অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার পর বিয়ে অস্বীকার আওয়ামী লীগ নেতার

ধামরাই (ঢাকা) প্রতিনিধি

অনলাইন ৭ ডিসেম্বর ২০১৯, শনিবার, ১০:১৪

ঢাকার ধামরাইয়ে এক নারী অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার পর বিয়ে অস্বীকার করেছেন স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা। এ অভিযোগ করেছেন অন্তঃসত্ত্বা নারী নিজেই। গত ৭ মাস ধরে তিনি অন্তঃসত্ত্বা। অভিযুক্ত নান্নার ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ও স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন তিনি। শুক্রবার ধামরাই থানায় মামলাটি দায়ের করা হয়। তবে অভিযুক্ত আওয়ামী লীগ নেতা ওই নারীকে বিয়ের কথা অস্বীকার করেছেন।  

এলাকাবাসী ও মামলা সূত্রে জানা গেছে, গত কয়েক বছর আগে সম্পর্কে জড়িয়ে গোপনে কাবিন রেজিস্ট্রি করে স্বামী পরিত্যক্তা ওই নারীকে নান্নার ইউনিয়নের সাবেক  চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবুল বাশার বাদশা বিয়ে করেন। এরপর বাদশা বিভিন্ন এলাকায় বাসা ভাড়া নিয়ে বসবাস করতে থাকেন।
সম্প্রতি সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েন ওই নারী। এরপর বাদশা গর্ভের সন্তান তার নয় বলে বিভিন্ন অজুহাতে তাকে নির্যাতন করতে থাকেন।

এ ঘটনায় ওই নারী বাদী হয়ে শুক্রবার আবুল বাশার বাদশার বিরুদ্ধে নির্যাতনের অভিযোগ এনে থানায় মামলা দায়ের করেন।

এ বিষয়ে আবুল বাশার বাদশা অন্তঃসত্ত্বা নারীকে বিয়ে করার কথা অস্বীকার করে বলেন, তার গর্ভের সন্তান আমার নয়, অন্যের।

এ বিষয়ে ধামরাই থানার এসআই রিপন জানান, অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে নির্যাতনের অভিযোগে নান্নার ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আবুল বাশার বাদশার বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। তাকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

আপনার মতামত দিন

অনলাইন অন্যান্য খবর

প্রশান্ত হালদারের দুর্নীতির অনুসন্ধান

পিপলস লিজিংয়ের ৩ পরিচালককে তলব

২১ জানুয়ারি ২০২০





অনলাইন সর্বাধিক পঠিত



একই পরিবারের ৩ জন নিহত

স্বামীর ঘরে যাওয়া হলো না পিয়াশার