করোনা টেস্টের ফি নির্ধারণ করে পরিপত্র জারি

অনলাইন ডেস্ক

অনলাইন ২৯ জুন ২০২০, সোমবার, ২:৫২ | সর্বশেষ আপডেট: ১১:৪৯

সরকারিভাবে করোনাভাইরাস সংক্রমণ পরীক্ষার আরটি-পিসিআর টেস্ট আর বিনামূল্যে থাকছে না। পরীক্ষা ফি নির্ধারণ করে পরিপত্র জারি করেছে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য সেবা বিভাগ।

সরকারি স্বাস্থ্য ব্যবস্থাপনা-১ অধিশাখার উপসচিব ড. বিলকিস বেগম স্বাক্ষরিত পরিপত্রে বলা হয়, বর্তমানে আরটি-পিসিআর টেস্ট এর মাধ্যমে করোনার সংক্রমণ নির্ণয় বিনামূল্যে থাকার কারণে অধিকাংশ মানুষই উপসর্গ ছাড়াই এর সুযোগ নিচ্ছেন। পরিপত্রে বলা হয়, সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণ ও সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনার নিমিত্তে ‘অপ্রয়োজনীয় এসব কভিড টেস্ট’ পরিহার করা লক্ষ্যে ফি নির্ধারণ করা হলো।

ফি-এর বর্ণনায় বলা হয়, আরটি-পিসিআর টেস্টের জন্য এখন থেকে বুথ থেকে নমুনা সংগ্রহের জন্য ২০০ টাকা, বাসা থেকে নমুনা সংগ্রহের ক্ষেত্রে ৫০০ টাকা এবং হাসপাতালে ভর্তি রোগীর ক্ষেত্রে ২০০ টাকা ফি দিতে হবে। পরিপত্রে ফি নির্ধারণের পাশাপাশি কিছু শর্তারোপ করা হয়েছে। এসব ফি সকল সরকারি হাসপাতালের ক্ষেত্রে নির্ধারণ করা হয়েছে জানিয়ে শর্তে বলা হয়, পরীক্ষার ফি বাবদ আদায়কৃত রাজস্ব সরকারি কোষাগারে জমা হবে। তবে ‘চিকিৎসা সুবিধা বিধিমালা’ ১৯৭৪ এর আওতায় সরকারি কর্মকর্তা/কর্মচারিদের চিকিৎসা সংক্রান্ত সকল সুযোগ-সুবিধা বহাল থাকবে।
একইসঙ্গে বীর মুক্তিযোদ্ধা, দুস্থ ও গরীব রোগীদের চিকিৎসা ও রোগ নির্ণয় পরীক্ষা-নিরীক্ষা সংক্রান্ত সরকারি আদেশ বহাল থাকবে। যথাযথ কর্তৃপক্ষের অনুমোদনক্রমে জনস্বার্থে জারিকৃত এ আদেশ অবিলম্বে কার্যকর হবে বলেও উল্লেখ করা হয়।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Md musleh uddin

২০২০-০৬-৩০ ২০:০৯:০০

ফি সরকারি কোষাগারে জমা হবে, তাই সঠিক সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এই মুহূর্তে ফ্রী কোন কিছুই ভালো না ।

আপনার মতামত দিন

অনলাইন অন্যান্য খবর

সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন করোনায় আক্রান্ত ভোলার জেলা জজ মাহমুদুল হক

১ জুলাই ২০২০

সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন করোনায় আক্রান্ত ভোলার জেলা ও দায়রা জজ এবিএম মাহমুদুল হক। বুধবার ...



অনলাইন সর্বাধিক পঠিত