সাব্বির বলেন, ‘আমার বিরুদ্ধে মারধরের অভিযোগ মিথ্যা’

স্পোর্টস রিপোর্টার

খেলা ৩১ মে ২০২০, রোববার | সর্বশেষ আপডেট: ১২:১৬



মাঠে ক্রিকেট নেই দুই মাস। এরপরও আলোচনায় ক্রিকেটার সাব্বির রহমান রুম্মান। এবারো তার বিরুদ্ধে উঠেছে মারধরের অভিযোগ। জানা গেছে রাজশাহীতে তার বাড়ির সামনে এক পরিচ্ছন্নতা কর্মীকে মারধর করেছেন  সাব্বির রহমান। কারণ, তার বাসার প্রবেশপথ বন্ধ করে ময়লা সংগ্রহ করার গাড়িটি রাখা হয়েছিল। এতে স্ত্রীকে নিয়ে বাসায় প্রবেশ করার সময় তার গাড়ি বাধাপ্রাপ্ত হয়। ঘটনার এক পর্যায়ে রাজশাহী সিটি করপোরেশনের (রাসিক)  পরিচ্ছন্নতা কর্মী বাদশার সঙ্গে তর্কে জড়িয়ে পড়েন জাতীয় দলের বাইরে থাকা এ ক্রিকেটার। অভিযোগ রয়েছে গাড়ি থেকে নেমে তিনি চড় মারেন পরিচ্ছন্নতা কর্মীকে।
তবে এমন অভিযোগ একেবারেই মিথ্যা বলে দৈনিক মানবজমিনের কাছে দাবি করেছেন সাব্বির। তিনি বলেন, ‘এটি সত্যি যে তর্ক হয়েছে, কথা কাটাকাটি হয়েছে। কিন্তু বিশ্বাস করেন আমি ওকে (পরিচ্ছন্নতা কর্মী)  মারিনি। ওর গায়ে কেন হাত তুলবো। গরীব মানুষ, তার ওপর আমার বাসার সামনে। যে বাসায় আমার বাবা-মা থাকেন।’ অন্যদিকে মারধরের কোনো অভিযোগ পাননি বলে নিশ্চিত করেছেন রাসিকের প্রধান পরিচ্ছন্ন কর্মকর্তা শেখ মো. মামুন ডলার। তিনি জানিয়েছেন সাব্বির  ছেলেটির গায়ে হাত  তোলেননি।
কী ঘটেছিল সেই ঘটনার বর্ণনায় সাব্বির বলেন,  ‘ঘটনা হলো আমি বাসায় গাড়ি নিয়ে ঢুকছিলাম। তখন আমার স্ত্রীও সঙ্গে ছিল। কিন্তু ময়লা ফেলার গাড়িটি এমনভাবে রেখেছে যে কেউ বের হতে পারছে না আবার ঢুকতেও পারছে না।  বেশ কিছুক্ষণ আমি হর্ন দেয়ার পর ছেলেটি এসে বিড়বিড় করে বাজে কথা বলে। আমি নেমে ওকে বলি এভাবে কথা বলছ কেন। ছেলেটি বললো আপনার কি, আমার কাজ আমি করছি। আমি ওকে বললাম আমি কেন বলবো না। তোমাদের তো কিছু দিন আগেই আমি সাহায্য করলাম, ত্রান দিলাম। আর আমার বাসার সামনে এমনভাবে ময়লার গাড়ি রেখেছ যে  কেউ বের হতে পারছে না। ছেলেটি তখন রেগে গিয়ে উল্টা-পাল্টা কথা বলতে শুরু করে। এতে আমার সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয়। এর চেয়ে বেশি কিছু হয়নি। সেখানে অনেক মানুষ ছিল। তারা সাক্ষী যে আমি ওকে মারিনি।’
এ বিষয়ে রাসিকের প্রধান পরিচ্ছন্ন কর্মকর্তা মামুন দৈনিক মানবজমিনকে বলেন, ‘ঘটনা আমি শুনেছি। কিন্তু আমাদের যে পরিচ্ছন্নতা কর্মী বাদশা সে মারধরের অভিযোগ আমাদের কাছে করেনি। পরে খোঁজ নিয়ে জেনেছি ঘটনা একেবারেই তুচ্ছ। মারধরের কথাটি মিথ্যাভাবে প্রচার করা হয়েছে। এখানে ময়লার গাড়িটি রেখে ভুল করেছে। তারপর ক্রিকেটার সাব্বির বাড়িতে ঢুকতে পারছিলেন না। এ নিয়ে শুধু তর্কবিতর্ক হয়েছে। সে ছেলেটিকে মারেনি বলেই আমি নিশ্চিত হয়েছি। এছাড়াও স্থানীয় ওয়ার্ড কমিশনার বিষয়টি মীমাংসা করে দিয়েছেন।’
তবে জানা যায়, বিকাল ৫ টায় ক্রিকেটার সাব্বিরের বাসার সামনে ঘটনার সময় টহল পুলিশ বিষয়টি নিষ্পত্তি করেছিল তাৎক্ষণিকভাবে। এ বিষয়ে  রাজশাহীর বোয়ালিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নিবারণ চন্দ্র বর্মণ বলেন, দু’একটা চড়-থাপ্পড়  মেরেছে বলে শুনেছি। আমাদের টহল পুলিশ গিয়ে তাকে (সাব্বির) থামিয়েছে। তবে বিষয়টি স্থানীয়রা এবং সিটি কর্পোরেশনের স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর মীমাংসা করে দিয়েছেন বলেই জানি।’
এর আগে রাজশাহী বিভাগীয় স্টেডিয়ামে কিশোর দর্শক পেটানোর অভিযোগে ছয় মাসের জন্য জাতীয় দল  থেকে নিষিদ্ধ হয়েছিলেন সাব্বির রহমান। নিজের অতীতের কথা মনে করে সাব্বির বলেন, ‘এর আগেও একটি ঘটনায় আমি ক্যারিয়ার নিয়ে বিপদে পড়েছিলাম। এবার সত্যি বলছি মারিনি কাউকে। কারণ, আমার একটা পরিচয় আছে একটা ক্যারিয়ার আছে। আমি কেন গরীব একটা ছেলেকে মারতে যাবো!’

আপনার মতামত দিন

খেলা অন্যান্য খবর

কোয়াব-ক্রিকেটার বৈঠক

ঈদের আগে অর্ধেক পারিশ্রমিক দাবি ক্রিকেটারদের

৯ জুলাই ২০২০

ব্রাজিলিয়ান ফুটবলারদের ‘লোভী’ হিসেবে গড়ে তোলা হয়!

৯ জুলাই ২০২০

বার্সেলোনা ছেড়ে প্যারিস সেন্ট জার্মেইতে (পিএসজি) যোগ দেয়ার পর নেইমারকে নিয়ে অনেক সমালোচনা হয়। সমালোচকদের ...

সিপিএল-এ প্রথম ভারতীয় ৪৮ বছরের তাম্বে

৯ জুলাই ২০২০

নজির গড়তে যাচ্ছেন প্রবীণ তাম্বে। প্রথম ভারতীয় ক্রিকেটার হিসেবে খেলতে যাচ্ছেন ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লীগ সিপিএল-এ। ...



খেলা সর্বাধিক পঠিত