রোহিঙ্গা স্থানান্তরে যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডার সঙ্গে সমঝোতা করতে চায় জাতিসংঘ

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৭, শুক্রবার
জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা বাংলাদেশে বসবাসরত প্রায় ১ হাজার রোহিঙ্গা মুসলিমকে স্থানান্তর করতে যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা ও কিছু ইউরোপিয়ান দেশের সঙ্গে আলোচনা করতে চায়। এ ব্যাপারে বাংলাদেশের অনুমতি চাওয়া হয়েছে। জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা ইউএনএইচসিআর এক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তার বরাতে এ খবর দিয়েছে বার্তাসংস্থা রয়টার্স।
খবরে বলা হয়, নব্বইর দশকের শুরুর দিক থেকে মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা লাখো রোহিঙ্গা এখনও বাংলাদেশে থাকছে। সাম্প্রতিক মাসগুলোতে এ সংখ্যা আনুমানিকভাবে প্রায় ৬৯ হাজার বেড়েছে। মিয়ানমারের রাখাইন প্রদেশে সেনা অভিযানের মুখে ওই রোহিঙ্গারা বাংলাদেশে পালিয়ে এসেছেন। ইউএনএইচসিআর সবচেয়ে ভুক্তভোগী রোহিঙ্গাদের স্থানান্তরের চেষ্টা করবে।
ইউএনএইচসিআর’র বাংলাদেশ প্রতিনিধি শিনজি কুবো বলেন, কিছু উন্নত দেশ বিশেষ করে প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের অধীনস্থ যুক্তরাষ্ট্রে ক্রমবর্ধমান বিরোধীতা সত্ত্বেও, ইউএনএইচসিআর চেষ্টা চালাবে। তিনি বলেন, ‘ইউএনএইচসিআর যুক্তরাষ্ট্র সহ বিভিন্ন দেশের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কাজ করে যাবে। সরকার ও সরকারী পলিসির পরিবর্তন এক্ষেত্রে বিবেচ্য নয়। আমি মনে করি সুরক্ষাকেন্দ্রীক পুনর্বাসন প্রকল্প এগিয়ে নেওয়ার ব্যাপারে ইউএনএইচসিআর’র ¯পষ্ট দায়িত্ব রয়েছে।’ তিনি আরও বলেন, ১০০০ রোহিঙ্গা শরণার্থীকে অগ্রাধিকার হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। তাদেরকে স্বাস্থ্যগত দিক থেকে বা পরিবার থেকে আলাদা হওয়ার কারণে চিহ্নিত করা হয়েছে।
তবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপদেষ্টা এইচটি ইমাম বলেন, এই পুনর্বাসন প্রস্তাব বাস্তবসম্মত নয়। কারণ, যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপ এখন মুসলিম শরণার্থী গ্রহণে অনিচ্ছা প্রকাশ করছে।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন