আলাপন

রিস্ক নিতে চাই না -সানিয়া সুলতানা লিজা

ফয়সাল রাব্বিকীন

বিনোদন ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ৪:৫১

ক্লোজআপ ওয়ান তারকা সানিয়া সুলতানা লিজা। করোনাকালের প্রায় পুরোটাই তিনি কাটাচ্ছেন বাসাতেই। বাসাতে গান চর্চা করেছেন নিয়মিত। পরিবারের সঙ্গে কাটাচ্ছেন সুন্দর সময়। এই সময়ে হাতে গোনা দু-একটি কাজের বাইরে তেমন একটা দেখা যায়নি লিজাকে। তবে ঘরে বসে তিনি অংশ নিয়েছেন বেশ কিছু চ্যানেলের অনলাইনের সরাসরি অনুষ্ঠানে। এদিকে লিজা এখনই পুরোপুরি কাজে সরব হতে নারাজ। করোনাকাল শেষ না হওয়া পর্যন্ত অথবা ভ্যাকসিন না আবিস্কার হওয়া পর্যন্ত বেশিরভাগ সময় বাসাতেই থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি।
এ বিষয়ে লিজা বলেন, স্টেজ তো বন্ধ। কিন্তু চ্যানেলগুলোর কাজ শুরু হয়েছে। রেকর্ডিংও করছেন অনেকে। তবে গত কয়েক মাসে কেবল হাতে গোনা দু-একটি কাজ আমি করেছি। আমি আরো সময় নিতে চাই। কারণ আমার নিরপত্তার সঙ্গে আমার পরিবারের সুরক্ষাও জড়িত। তাই আমি রিস্ক নিতে চাই না। এরমধ্যে শওকত আলী ইমনের সুর ও সংগীতে আরটিভির বাংলার গায়েন সংগীত প্রতিযোগীতার টাইটেল গানে কন্ঠ দিয়েছি। তবে এখনই শুটিং কিংবা রেকর্ডিংয়ের কাজ নিয়মিত হচ্ছি না। করোনা না যাওয়া পর্যন্ত কিংবা টিকা আবিস্কার না হওয়া পর্যন্ত এই সিদ্ধান্ত বহাল থাকবে আমার। এখন বাসায় তাহলে কিভাবে সময় কাটছে? লিজা বলেন, বাসায় পরিবারের সঙ্গে সুন্দর সময় কাটছে। তাছাড়া গানের প্র্যাকটিস করছি। টিভি দেখছি, সিনেমা দেখছি। সব মিলিয়ে সময় ভালো চলে যাচ্ছে। লিজা যোগ করে আরো বলেন, তবে অনেক শিল্পী ও মিউজিশিয়ান কিন্তু এই সময়ে খুব খারাপ অবস্থায় পড়েছেন। কারণ স্টেজ শো বন্ধ। হাতে কাজ না থাকায় অনেকে বাড়ি চলে গেছেন। এই অবস্থা চলতে থাকলে শিল্পী-মিউজিশিয়ানরা খুব বাজে অবস্থায় পড়বে আরো। দোয়া করি যেন এ অবস্থা থেকে আমরা দ্রুতই পরিত্রাণ পেতে পারি। নতুন গান প্রসঙ্গে লিজা বলেন, বেশ কিছু নতুন গান তৈরি হয়ে আছে আগেই। সেগুলো হয়তো প্রকাশ হবে সামনে। তবে এই সময়ে নতুন গান রেকর্ডিং কিংবা মিউজিক ভিডিওর শুটিং করবো না।

আপনার মতামত দিন

বিনোদন অন্যান্য খবর

আদালতের দ্বারস্থ রাকুল

১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০

মা হারালেন অপু বিশ্বাস

১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০

করোনার থাবায় অচল সংগীতাঙ্গন

১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০

সমালোচনার জবাব

১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০

নতুন বিজ্ঞাপনে চঞ্চল-নোভা

১৭ সেপ্টেম্বর ২০২০

মা হারালেন ডন

১৭ সেপ্টেম্বর ২০২০



বিনোদন সর্বাধিক পঠিত