বর্ণাঢ্য উদ্বোধনের পরই অব্যবস্থাপনা

খেলা

স্পোর্টন রিপোর্টার | ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৭, শনিবার
বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্যে গতকাল পল্টন ময়দানে শুরু হয়েছে রোল বল বিশ্বকাপ। ৩৪টি দেশের অংশগ্রহণ নিয়ে শেখ রাসেল রোলার স্কেটিং কমপ্লেক্সে শুরু হয়েছে চতুর্থ এই আসর। তবে টুর্নামেন্টে ৩৯টি দেশের অংশ নেয়ার কথা থাকলেও ছয়টি দেশ এখন পর্যন্ত ঢাকায় পৌঁছায়নি। উদ্বোধনের পরই শুরু হয় বিশৃঙ্খলা। বাংলাদেশ-হংকং দিয়ে ম্যাচ দিয়ে টুর্নামেন্ট শুরু হওয়ার কথা থাকলেও বিশৃঙ্খলার কারণে তা সময়মতো শুরু হয়নি। ভেন্যু পরিবর্তন করে তিনটায় জায়গায় তা শুরু হয়ে বিকাল সাড়ে চারটায়। খেলোয়াড়, কর্মকর্তা, মিডিয়ার জন্য যে কার্ড করা হয়েছে তার ফিতায় বাংলাদেশ নামের বানানটিও ভুল করেছেন আয়োজকরা। ভুল হয়েছে ফেডারেশনের নামের বানানেও। ঠিকমতো হোটেল পায়নি বিদেশি দলগুলো।
সকাল সাতটায় শেখ রাসেল রোলার স্কেটিং কমপ্লেক্সে পৌঁছায় কেনিয়া দল। বিকাল তিনটায়ও তাদের হোটেল দিতে পারেনি আয়োজকরা। আইভোরি কোস্ট, সেনেগালেরও হয়েছে একই হাল। হোটেল না পেয়ে দীর্ঘ ভ্রমণ ক্লান্তির কারণে এসব দলকে কমপ্লেক্সেই বিশ্রাম নিতে দেখা গেছে। কেউবা ঘুমিয়ে পরেছেন গ্যালারিতে। টুর্নামেন্টের মুল ভেন্যু শেখ রাসেল রোলার স্কেটিং কমপ্লেক্সের অবস্থাও গতকাল বিকাল পর্যন্ত ছিলো যাচ্ছে তাই। তবে অব্যবস্থাপনা নিয়ে এক প্রকার আত্মপক্ষ সমর্থনই করলেন ফেডারেশন সাধারণ সম্পাদক আসিফুল ইসলাম। ‘আসলে আমরা ছোট ফেডারেশন। আমাদের অভিজ্ঞতার ঘাটতি আছে। এ কারণেই কিছুটা সমন্বয় ঘাটতি হয়েছে। যার প্রভাব পরেছে বিদেশী দলগুলোর আবাসন থেকে শুরু করে সবকিছুইতেই এর প্রভা পরেছে। তবে আশা করছি আজ (গতকাল) রাতের মধ্যেই সবকিছু ঠিক হয়ে যাবে’- বলেন তিনি। তবে কার্ডের ফিতায় ইধহমষধফবংয এর জায়গায় ইধহমষধবংয এবং জড়ষষবৎ বদলে জড়ষষধৎ কেন লেখা হয়েছে তার কোনো সঠিক জবাব দিতে পারেননি ফেডারেশন সাধারণ সম্পাদক। আমাদের ভুল হয়েছে। আজকের মধ্যেই আমরা ফিতাগুলো পরিবর্তন করে  দেবো। সন্ধ্যার মধ্যে কিছু ফিতা পরিবর্তনও করা হয়েছে। সেখানে দেশের বানানটি শুদ্ধ করা হলেও ফেডারেশন বানানটি অশুদ্ধই থেকে গেছে। বাংলাদেশের ভেন্যু পরিবর্তনের ব্যাপারে আসিফুল হাসান বলেন, আসলে আমরা উদ্বোধনের দিন মূল ভেন্যুতে খেলা রাখতে চাইনি। কিন্তু অংশগ্রণকারী দেশের সংখ্যাবেশি হওয়ার কারণে টুর্নামেন্ট ডিরেক্টর এখানে খেলা দিয়েছেন। কিন্তু খেলার আগে মাঠ প্রস্তুত করতে না পারায় এই সমস্যা হয়েছে।
 
এসব অব্যবস্থাপনার বাইরে ৩৯ দেশের প্রায় ছয়শ’ প্রতিযোগীর অংশগ্রহণে ‘জাগো বাঙালি জাগো’ গানের তালে তালে আগত টুর্নামেন্টের উদ্বোধন করেন পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মোস্তফা কামাল। এ সময় যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বীরেন শিকদার এমপি, উপমন্ত্রী আরিফ খান জয় এমপি, যুব ও ক্রীড়া সচিব কাজী আখতার উদ্দিন আহমেদ, ফেডারেশনের সভাপতি আবুল কালাম আজাদ ও সাধারণ সম্পদাক আহমেদ আসিফুল হাসান উপস্থিত ছিলেন। এর আগে টি- টোয়েন্টি বিশ্বকাপ কিংবা এশিয়া কাপ ক্রিকেটের মতো বড় আয়োজন করে বিরল নজির সৃষ্টি করেছিল বাংলাদেশ। তবে অংশ নেয়া দলগুলোর সংখ্যায় সেই সব টুর্নামেন্টকেও ছাড়িয়ে গেছে রোলবল বিশ্বকাপ। ৩৯ দেশের ছয়শ’ ক্রীড়াবিদের এমন ক্রীড়াযজ্ঞ লাল সবুজের এই দেশের জন্য ইতিহাসই বটে। তবে অংশ নেয়া দলগুলোর সংখ্যায় সেই সব টুর্নামেন্টকেও ছাড়িয়ে গেছে রোলবল বিশ্বকাপ। প্রথমবার ছোট্ট পরিসরে হলেও উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে দেশীয় সংস্কৃতি বিদেশিদের সামনে তুলে ধরার প্রয়াস চালায় বাংলাদেশ।
এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন