পশ্চিমবঙ্গের স্বরাষ্ট্র সচিব সস্ত্রীক কোয়ারেন্টিনে

কলকাতা প্রতিনিধি

ভারত ১৮ মার্চ ২০২০, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ৮:২৯

পশ্চিমবঙ্গেও এক আমলার লন্ডন পড়ুয়া পুত্রের নবান্নে আনাগোনা এবং স্বরাষ্ট্রসচিবের ঘরে যাওয়ার পরই বুধবার থেকে পশ্চিমবঙ্গের স্বরাষ্ট্র সচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় সস্ত্রীক বাড়িতে কোয়ারেন্টিনে রয়েছেন। গত মঙ্গলবার রাতে লন্ডন ফেরত যুবকটির শরীরে কোভিড-১৯ ভাইরাসের উপস্থিতি নিশ্চিত হওয়া গিয়েছে। বর্তমানে যুবকটিকে আইডি হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে রাখা হয়েছে। জানা গেছে, কোনো ঝুঁকি না নিয়ে সতর্কতা মেনে নিজেকে ঘরবন্দি করে নিয়েছেন স্বরাষ্ট্রসচিব। তাঁর স্ত্রী সোনালি চক্রবর্তীও বিশ্ববিদ্যালয়ে যান নি। সোনালি কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য্য। রাজ্যেও প্রথম করোনা আক্রান্ত রোগীর আচরণ নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। অভিযোগ পরামর্শ অমান্য করে যুবকটি মায়ের সঙ্গে কলকাতায় ঘুরেছেন।  সোমবার রাজ্য সচিবালয় নবান্নে গিয়েছিলেন করোনা আক্রান্ত সেই যুবক।
নবান্নে গিয়ে দীর্ঘক্ষণ সময় মায়ের সঙ্গে কাটান। এমনকি সোমবার নবান্নে গিয়ে আক্রান্ত সেই যুবক আলাপন বন্দ্যোপাধ্যাের ঘরেও গিয়েছিলেন বলে জানা যায়। এরপরই এদিন সামনে এল সস্ত্রীক আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের হোম কোয়ারেন্টাইনে যাওয়ার কথা। জানা গেছে, গত ১৫ মার্চ যুবকটি লন্ডন থেকে কলকাতায় বাড়িতে ফিরেছিলেন। বিমান বন্দরে যুবকটির শারীরিক পরীক্ষা করা হয়েছিল। কিন্তু সংক্রমণ ধরা পড়েনি। উপসর্গও ছিল না। তাঁকে গৃহবন্দি থাকতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। জানা গেছে, লন্ডনে একটি পার্টিতে গিয়েছিলেন ওই যুবক। তবে ওই পার্টির কয়েকজন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন জানার পরই পরিবারের পক্ষ থেকে তাঁকে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছিলহাসপাতাল সূত্রে খবর, ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব কলেরা অ্যান্ড এন্টেরিক ডিজিসেস (নাইসেড)-এ যুবকের লালারসের নমুনা পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছিল। মঙ্গলবার রাতে সেই রিপোর্ট এসেছে। তখনই জানা গিয়েছে, রিপোর্ট পজিটিভ। অর্থাৎ যুবকের শরীরের করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি রয়েছে। স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ এই খবর নিশ্চিত করেছে। জানা গেছে, যুবকটির মা ও বাবাকে কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে। যে গাড়িতে করে বিমানবন্দর থেকে বাড়িতে ফিরেছিলেন সেই গাড়ি চালকেরও কোয়ারেন্টিনের ব্যবস্থা করা হয়েছে। শুধু তাই নয়, ওই যুবকের কাছাকাছি যাঁরা ছিলেন তাঁদেরও খুঁজে কোয়রেন্টিনের ব্যবস্থা করা হচ্ছে বলে স্বাস্থ ও পরিবার কল্যান দপ্তর সুত্রে জানানো হয়েছে। গত কয়েকদিনে ওই যুবক কোথায় কোথায় গিয়েছিলেন, কাদের সংস্পর্শে এসেছেন, তারও খোঁজ চলছে। এদিকে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বুধবার নবান্ন চত্বরে একটি সরকারি অনুষ্ঠানে বলেছেন,'কলকাতায় প্রথম কেস তথ্যটা ভুল। ইউকে থেকে কলকাতা নিয়ে এসেছে।' এর পাশাপাশি ওই যুবক ও তাঁর পরিবারের দায়বদ্ধতা নিয়েও ক্ষোভপ্রকাশ করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর কথায়,  দায়বদ্ধতা থাকবে না। একটা জায়গা থেকে আসছি। রোগের প্রার্দুভাব বেশি, আমি কেন নিজেকে আইসোলেট করে রাখব না। ডাক্তার বলা সত্ত্বেও দেরি করেছে। এখানে-ওখানে ঘুরে বেরিয়েছে। তার মানে কত লোকের সংস্পর্শে এসেছে। মুখ্যমন্ত্রী এদিনরাস্তাঘাটে অফিসফেরত যাত্রীদের ভিড় কমাতে সরকারি কর্মীদের আগেভাগে ছুটি দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছেন। বলেছেন, বৃহস্পতিবার থেকে থেকে অফিস হালকা করতে চাই। বিকেল ৪ পর্যন্ত রোস্টার করে দেওয়া হবে। ১০ থেকে সাড়ে ৫ টা নয়, ৪টের মধ্যে ছুটি করে দেব। যাতে একই সময়ে বাসে, রেলস্টেশনে ভিড় বেশি না হয়। বাড়ি কিন্তু অনেক নিরাপদ। আপনারা সকলে ভালো থাকলে রাজ্যটা ভালো থাকবে। এই দু'সপ্তাহ সতর্ক থাকতে হবে।

আপনার মতামত দিন



ভারত অন্যান্য খবর



ভারত সর্বাধিক পঠিত