মোস্তাফিজকে এভাবে পেটালেন শানাকা!

স্পোর্টস রিপোর্টার

খেলা ১১ ডিসেম্বর ২০১৯, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ৮:৪১

নিজের প্রথম ২ ওভারে ৬ রান দিয়েছিলেন রংপুর রেঞ্জার্সের মোস্তাফিজুর রহমান। তৃতীয় ওভারে দেন ৬ রান। আর চতুর্থ ওভারে ২৬! দাসুন শানাকা প্রথম বল মিসের পর টানা চার বলে চার ৬ হাঁকান। এর মধ্যে ফ্রি হিটে একটি। ২৩ বলে হাফসেঞ্চুরি পূর্ণ করেন শানাকা। ৩১ বলে ৯ ছক্কা আর ৩ চারে ৭৫ রানে অপরাজিত থাকেন তিনি। তাতে বঙ্গবন্ধু বিপিএলের প্রথম দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে ২০ ওভারে ১৭৩/৭ রান সংগ্রহ করে কুমিল্লা ওয়ারিয়র্স। অথচ ১৮ ওভারে তাদের রান ছিল ১২৪/৭।
মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাটিং নেয় কুমিল্লা।
কিন্তু মোহাম্মদ নবীর করা প্রথম ওভারের প্রথম বলেই বোল্ড হন ইয়াসির আলী। এসএ গেমসে সোনা জেতা সৌম্য সরকারের শুরুটা হয়েছিল দারুণ। কিন্তু ইনিংস বড় করতে দিলেন না মোস্তাফিজ। নিজের প্রথম ওভারেই সৌম্যকে তুলে নেন তিনি। ১৮ বলে ৪ চার ও এক ছক্কায় ২৬ রান করে সৌম্য সরকার। মোস্তাফিজ ১৩তম ওভারে আবার বল হাতে নেন। এবার তার শিকারে পরিণত হন সাব্বির রহমান। ১৭ বলে ১৯ রান করেন সাব্বির। স্পিনার সঞ্জিত সাহাও ভালো বোলিং করেন। ৪ ওভারে ২৬ রানে তার শিকার ২ উইকেট। ভানুকা রাজাপাকসে (১৩ বলে ২৫) ও ডেভিড মালানের (২৩ বলে ২৫) উইকেট নেন সঞ্জিত। অধিনায়কের দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি বল হাতেও নৈপুণ্য দেখান মোহাম্মদ নবী।
জাতীয় দলের আরেক পেসার তাসকিন আহমেদও ছিলেন খরুচে। ২ ওভারে ২৩ রান দেয়ার পর তাকে দিয়ে আর বোলিং করাননি নবী। ইংলিশ অলরাউন্ডার লেভিস গ্রেগরি ৩ ওভারে ২৫ রানে নেন মাহিদুল ইসলাম অঙ্কন ও আবু হায়দার রনির উইকেট। পাকিস্তানি পেসার জুনায়েদ খান ৪ ওভারে ৪৭ রান দিয়েও কোনো উইকেট পাননি।

আপনার মতামত দিন

খেলা অন্যান্য খবর

কেমন ছিল আগের ৬ ফাইনাল?

১৭ জানুয়ারি ২০২০





খেলা সর্বাধিক পঠিত