ে এমন ভালো ড্রিফট পেতে দেখিনি। সাকিব ক্রিজের ভিন্ন ভিন্ন কোণ ও লেন্থে বোলিংয়ে দক্ষ। তার ফিল্ডিং পজিশনটাও আঁটসাঁট। যেমনটি দেখা যেতো বেদী স্যারের (বিষেণ সিং বেদী) বোলিংয়ে। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজের প্রথম টেস্টে মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে ২০ রানে জয় কুড়ায় বাংলাদেশ। ঢাকার অপর এক ভেন্যুতে মধুর স্মৃতি রয়েছে সুনীল যোশিরও। ১৭ বছর আগে বাংলাদেশের অভিষেক টেস্টে ভারতের ব্যাট-বল হাতে ম্যাচজয়ী নৈপুণ্য দেখান সুনীল যোশি। ম্যাচে ভারতের বল হাতে ৮ উইকেট শিকার ও ব্যাটে ৯২ রানের দারুণ ইনিংস খেলেন তিনি। আর খেলা শেষে সুনীল যোশিরই হাতে ওঠে ম্যাচ সেরার পুরস্কার। সুনীল যোশি বলেন- হ্যাঁ, বাংলাদেশে আমার মধুর স্মৃতি রয়েছে। তবে এবারেরটি বিশেষ কিছু। এটা এলো ভিন্ন ভূমিকা নিয়ে। আর আমার ভালো লাগলো এ জন্য যে, বাংলাদেশের খেলোয়াড়রা তাদের পাঠটা দ্রুতই শিখে নিতে পারছে।
শিষ্য টাইগারদের শেখার আগ্রহ দেখেও খুশি গুরু সুনীল যোশি। কোচ যোশি বলেন, তারা খুবই সন্ধানী মনস্ক। দিনের খেলা শেষে তারা তিন সেশনে তাদের নৈপুণ্যের নানা দিক নিয়ে আলোচনা করতে আসবে আমার কাছে। আমি ভারতের প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে খুব কম খেলোয়াড়কেই এমন করতে দেখেছি।

 

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

আন্তর্জাতিক পর্যবেক্ষণের দাবি

এখনও আসছে রোহিঙ্গারা, সমঝোতা নিয়ে মিশ্র প্রতিক্রিয়া

৯০ টাকা ছাড়ালো পিয়াজের কেজি

বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধি মামুলি ব্যাপার

‘মড়ার উপর খাঁড়ার ঘা’

চিরঘুমে লোকসংগীতের মহীরুহ

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে বন্যার ক্ষতি পোষাতে দরকার ১০০ কোটি টাকা

জিম্বাবুয়ের নতুন প্রেসিডেন্টের শপথ

দুই দলেই হেভিওয়েট প্রার্থী

দরিদ্রদের জন্য বিচারের বাণী নীরবে কাঁদে

৭ই মার্চ ভাষণের স্বীকৃতিতে দেশব্যাপী শোভাযাত্রা আজ

সম্মতিপত্র প্রকাশের দাবি বিএনপির

ঘরে ঘুরে দাঁড়ালো চিটাগং

মিশরে মসজিদে জঙ্গি হামলা, নিহত কমপক্ষে ২৩০

‘শেষ মুহূর্তে হলে সরকার সমঝোতায় আসবে’

রবি-সোমবার সব সরকারি কলেজে কর্মবিরতি