‘দেশে খাদ্যের অভাব নেই’

এক্সক্লুসিভ

স্টাফ রিপোর্টার কুড়িগ্রাম/চিলমারী প্রতিনিধি | ১৮ জুলাই ২০১৭, মঙ্গলবার
দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া এমপি বলেছেন, দেশে কোনো খাদ্যের অভাব নেই তাই বন্যা দুর্গতদের ভয়ের কোনো কারণ নেই। কেউ যেন খাদ্যাভাবে মারা না যায়। বিনা চিকিৎসায় মারা না যায়। সে জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সবাইকে সতর্ক থাকতে বলেছেন। তিনি গৃহহীন সকলকে গৃহ নির্মাণ করে দিতে বলেছেন। অসহায় দুর্গতদের সত্যিকার তালিকা তৈরি করে সরকার সহায়তা করছে। পানি না কমে যাওয়া পর্যন্ত বানভাসি মানুষদের খাদ্য সহায়তা দেবে সরকার। তিনি আরো বলেন, বিএনপি নেতারা বানভাসিদের পাশে না থেকে চিকিৎসার নামে বিদেশে পাড়ি জমিয়েছে। তাই বিএনপির প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেন, আসুন বন্যার্তদের পাশে দাঁড়ান। তারা চাইলে তাদেরকেও ত্রাণ দেয়া সম্ভব এরপরও আমরা চাই বিএনপি বানভাসিদের পাশে যেন থাকে। এছাড়া মন্ত্রী আরো বলেন, বন্যাকবলিত এলাকায় সাধারণ মানুষের কাছ থেকে এনজিওদের ঋণের কিস্তি আদায় কয়েক মাসের জন্য বন্ধ রাখার অনুরোধ জানানো হয়েছে। গতকাল সকালে কুড়িগ্রামের চিলমারী উপজেলার শাখাহাতির চরের আশ্রয়ণ প্রকল্প মাঠে বন্যাদুর্গতদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরের এসব কথা বলেন। এ সময় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন-কুড়িগ্রাম-৪ আসনের সংসদ সদস্য রুহুল আমিন, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত সচিব শাহ কামাল, অতিরিক্ত সচিব খালেদ মাহমুদ, যুগ্ম সচিব মো. মোহসিন, যুগ্ম সচিব মো. আলী রেজা, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. জাফর আলী, জেলা প্রশাসক আবু ছালেহ মোহাম্মদ ফেরদৌস খান, পুলিশ সুপার মেহেদুল করিম, চিলমারী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শওকত আলী সরকার বীর বিক্রম, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মির্জা মুরাদ হাসান বেগ প্রমুখ। এছাড়াও উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা সিরাজুদ্দৌলা, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স, পুলিশ প্রশাসনসহ বিভিন্ন সরকারি সংস্থার কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন। মন্ত্রী বন্যাদুর্গতদের মাঝে আনুষ্ঠানিকভাবে ত্রাণ বিতরণ করেন। এখানে এক হাজার পরিবারের মাঝে ১০ কেজি করে চাল দেয়া হয়। পরে দুপুরে মন্ত্রী উলিপুর উপজেলার বজরা ইউনিয়নে বন্যাদুর্গত এলাকা পরিদর্শন শেষে চাঁদনি বজরা স্কুল মাঠে এক হাজার ২০০ পরিবারের দুর্গতদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করে লালমনিরহাট জেলার উদ্দেশ্যে রওনা দেন।

 
এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

জিতু

২০১৭-০৭-১৭ ২৩:১৪:৫৭

দেশে খাদ্যের অভাব নেই কিন্তু খাদ্য উৎপাদন এর অভাব রয়েছে

আপনার মতামত দিন