রোডম্যাপ বাস্তবায়নই হবে চ্যালেঞ্জ

প্রথম পাতা

স্টাফ রিপোর্টার | ১৮ জুলাই ২০১৭, মঙ্গলবার | সর্বশেষ আপডেট: ৩:৪০
একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠানের কর্মপরিকল্পনাকে (রোডম্যাপ) ইতিবাচক হিসেবে দেখছেন সাবেক নির্বাচন কমিশনার মোহাম্মদ ছহুল হোসাইন। এ বিষয়ে মানবজমিনকে তিনি বলেছেন, রোডম্যাপ প্রয়োজন ছিল এবং অত্যন্ত ভালো কাজ। পূর্ব পরিকল্পনা প্রকাশ করে দেয়া অর্থাৎ আগামীতে এই মাসে, এই সপ্তাহে, এই দিনে কী করব। সবকিছু নির্বাচনকে কেন্দ্র করে। ভালো কাজ করেছে তারা। আমাদের উচিত এটাকে স্বাগত জানানো।
আমরাও এটা করেছিলাম। এর আগেও হয়নি, পরেও হয়নি। বর্তমান কমিশন করলো।
রোডম্যাপে যেসব কাজের কথা বলা হয়েছে সেগুলো সংবিধানসম্মত বলে মনে করছেন মোহাম্মদ ছহুল হোসাইন। এ  প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ভোটার তালিকা হালনাগাদ, সীমানা পুনঃনির্ধারণ এগুলো করার জন্য সংবিধান বলে দিয়েছে। নতুন লোক ভোটার হওয়ার যোগ্য; আবার বহু লোক মারা গেছেন তাদেরকে বাদ দিতে হবে। ঠিক তেমনি সীমানা নির্ধারণের কাজও আইন বলে দিয়েছে, সংবিধান বলে দিয়েছে। এখানে কতগুলো নীতি আছে। সব জায়গায় জনসংখ্যার প্রতিনিধিত্ব যেন সমান হয় এই কারণে সীমানা পুনঃনির্ধারণ করতে হবে। প্রশ্নটা হলো, নির্বাচন কমিশন কত নিরপেক্ষভাবে, আন্তরিকভাবে, নিষ্ঠার সঙ্গে এই কাজগুলো বাস্তবায়ন করে এটা দেখার বিষয়। তাই তাদের দেয়া রোডম্যাপ বাস্তবায়নই এখন তাদের সামনে বড় চ্যালেঞ্জ।
গত রোববার ‘একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠানের পরিকল্পনা (রোডম্যাপ)’ ঘোষণা করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদা। রোডম্যাপে বলা হয়েছে, নির্বাচন কমিশন নির্ধারিত সময়ে সংসদ নির্বাচন করতে দৃঢ়তার সঙ্গে ও সুচিন্তিত পন্থায় এগিয়ে যাচ্ছে। দেশবাসী একটি গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের অপেক্ষায় রয়েছেন। সার্বিকভাবে দেশে জাতীয় নির্বাচনের একটি অনুকূল আবহ সৃষ্টি হয়েছে। ইসি’র রোডম্যাপে অন্তর্ভুক্ত বিষয়গুলো নিয়ে অংশীজন, গণমাধ্যম, দলসহ সংশ্লিষ্টদের সামনে উপস্থাপন করে সবার মতামত নেবে। সবার মতামতের আলোকে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন আইনানুগ ও গ্রহণযোগ্য করে তোলা সম্ভব বলে ইসি বিশ্বাস করে। রোডম্যাপে উল্লিখিত সাতটি বিষয় হচ্ছে- আইনি কাঠামো পর্যালোচনা ও সংস্কার, নির্বাচনী প্রক্রিয়াকে সহজীকরণ ও যুগোপযোগী করার লক্ষ্যে সংশ্লিষ্ট সকলের পরামর্শ গ্রহণ, সংসদীয় এলাকার সীমানা পুনঃনির্ধারণ, নির্ভুল ভোটার তালিকা প্রণয়ন এবং সরবরাহকরণ, বিধি-বিধান অনুসরণপূর্বক ভোটকেন্দ্র স্থাপন, নতুন রাজনৈতিক দলের নিবন্ধন এবং নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলের নিরীক্ষা এবং সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠানে সংশ্লিষ্ট সকলের সক্ষমতা বৃদ্ধির কার্যক্রম গ্রহণ।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

জিন্দাপার্ক নিয়ে দ্বন্ধের জেরে সংঘর্ষ, আহত ৫

টাইম ম্যাগাজিন নিয়ে আবার বিতর্কে ট্রাম্প

চট্টগ্রামে নারীঘটিত কারণে আইনজীবি খুন

‘নতুন বাকশাল দেখছি’

আওয়ামী লীগ নেতারা হিন্দুদের সম্পদ দখল করছে

মিশরে বিপুল সংখ্যক ‘হামলাকারী’ নিহত

বারাক ওবামাকে হত্যার পরিকল্পনাকারী গ্রেপ্তার

কীভাবে আন্তর্জাতিক আদালতে বিচারকের পদ হারালো বৃটেন?

‘ডিপ্লোম্যাটিক মাইনফিল্ডে’ আসছেন পোপ, তাকিয়ে বিশ্ব

গুম আর জোর করে গুম এক নয়

‘দুর্নীতি বাড়ার জন্য রাজনীতিবিদরা দায়ী’

রংপুর ও রাজশাহীতে শীত বাড়ছে

‘ভারত ও চীন রাখাইনে রোহিঙ্গাদের বাড়ি ঘর নির্মাণে সহায়তা করবে’

দিনাজপুরে পরিবহন ধর্মঘট অব্যাহত: যাত্রীদের চরম দূর্ভোগ

‘শেষ মুহূর্তে হলে সরকার সমঝোতায় আসবে’

রবি-সোমবার সব সরকারি কলেজে কর্মবিরতি