‘অনেক ছবিতে কাজ করে লাভ নেই’

বিনোদন

কামরুজ্জামান মিলু | ২০ জুন ২০১৭, মঙ্গলবার
মোরশেদুল ইসলামের ‘খেলাঘর’ ও ‘প্রিয়তমেষু’, মুরাদ পারভেজের ‘চন্দ্রগ্রহণ’ ও ‘বৃহন্নলা’ এবং সর্বশেষ গেল বছর টলিউডের ‘ষড়রিপু’। এসব ছবি দিয়ে দর্শক হৃদয়ে নানা সময়ে দাগ কেটেছেন অভিনেত্রী সোহানা সাবা। তার অভিনীত ছবিগুলোতেও ভিন্নতার ছোঁয়া পাওয়া যায়। ‘বৃহন্নলা’ ছবিতে অভিনয়ের জন্য সাবা দেশের বাইরে বিভিন্ন উৎসবে অংশ নিয়ে সম্মান বয়ে আনেন। অর্জন করেন বেশকিছু পুরস্কার। ২০০৪ সালে ‘আয়না’ ছবির মাধ্যমে চলচ্চিত্রে অভিষেক হয় এই অভিনেত্রীর। বর্তমানে সীমানা ছাড়িয়ে ওপারের ছবিতেও নিয়মিত কাজ করছেন এই অভিনেত্রী। এরইমধ্যে অয়ন চক্রবর্তীর পরিচালনায় কলকাতার ‘ষড়রিপু’ ছবিতে ইন্দ্রনীল সেনগুপ্ত, চিরঞ্জিত চক্রবর্তী ও রজতাভ দত্তের সঙ্গে অভিনয় করে প্রশংসা কুড়ান। এবার তিনি শেষ করেছেন কলকাতার একটি নতুন ছবি। নাম ‘এপার ওপার’। এ ছবি বিষয়ে সোহানা সাবা বলেন, গত ২২শে মার্চ ছবিটির শুটিং শুরু করি। ছিটমহল ইস্যু নিয়ে এর গল্প বিস্তৃত হয়েছে। গল্পটা শুরু হয় মুক্তিযুদ্ধের ১০ বছর আগে থেকে। মূলত ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন দুই বাংলার দুটি পরিবারের মধ্যে ঘটে যাওয়া কিছু সত্য ঘটনা অবলম্বনে নির্মাণ হচ্ছে ছবিটি। যার প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছি আমি। টানা এ ছবির শুটিং হয়েছে। আমার বিপরীতে ভারতের জনপ্রিয় বাংলা সিরিয়াল ‘ওগো বিদেশিনী’র নায়ক সৌরভ চট্টোপাধ্যায় কাজ করেছেন। বেশ ভালো কাজ হয়েছে আমাদের। আশা করি, দর্শক ছবিটি পছন্দ করবেন। সাবা আরো বলেন, হরনাথ চক্রবর্তী অনেক বিখ্যাত একজন নির্মাতা। আর ছবিটির কাহিনীর সঙ্গে মুক্তিযুদ্ধ জড়িয়ে আছে। তাই এ কাজটি করে আমি ভীষণ খুশি। অয়ন চক্রবর্তীর পরিচালনায় ‘ষড়রিপু’ ছবির মাধ্যমে টলিউডে পা রাখেন ঢালিউডের অভিনেত্রী সাবা। সেই ধারাবাহিকতায় এবার তার ক্যারিয়ারে যোগ হচ্ছে টলিউডের দ্বিতীয় ছবি। ‘এপার ওপার’ ছবির প্রযোজনার সঙ্গে জড়িত রয়েছে বাংলাদেশের ব্রিজ লিমিটেড নামের একটি প্রতিষ্ঠান। এদিকে চলচ্চিত্রের কারণে এখন সময় কম দিলেও টিভি নাটক সোহানা সাবার ব্যস্ততার অন্যতম জায়গা। তার অভিনীত সর্বশেষ টিভি ধারাবাহিক নাটক দীপ্ত টিভিতে প্রচারিত ‘খেলাঘর’। এ অভিনেত্রী বর্তমানে দেশে ছোট পর্দার ঈদ কাজ নিয়ে ব্যস্ত রয়েছেন। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, বর্তমানে ছোট পর্দার জন্য ঈদের বিশেষ নাটক ‘আলোকন’-এ কাজ করছি। রুম্মান রশীদ খানের রচনায় এ নাটকটি পরিচালনা করছেন তপু খান। ঈদের ষষ্ঠ দিন মাছরাঙা টেলিভিশনে রাত ১১টা ৩০ মিনিটে এটি প্রচার হবে। এখানে আমার বিপরীতে অভিনয় করেছেন অপূর্ব। এছাড়া রবিউল আলম রবির ‘মুখোমুখি’ নাটকে জনের বিপরীতে এবং হাসিবুল কল্লোলের ‘আমি উড়তে চাই’ টেলিছবিতে সজলের বিপরীতে কাজ করেছি। আশা করি, ঈদের এই বিশেষ কাজগুলো দর্শক পছন্দ করবেন। ঈদের বর্তমান কাজ নিয়ে সাবা বলেন, যেহেতু আমি এখন ধারাবাহিক নাটকে অভিনয় করি না। তাই বছরজুড়ে বিশেষ বিশেষ দিবসের খণ্ড নাটক বা টেলিছবিতে কাজ করতে দেখা যায় আমাকে। ঈদ আমাদের অনেক বড় একটি উৎসব। তাই এ সময়টায় ছোট পর্দায় কাজ করতে হয়। আর এবারের কাজগুলো প্রত্যেকটি ভালোমানের গল্প নিয়ে। নতুন ছবির বিষয়ে জানতে চাইলে সাবা বলেন, নতুন আরেকটি ছবির বিষয়ে কথা হচ্ছে। খুব শিগগিরই চূড়ান্ত হবে। তারপর সবাইকে জানিয়ে দিব। অন্য এক প্রসঙ্গে সাবা বলেন, একজন অভিনেত্রী হিসেবে ভালো গল্পের ছবিতে কাজ করাটা সবচেয়ে বড় সার্থকতা বলে মনে করি আমি। অনেক ছবিতে কাজ করে লাভ নেই। মনের মতো একটি ছবি করতে চাই। মনের মতো একটি চরিত্র। আর মনে মনে সবসময় আমি সেটাই খুঁজি।
এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন