হাডসন নদীতে প্রথম মার্কিন মুসলিম নারী বিচারকের লাশ

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১৩ এপ্রিল ২০১৭, বৃহস্পতিবার | সর্বশেষ আপডেট: ১:৪৪
যুক্তরাষ্ট্রের প্রথম মুসলিম নারী বিচারক শেইলা আবদুস সালামের (৬৫) মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে নিউ ইয়র্কের হাডসন নদী থেকে। বুধবার স্থানীয় সময় বিকাল পৌনে দু’টার সময় ম্যানহাটানের ১৩২তম সড়ক ও হাডসন পার্কওয়ের কাছে পানিতে ভাসতে দেখা যায় তার দেহ। এ খবর দিয়েছে লন্ডনের অনলাইন এক্সপ্রেস। পরিবারের মুখপাত্র বলেছেন, সদস্যরা তার মৃতদেহ সনাক্ত করেছেন। তবে কি কারণে তার মৃত্যু হয়েছে, তিনি কিভাবেই বা নদীর পানিতে তা নিয়ে অনেক প্রশ্ন থাকলেও আপাতত ময়না তদন্তের আগে সঠিক করে কিছু বলা যাচ্ছে না। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত তার লাশের ময়না তদন্তের কোনো রিপোর্ট পাওয়া যায় নি।
বিভিন্ন রিপোর্টে বলা হয়েছে, বিচারক আবদুস সালাম তার হারলেমের বাড়ি থেকে নিখোঁজ গত মঙ্গলবার থেকে। তার মূল আবাস আসলে ওয়াশিংটন ডিসিতে। কিন্তু তাকে কোর্ট অব আপিলে ২০১৩ সালে প্রথম আফ্রিকান বংশোদ্ভূত ও একই সঙ্গে মুসলিম নারী হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়। তারপর তিনি চলে যান নিউ ইয়র্কে। তার মৃত্যুতে নিউ ইয়র্কের উচ্চ পদস্থ ব্যক্তিরা শোক প্রকাশ করেছেন। নিউ ইয়র্কের ডেমোক্রেট গভর্নর অ্যানড্রু কুমো এক বিবৃতিতে বলেছেন, তিনি ছিলেন একজন নতুন মাত্রার বিচারক ছিলেন। তার পুরোটা জীবন, কর্মজীবন কেটেছে অবাধ ও সুষ্ঠু বিচার ব্যবস্থায়। তিনি নিউ ইয়র্কে সবার জন্য অনেক কিছু করেছেন। যেহেতু প্রথম আফ্রিকান বংশোদ্ভূত মার্কিন নারী হিসেবে তাকে কোর্ট অব আপিলে নিযুক্ত করা হয়েছিল তাই তিনি ছিলেন একজন অগ্রদূত। তার কাজ, তার লেখা, তার অটল আদর্শ বছরের পর বছর টিকে থাকবে। তাকে এ রাজ্যের সর্বোচ্চ আদালতে নিয়োগ দিতে পেরে আমি গর্বিত। তার মৃত্যুতে আমি গভীর শোক প্রকাশ করছি। নিউ ইয়র্কের সব মানুষের পক্ষ থেকে আমি তার শোকাহত পরিবারের সবার প্রতি, তার সহকর্মীদের প্রতি গভীর শোক প্রকাশ করছি। ওদিকে নিউ ইয়র্কের মেয়র বিল ডে ব্লাসিও টুইট করেছেন। তিনি তাতে লিখেছেন, শেইলা আবদুস সালামের বিয়োগান্তক মৃত্যুতে আমি গভীরভাবে শোকাহত। তিনি ছিলেন একজন কিংবদন্তি। তার পরিবারের প্রতি আমার সমবেদনা।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

হাফিজ জামিল

২০১৭-০৪-১৩ ১০:০০:০৪

বিচারক একজন মুসলমান এটাই টার্গেট ।

আপনার মতামত দিন

গুম আর জোর করে গুম এক নয়

আনন্দ শোভাযাত্রা শুরু

‘দুর্নীতি বাড়ার জন্য রাজনীতিবিদরা দায়ী’

রংপুর ও রাজশাহীতে শীত বাড়ছে

‘ভারত ও চীন রাখাইনে রোহিঙ্গাদের বাড়ি ঘর নির্মাণে সহায়তা করবে’

দিনাজপুরে পরিবহন ধর্মঘট অব্যাহত: যাত্রীদের চরম দূর্ভোগ

বিডিআর বিদ্রোহ মামলায় হাইকোর্টের রায় কাল

বরিশালে রানী এলিজাবেথের পুত্রবধূর একদিন

ইরান-সৌদি আরব বাকযুদ্ধ

বরখাস্ত তিনজন, তদন্ত কমিটি

‘শিগগিরই সুখবরটি শুনতে পাবেন’

যে রাস্তাগুলো বন্ধ থাকবে আজ

জেলা, উপজেলা, পৌরসভা এবং ইউপি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন চূড়ান্ত

সমঝোতার পরও রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে বাধার পাহাড়

‘শেষ মুহূর্তে হলে সরকার সমঝোতায় আসবে’

রবি-সোমবার সব সরকারি কলেজে কর্মবিরতি