এবার কাসেম সোলাইমানির সহযোগীকে হত্যা

মানবজমিন ডেস্ক

বিশ্বজমিন ২৩ জানুয়ারি ২০২০, বৃহস্পতিবার

ইরানের কুদস ফোর্সের প্রয়াত প্রধান কাসেম সোলাইমানির ঘনিষ্ঠ, স্থানীয় একজন কমান্ডার আবদুল হোসেন মোজাদ্দামিকে হত্যা করা হয়েছে। সোলাইমানিকে যুক্তরাষ্ট্র ড্রোন ব্যবহার করে হত্যা করে এবং এর দায় স্বীকার করে। কিন্তু মোজাদ্দামি হত্যার দায় কেউ স্বীকার করে নি। এ খবর দিয়ে অনলাইন আল জাজিরা বলছে, বুধবার মুখোশপরা কিছু অস্ত্রধারী তাকে ঘিরে ফেলে এবং গুলি চালিয়ে হত্যা করে। মোজাদ্দামী ইরানের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় আধা সামরিক বাহিনীর একজন কমান্ডার। ডার্কহোয়েন শহরে ইরানের ইসলামিক রেভ্যুলুশনারি গার্ড কোরের অঙ্গ সংগঠন আধা সামরিক বাহিনী বাসিজ ফোর্সের প্রধান ছিলেন তিনি। ইরানের তেল সমৃদ্ধ খুজেস্তান প্রদেশে নিজের বাড়ির সামনে তাকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। সরকারি বার্তা সংস্থা ইরনা বলেছে, রাইফেল হাতে দু’ব্যক্তি একটি মোটরসাইকেলে করে এসে তাকে ঘিরে ফেলে।

ইরানের অন্য মিডিয়াগুলো বলছে, এ সময় হামলাকারীদের মুখ ছিল মুখোশে ঢাকা।
চারটি গুলির শব্দ পাওয়া গেছে। এ নিয়ে মামলা হয়েছে। তদন্ত চলছে। কি কারণে তাকে হত্যা করা হয়েছে তাও জানা যায় নি। তবে নভেম্বরে বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে ভয়াবহ সংঘর্ষে বাসিজ বাহিনী জড়িত ছিল। ওই বিক্ষোভে অনেক বিক্ষোভকারী আহত ও নিহত হয়েছেন। মানবাধিকার বিষয়ক আন্তর্জাতিক সংগঠন অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল রিপোর্টে বলেছে, ওই বিক্ষোভে পুরো ইরানে নিহত হয়েছেন কমপক্ষে ৩০০ মানুষ। মোজাদ্দামি হত্যাকে দেখা হচ্ছে ইসলামিক রেভ্যুশনারি গার্ড কোরের বিরুদ্ধে আরো একটি বড় আঘাত হিসেবে। এ মাসেই ইরাকের রাজধানী বাগদাদে ড্রোন ব্যবহার করে হত্যা করা হয় কুদস ফোর্সের শীর্ষস্থানীয় কর্মকর্তা কাসেম সোলাইমানিকে। তার অতি ঘনিষ্ঠ ছিলেন মোজাদ্দামি। এমন কথা বলেছে রেভ্যুলুশনারি গার্ড।

আপনার মতামত দিন



বিশ্বজমিন অন্যান্য খবর

প্রেসিডেন্টকে সোনিয়া গান্ধী

অমিত শাহকে বরখাস্ত করুন

২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০

ট্রাম্পের কড়া সমালোচনায় বার্নি স্যান্ডার্স

দিল্লি সহিংসতায় মার্কিন রাজনীতিকদের গভীর উদ্বেগ

২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০



বিশ্বজমিন সর্বাধিক পঠিত