আজ থেকে বন্ধ হলো স্বাস্থ্য বুলেটিন

স্টাফ রিপোর্টার

প্রথম পাতা ১২ আগস্ট ২০২০, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ৩:২৫

দেশে সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আরো ৩৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। নতুন করে আরো ২ হাজার ৯৯৬ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে মোট শনাক্ত হলেন ২ লাখ ৬৩ হাজার ৫০৩ জন। মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো ৩ হাজার ৪৭১ জনে। ২৪ ঘণ্টায় ১ হাজার ৫৩৫ জন এবং এখন পর্যন্ত ১ লাখ ৫১ হাজার ৯৭২ জন সুস্থ হয়েছেন। গতকাল স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত  অনলাইন ব্রিফিংয়ে এই তথ্য জানানো হয়। আজ থেকে অধিদপ্তরের এই ব্রিফিং আর হবে না। স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানিয়েছে, করোনা সংক্রান্ত সর্বশেষ আপডেট গণমাধ্যমে প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে পাঠানো হবে।

গতকাল অনলাইন স্বাস্থ্য বুলেটিনে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় ১৫ হাজার ৩১৭টি নমুনা সংগ্রহ এবং ১৪ হাজার ৮২০টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত ১২ লাখ ৮৭ হাজার ৯৮৮টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ২০ দশমিক ২২ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৫৭ দশমিক ৬৭ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৩২ শতাংশ।
২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়াদের মধ্যে ২৮ জন পুরুষ এবং ৫ জন নারী। এ পর্যন্ত পুরুষ ২ হাজার ৭৪৯ জন এবং ৭২২ জন নারী মারা গেছেন। ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়াদের বয়স বিশ্লেষণে দেখা যায়, ৮১ থেকে ৯০ বছরের মধ্যে ৩ জন, ৭১ থেকে ৮০ বছরের মধ্যে ৩ জন, ৬১ থেকে ৭০ বছরের মধ্যে ১৪ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ৫ জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে ২ জন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে ৫ জন, ১১ থেকে ২০ বছরের মধ্যে ১ জন রয়েছেন। বিভাগ বিশ্লেষণে দেখা যায়, ঢাকা বিভাগে ১৫ জন, চট্টগ্রামে ৫ জন, রাজশাহীতে ৫ জন, খুলনায় ৩ জন, ময়মনসিংহে ১ জন এবং রংপুরে ৪ জন রয়েছেন। ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে ৩০ জন এবং বাসায় ৩ জন মারা গেছেন।
গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে রাখা হয়েছে ৮৬৩ জনকে। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ১৯ হাজার ২৬০ জন। আইসোলেশন থেকে ২৪ ঘণ্টায় ৫৮৪ জন এবং এখন পর্যন্ত ৩৯ হাজার ৮৫ জন ছাড়া পেয়েছেন। এ পর্যন্ত আইসোলেশন করা হয়েছে ৫৮ হাজার ৩৪৫ জনকে। প্রাতিষ্ঠানিক ও হোম কোয়ারেন্টিন মিলে ২৪ ঘণ্টায় কোয়ারেন্টিন করা হয়েছে ২ হাজার ৮৮৪ জনকে। কোয়ারেন্টিন থেকে গত ২৪ ঘণ্টায় ২ হাজার ৫৫৯ জন এবং এখন পর্যন্ত ৪ লাখ ৫৭ হাজার ২৫৮ জন ছাড় পেয়েছেন। এ পর্যন্ত কোয়ারেন্টিন করা হয়েছে ৪ লাখ ৪ হাজার ৮০১ জনকে।  এখন কোয়ারেন্টিনে আছেন ৫২ হাজার ৮০৭ জন।
অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা আরো জানান, বুধবার থেকে করোনা পরিস্থিতি নিয়ে আয়োজিত নিয়মিত দুপুর আড়াইটায় অনলাইন স্বাস্থ্য বুলেটিন আর হবে না। তবে যথারীতি প্রেস রিলিজ সংশ্লিষ্ট সবাইকে পাঠিয়ে দেয়া হবে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে নিয়মিত তথ্য প্রেরণ করা হবে। সব তথ্যই জানতে পারবেন, তথ্য প্রবাহে কোনো অসুবিধা হবে না বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

এ কে এম মহীউদ্দীন

২০২০-০৮-১২ ০৯:০২:৫১

প্রেস রিলিজেরই বা প্রয়োজন কি? আদৌ কি কোন করোনা আছে দেশে?

Kazi

২০২০-০৮-১১ ১৫:০৬:১৯

Stopping false bulletin better than broadcasting it.

আপনার মতামত দিন

প্রথম পাতা অন্যান্য খবর

পিয়াজ সিন্ডিকেটের ১৯ প্রতিষ্ঠান নজরদারিতে

এক সপ্তাহে কয়েকশ’ কোটি টাকার বাড়তি মুনাফা

২০ সেপ্টেম্বর ২০২০

করোনায় মৃত্যু ৪৯০০ ছাড়ালো

২০ সেপ্টেম্বর ২০২০

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় আরো ৩২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃত্যুর ...

হাটহাজারী মাদ্রাসায় মুহতামিমের দায়িত্বে ৩ জন, বাবুনগরী শিক্ষা পরিচালক

২০ সেপ্টেম্বর ২০২০

হেফাজতে ইসলামের আমীর ও হাটহাজারী মাদ্রাসার মহাপরিচালক আল্লামা শাহ আহমদ শফীর ইন্তেকালের পর মাদ্রাসা পরিচালনার ...

আল্লামা শফীর ইন্তেকাল

১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০

মাদ্রাসা বন্ধ ঘোষণা, শিক্ষার্থীদের প্রত্যাখ্যান

অশান্ত হাটহাজারী ক্ষোভ, বিক্ষোভ

১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০



প্রথম পাতা সর্বাধিক পঠিত