মন্ত্রণালয়ের প্রতিবেদন

পার্বত্য চট্টগ্রামে পাহাড়ধসের কারণ বজ্রপাত!

মিডিয়া কর্নার

অনলাইন ডেস্ক | ২২ জুন ২০১৭, বৃহস্পতিবার
পার্বত্য চট্টগ্রামে পাহাড়ধসের কারণ হিসেবে বজ্রপাতকেও দায়ী করেছে পার্বত্য চট্টগ্রামবিষয়ক মন্ত্রণালয়। এ ছাড়া অতিবৃষ্টি, নির্বিচারে বৃক্ষ নিধন, অপরিকল্পিতভাবে পাহাড়ের মাটি কাটা এবং আবাসনকে পাহাড়ধসের কারণ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার প্রকাশিত দৈনিক প্রথম আলোর খবরে বলা হয়েছে, পাহাড়ধসে ক্ষয়ক্ষতির বিষয়ে তৈরি মন্ত্রণালয়ের সংক্ষিপ্ত বিবরণে এই চিত্র পাওয়া গেছে। ১৯ জুন চূড়ান্ত করা ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, ওই সব কারণে কেবল রাঙামাটি জেলাতেই ১৪৫টি স্থানে পাহাড়ে ধস হয়েছে।

পাহাড়ধসের বিষয়ে প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, পাহাড়ের মাটি মূলত বেলে-দোঁআশ প্রকৃতির। এ ধরনের মাটির আঠালো গুণাবলি নেই এবং তা শুকনো অবস্থায় কঠিন হয়ে যায়। আবার পানির সংস্পর্শে খুব নরম হয়ে যায়। মাটির পানির ধারণক্ষমতাও কম। ফলে অতিরিক্ত বৃষ্টির পানিতে পাহাড়ের মাটি নরম হয়ে ব্যাপক ধ্বংসযজ্ঞ, জীবনহানি ও সম্পদের ক্ষতি হয়েছে।

তবে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, বজ্রপাতের কারণে পাহাড়ে কম্পন সৃষ্টি হওয়া অসম্ভব। এ ধরনের ব্যাখ্যা অবৈজ্ঞানিক ও বিভ্রান্তিমূলক। তাঁরা বলছেন, মন্ত্রণালয়ের প্রতিবেদনে সেখানকার পাহাড়গুলোকে বেলে-দোঁআশ মাটি দিয়ে তৈরি বলে যে তথ্যের উল্লেখ করা হয়েছে, তা-ও সঠিক নয়। সেখানে শুধু বেলে কিংবা দোঁআশ ও মিশ্র মাটির পাহাড় রয়েছে। এ ধরনের ভুল তথ্য ও ব্যাখ্যা সমস্যাটি সমাধানের সঠিক পথের সন্ধান দেবে না।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

ম্যানহাটন হামলায় আটক ব্যক্তি বাংলাদেশি?

২৯ রোহিঙ্গা নারীর মুখে ধর্ষণযজ্ঞের বর্ণনা

বাংলাদেশের দুই নেত্রীর লড়াইয়ের ইতি

বাড়ির পাশে ম্যারাডোনা

আওয়ামী লীগকে হারানোর মতো কোনো দলই নেই

৩ দিনের সফরে ফ্রান্স গেলেন প্রধানমন্ত্রী

৫০ শতাংশের বেশি মানুষ মানসম্পন্ন সেবা পায় না

বিএনপি’র পিন্টু না টুকু নতুন প্রার্থীর খোঁজে আওয়ামী লীগ

তন্নতন্ন করে খুঁজেও বিদেশে সম্পদের অস্তিত্ব মেলেনি

ঢাকা-রংপুর ফাইনাল আজ

জনগণের মুখোমুখি রসিক মেয়র প্রার্থীরা

‘যাদেরকে টিফিন খাওয়ালো তারাই হত্যা করলো’

ওয়াসা আর ফ্লাইওভারে লণ্ডভণ্ড চট্টগ্রামের সব সড়ক

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ত্রাণ বিতরণ এক সপ্তাহ স্থগিত

বাকেরগঞ্জে সাবেক এমপি মাসুদ রেজার ভাই গুলিবিদ্ধ

কংগ্রেসের নতুন প্রেসিডেন্ট রাহুল গান্ধী