দেশে করোনার ৫ মাস, একদিনে আরো ৫০ মৃত্যু

স্টাফ রিপোর্টার

প্রথম পাতা ৫ আগস্ট ২০২০, বুধবার

দেশে করোনা শনাক্তের হার বাড়ছেই। মৃত্যুর মিছিলও দীর্ঘ হচ্ছে। কিন্তু নমুনা পরীক্ষা হচ্ছে কম। ৩রা আগস্ট দেশে সর্বোচ্চ প্রায় ৩২ শতাংশ (৩১ দশমিক ৯১ ভাগ) করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন। অর্থাৎ প্রায় তিনজনে একজন করোনা রোগী মিলছে দেশে। গত ২৪ ঘণ্টায় ২৪ দশমিক ৮৭ শতাংশ করোনা রোগী শনাক্ত হয়। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আরো ৫০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ পর্যন্ত মোট মারা গেছে ৩ হাজার ২৩৪ জন।
নতুন করে এক হাজার ৯১৮ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে। ৮ই মার্চ প্রথম করোনা শনাক্ত হয়। এ হিসাবে ১৫০ দিনে মোট শনাক্ত হলো দুই লাখ ৪৪ হাজার ২০ জন। একদিনে এক হাজার ৯৫৫ জন সুস্থ হয়েছেন। এখন পর্যন্ত এক লাখ ৩৯ হাজার ৮৬০ জন সুস্থ হয়েছেন। গতকাল করোনা নিয়ে নিয়মিত অনলাইন ব্রিফিংয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা এসব তথ্য জানান।
তিনি জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় ৮৩টি পরীক্ষাগারে ৮ হাজার ১২৩টি নমুনা সংগ্রহ হয়। পরীক্ষা হয়েছে ৭ হাজার ৭১২টি। এ পর্যন্ত মোট নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ১২ লাখ এক হাজার ২৫৬ জনের। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে রোগী শনাক্ত হয়েছেন এক হাজার ৯১৮ জন। শনাক্তের হার গত ২৪ ঘণ্টায় ২৪ দশমিক ৮৭ শতাংশ এবং এ পর্যন্ত ২০ দশমিক ৩১ শতাংশ। সুস্থতার হার ৫৭ দশমিক ৩১ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যু হার এক দশমিক ৩৩ শতাংশ।
২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়াদের মধ্যে পুরুষ ৪৪ জন এবং নারী ৬ জন। তাদের মধ্যে ৪৫ জন হাসপাতালে এবং ৫ জন বাসায় মারা গেছেন। এখন পর্যন্ত মোট দুই হাজার ৫৪৯ জন পুরুষ এবং ৬৮৫ জন নারী মারা গেছেন। ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়াদের বয়সভিত্তিক বিশ্লেষণে দেখা যায়, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে তিনজন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে ৬ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ১৭ জন, ৬১ থেকে ৭০ বছরের মধ্যে ১৮ জন, ৭১ থেকে ৮০ বছরের মধ্যে ৫ জন এবং ৮১ থেকে ৯০ বছরের মধ্যে একজন রয়েছেন।
বয়সভিত্তিক মৃত্যুর সংখ্যা এবং শতকরা হার: শূন্য থেকে ১০ বছরের মধ্যে ১৮ জন, দশমিক ৫৬ শতাংশ; ১১ থেকে ২০ বছরের মধ্যে ৩২ জন, দশমিক ৯৯ শতাংশ; ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে ৮৭ জন, ২ দশমিক ৬৯ শতাংশ; ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে ২১২ জন, ৬ দশমিক ৫৬ শতাংশ; ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে ৪৪৮ জন, ১৩ দশমিক ৮৫ শতাংশ; ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ৯৩০ জন, ২৮ দশমিক ৭৬ শতাংশ এবং ৬০ বছরের বেশি এক হাজার ৫০৭ জন, ৪৬ দশমিক ৬০ শতাংশ। ২৪ ঘণ্টায় বিভাগভিত্তিক মৃত্যু হয়েছে ঢাকায় ২৯ জন, চট্টগ্রাম ও রাজশাহীতে ৫ জন করে, খুলনা ও রংপুরে ৪ জন করে এবং বরিশাল, সিলেট ও ময়মনসিংহে একজন করে।
দেশে বর্তমানে হোম ও প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে আছেন ৫৪ হাজার ১১৬ জন। এখন আইসোলেশনে আছেন ১৮ হাজার ৪৯১ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা সংক্রান্ত ফোন কল এসেছে ৭১ হাজার ৭৩টি এবং এ পর্যন্ত এক কোটি ৮১ লাখ ৮২ হাজার ৩ টি।

আপনার মতামত দিন

প্রথম পাতা অন্যান্য খবর

পিয়াজ সিন্ডিকেটের ১৯ প্রতিষ্ঠান নজরদারিতে

এক সপ্তাহে কয়েকশ’ কোটি টাকার বাড়তি মুনাফা

২০ সেপ্টেম্বর ২০২০

করোনায় মৃত্যু ৪৯০০ ছাড়ালো

২০ সেপ্টেম্বর ২০২০

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় আরো ৩২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃত্যুর ...

হাটহাজারী মাদ্রাসায় মুহতামিমের দায়িত্বে ৩ জন, বাবুনগরী শিক্ষা পরিচালক

২০ সেপ্টেম্বর ২০২০

হেফাজতে ইসলামের আমীর ও হাটহাজারী মাদ্রাসার মহাপরিচালক আল্লামা শাহ আহমদ শফীর ইন্তেকালের পর মাদ্রাসা পরিচালনার ...

আল্লামা শফীর ইন্তেকাল

১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০

মাদ্রাসা বন্ধ ঘোষণা, শিক্ষার্থীদের প্রত্যাখ্যান

অশান্ত হাটহাজারী ক্ষোভ, বিক্ষোভ

১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০



প্রথম পাতা সর্বাধিক পঠিত