কিশোরগঞ্জে মায়ের পা ভাঙার ঘটনায় মামলা

বাংলারজমিন

কিশোরগঞ্জ (নীলফামারী) প্রতিনিধি | ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭, বৃহস্পতিবার
‘কিশোরগঞ্জে রড দিয়ে মাকে পিটিয়ে পা ভেঙে দিয়েছে পাষণ্ড ছেলেরা’ শিরোনামে দৈনিক মানবজমিনের ১২ই সেপ্টেম্বর/২০১৭ইং তারিখে বিস্তারিত খবর প্রকাশের পর টনক নড়েছে প্রশাসনের। টাকার জন্য তিন ছেলে ও দুই পুত্রবধূ কর্তৃক বিধবা বৃদ্ধা মা হাছনা বেগম (৫৮) এর পা ভেঙে দেয়ার ঘটনায় অবশেষে গতকাল সকালে নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ থানায় মামলা রেকর্ড করা হয়েছে।
দৈনিক মানবজমিনে বিস্তারিত খবর প্রকাশের পর সেদিনই সমাজসেবা অধিদপ্তর ও একটি মানবাধিকার সংস্থা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে। তারা ঘটনার সত্যতা পেয়ে বিষয়টি কিশোরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এস এম মেহেদী হাসানকে অবগত করে। পরে নির্যাতনের শিকার ওই মা-এর লিখিত অভিযোগটি কিশোরগঞ্জ থানার ওসি বজলুর রশীদ গতকাল  রেকর্ড করে (মামলা নম্বর ৭)। মামলায় তিন ছেলে হাসানুর রহমান, শাহিন আলম, নাজমুল হোসেন, পুত্রবধূ পাখি বেগম ও মৌসুমি বেগমসহ ৫ জনকে আসামি করা হয়।
মামলার পর পরই একদল পুলিশ আসামিদের গ্রেপ্তারে উপজেলার রনচন্ডি ইউনিয়নের দক্ষিণ বড়ভিটা ডাঙ্গাপাড়া গ্রামে ব্যাপক অভিযান চালায়। কিন্তু আসামিরা পলাতক থাকায় বিকাল ৪টা পর্যন্ত কাউকেই ধরতে পারেনি বলে কিশোরগঞ্জ থানার ওসি বজলুর রশীদ নিশ্চিত করেন।
এদিকে নির্যাতনের শিকার ওই বৃদ্ধা এখন রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের অর্থপেডিকস বিভাগের ৩২ নম্বর ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন রয়েছে।
তার ভেঙে যাওয়া বাম পা-এ প্লাস্টার করা হয়েছে বলে জানায় ওই বৃদ্ধার ছোট ছেলে বদিউজ্জামান।
উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা মোছাঃ মমিমুন আক্তার বলেন ঘটনাটি দৈনিক মানবজমিনে প্রকাশের পর ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে তদন্ত করে সত্যতা পাওয়া যায়। তিনি এলাকাবাসীর অভিযোগের বরাত দিয়ে বলেন ইউপি চেয়ারম্যান মোখলেছুর রহমান ঘটনাটি সমাধানের নামে নির্যাতিত মা-এর বিরুদ্ধে অবস্থান নেয় এবং মামলা নথিভুক্ত করতে বাধা সৃষ্টি করে। তদন্তে ঘটনার সত্যতায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নির্দেশে নির্যাতনের শিকার ওই মায়ের লিখিত অভিযোগটি গতকাল থানায় নথিভুক্ত করা হয়েছে।
কিশোরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এস এম মেহেদী হাসান বলেন, ঘটনাটি বড়ই মর্মান্তিক। আমরা ওই বৃদ্ধা মা-এর খোঁজ খবর রাখছি। তাকে তার মামলায় সহায়তা প্রদান করা হবে।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

আন্তর্জাতিক পর্যবেক্ষণের দাবি

এখনও আসছে রোহিঙ্গারা, সমঝোতা নিয়ে মিশ্র প্রতিক্রিয়া

৯০ টাকা ছাড়ালো পিয়াজের কেজি

বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধি মামুলি ব্যাপার

‘মড়ার উপর খাঁড়ার ঘা’

চিরঘুমে লোকসংগীতের মহীরুহ

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে বন্যার ক্ষতি পোষাতে দরকার ১০০ কোটি টাকা

জিম্বাবুয়ের নতুন প্রেসিডেন্টের শপথ

দুই দলেই হেভিওয়েট প্রার্থী

দরিদ্রদের জন্য বিচারের বাণী নীরবে কাঁদে

৭ই মার্চ ভাষণের স্বীকৃতিতে দেশব্যাপী শোভাযাত্রা আজ

সম্মতিপত্র প্রকাশের দাবি বিএনপির

ঘরে ঘুরে দাঁড়ালো চিটাগং

মিশরে মসজিদে জঙ্গি হামলা, নিহত কমপক্ষে ২৩০

‘শেষ মুহূর্তে হলে সরকার সমঝোতায় আসবে’

রবি-সোমবার সব সরকারি কলেজে কর্মবিরতি