আসাদকে নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের ‘ইউ-টার্ন’

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১০ এপ্রিল ২০১৭, সোমবার
জাতিসংঘে নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের দূত নিকি হ্যালে বলেছেন, সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদকে ক্ষমতাচ্যুত করা এখন আমেরিকার অগ্রাধিকার। আসাদ সম্পর্কে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের প্রশাসন কিছুটা নমনীয় অবস্থানে ছিল। কিন্তু নিকি হ্যালের এই মন্তব্য যেন মার্কিন অবস্থানের ইউ-টার্ন। এ খবর দিয়েছে সিএনএন।
খবরে বলা হয়, আসাদ সরকারের বিরুদ্ধে রাসায়নিক হামলা চালানোর অভিযোগে তার একটি বিমানঘাঁটিতে মার্কিন ক্ষেপণাস্ত্র হামলার দুই দিন পর এই মন্তব্য করলেন হ্যালে। তার মতে, আসাদের ক্ষমতাচ্যুতি অবধারিত। কিন্তু বিদ্রোহী-অধ্যুষিত খান শেখুনে মঙ্গলবারের ওই রাসায়নিক হামলার ক’দিন আগে খোদ হ্যালেই বলেছিলেন, আসাদকে ক্ষমতাচ্যুত করা যুক্তরাষ্ট্রের জন্য অগ্রাধিকার নয়।
তারও আগে প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প নির্বাচনী প্রচারণায় বলেছিলেন, আইএস-এর বিরুদ্ধে লড়াই আর একই সঙ্গে আসাদকে ক্ষমতা থেকে অপসারণের চেষ্টা চালানো হলো ‘মূর্খতা’।
কিন্তু ওই রাসায়নিক হামলায় মানুষের হতাহত হওয়ার বীভৎস ছবি দেখে ট্রাম্প বলেন, আসাদ ও সিরিয়া সরকার সম্পর্কে তার মনোভাবে পরিবর্তন এসেছে। এরপরই তিনি সিরিয়ার একটি সরকারি বিমানঘাঁটিতে বোমাবর্ষণের আদেশ দেন। যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তাদের বিশ্বাস, ওই বিমানঘাঁটি থেকেই রাসায়নিক হামলা চালিয়েছে আসাদ বাহিনী।
বিমানঘাঁটিতে মার্কিন হামলা সিরিয়ার ছয় বছরের গৃহযুদ্ধে প্রথম কোনো মার্কিন হস্তক্ষেপ। হামলার পর সিএনএন’কে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে নিকি হ্যালে আগের অবস্থান থেকে সরে আসেন। তিনি স্বীকার করেন, আসাদের ক্ষমতাচ্যুতি এখন তার সরকারের অগ্রাধিকার।
তার ভাষ্য, ‘আসাদকে ক্ষমতা থেকে সরানো আমাদের একমাত্র অগ্রাধিকার নয়। আমরা যেটি করতে চাই সেটি হলো অবশ্যই আইএসকে পরাজিত করা। আর দ্বিতীয়ত, আসাদকে ক্ষমতায় রেখে আমরা শান্তিপূর্ণ সিরিয়া দেখতে চাই না। তৃতীয়ত, আমরা সেখান থেকে ইরানের প্রভাব কমাতে চাই। সবশেষে একটি রাজনৈতিক সমাধানের পথে যেতে চাই। কারণ, দিনের শেষে পরিস্থিতি বেশ জটিল। এ পরিস্থিতির কোনো সহজ উত্তর নেই। তাই রাজনৈতিক সমাধান হতে হবে।’
তিনি আরো বলেন, সিরিয়ায় ক্ষমতায় পালাবদল ঘটবে। কারণ, সিরিয়ায় যেরকম নেতা দরকার আসাদ তেমনটা নন। তবে পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসন এ বিষয়ে অত সপষ্ট কথা বলেননি। সিবিএস চ্যানেলকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, আইএস’র হুমকি আগে কমাতে হবে। আমি মনে করি তারপর আমরা সিরিয়ার পরিস্থিতি স্থিতিশীল করতে মনোযোগ দিতে পারি।

 

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

গুম আর জোর করে গুম এক নয়

আনন্দ শোভাযাত্রা শুরু

‘দুর্নীতি বাড়ার জন্য রাজনীতিবিদরা দায়ী’

রংপুর ও রাজশাহীতে শীত বাড়ছে

‘ভারত ও চীন রাখাইনে রোহিঙ্গাদের বাড়ি ঘর নির্মাণে সহায়তা করবে’

দিনাজপুরে পরিবহন ধর্মঘট অব্যাহত: যাত্রীদের চরম দূর্ভোগ

বিডিআর বিদ্রোহ মামলায় হাইকোর্টের রায় কাল

বরিশালে রানী এলিজাবেথের পুত্রবধূর একদিন

ইরান-সৌদি আরব বাকযুদ্ধ

বরখাস্ত তিনজন, তদন্ত কমিটি

‘শিগগিরই সুখবরটি শুনতে পাবেন’

যে রাস্তাগুলো বন্ধ থাকবে আজ

জেলা, উপজেলা, পৌরসভা এবং ইউপি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন চূড়ান্ত

সমঝোতার পরও রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে বাধার পাহাড়

‘শেষ মুহূর্তে হলে সরকার সমঝোতায় আসবে’

রবি-সোমবার সব সরকারি কলেজে কর্মবিরতি