কল্যাণ কারাগারে

শেষের পাতা

কোর্ট রিপোর্টার | ১২ জানুয়ারি ২০১৭, বৃহস্পতিবার
 দৈনিক প্রথম আলোর ফটোসাংবাদিক জিয়া ইসলামকে প্রাইভেটকারের ধাক্কায় গুরুতর আহত করার মামলায়  মডেল ও অভিনেতা কল্যাণ কোরাইয়ার রিমান্ড ও জামিন আবেদন দুই-ই নাকচ করে তাকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তিন দিনের মধ্যে তাকে জেলগেটে (কারাফটক) জিজ্ঞাসাবাদ করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। গতকাল কল্যাণের  রিমান্ড ও জামিন আবেদনের শুনানি শেষে এ নির্দেশ দেন ঢাকা মহানগর হাকিম মো. মাজহারুল হক। গতকাল মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা কলাবাগান থানার এসআই (উপ-পরিদর্শক) ওমর ফারুক কল্যাণকে ঢাকার সিএমএম আদালতে হাজির করে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তিন দিনের রিমান্ডের আবেদন করেন। রিমান্ড আবেদনে উল্লেখ করা হয়, প্রাথমিক তদন্তে এ ঘটনার সঙ্গে আসামির জড়িত থাকার প্রমাণ মিলেছে । মামলার মূল রহস্য উদঘাটনে আসামিকে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা প্রয়োজন।
আসামি কল্যাণের আইনজীবীরা জামিনের আবেদন করেন। আদালত উভয় পক্ষের শুনানি শেষে জামিন ও রিমান্ডের আবেদন নাকচ করে তিন কার্যদিবসের মধ্যে কল্যাণকে জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদের নির্দেশ দেন। আদালতে বাদীপক্ষে শুনানিতে অংশ নেন আইনজীবী আশরাফ-উল আলম ও প্রশান্ত কর্মকার। আসামির পক্ষে শুনানিতে অংশ নেন আইনজীবী মোহাম্মদ ফারুক।
প্রসঙ্গত, সোমবার রাতে রাজধানীর পান্থপথে প্রথম আলোর আলোকচিত্রী জিয়া ইসলামের মোটরসাইকেলকে একটি প্রাইভেটকার সজোরে ধাক্কা দিয়ে চলে যায়। মোটরসাইকেল থেকে পড়ে গিয়ে মারাত্মক আহত হন জিয়া ইসলাম। তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাকে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) ভর্তি করেন। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য জিয়া ইসলামকে মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর অ্যাপোলো হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। এ ঘটনায় মঙ্গলবার প্রথম আলোর নিরাপত্তা ব্যবস্থাপক মেজর (অব.) মো. সাজ্জাদুল কবীর বাদী হয়ে কলাবাগান থানায় মামলা করেন। পরে ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে কল্যাণ কোরাইয়াকে গ্রেপ্তার করা হয়।  

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Kazi

২০১৭-০১-১২ ০২:৪১:৫৯

রিমান্ড মানেই পুলিশের নির্মম অত্যাচার। অত্যাচার করে তাদের ইচ্ছেমত স্বীকারোক্তি আদায়। পক্ষান্তরে বিনা অত্যাচারে কেউ সত্যও বলতে চায় না। কিন্তু সব ক্ষেত্রে সবাই সমান ও নয়। মুসলমান হিসাবে আমাদের উচিত সত্য প্রকাশ করা ও ভুল স্বীকার করা।

আপনার মতামত দিন

বরিশালে বিচারকের ভূমিকায় বেঞ্চ সহকারী, তোলপাড়

গাজীপুরে প্রাক্তন তিন সেনা সদস্যসহ ৪জন গ্রেপ্তার

খান আতা ইস্যুতে এফডিসিতে চলচ্চিত্র পরিবারের সংবাদ সম্মেলন

আদালত অঙ্গনে খালেদার আইনজীবীদের হাতাহাতি

বন্যায় ৩০ শতাংশ ধান উৎপাদন কম হতে পারে

রাজধানীতে নিরাপত্তাকর্মীকে কুপিয়ে যখম

জেনারেল মইনকে আশ্বস্ত করেছিলেন প্রণব

সমুদ্র বন্দরে ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত

গভীর রাজনৈতিক সঙ্কটের আশঙ্কা কাতালোনিয়ায়

নাইকোর আবেদন তিন সপ্তাহ মুলতবি

চল্লিশ বছর পর আবার...

মিয়ানমারের সেনাবাহিনীকে দায়ী করলো যুক্তরাষ্ট্র

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবদলের সভাপতি মজনু গ্রেপ্তার

কুয়েতে এসি বিস্ফোরণে নিহত পাঁচজনের মরদেহ দেশে,বিকালে দাফন

আমাদের অনেক এমপি অত্যাচারী, অসৎ : অর্থমন্ত্রী

মিয়ানমার থেকে শূন্য হাতে ফিরলেন জাতিসংঘ কর্মকর্তা