৫ বছর পর ২০০০ কিলোমিটার দূরে পাওয়া গেলো হারানো বিড়াল

মানবজমিন ডেস্ক

বিশ্বজমিন ২১ নভেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার

যুক্তরাষ্ট্রে হারিয়ে যাওয়ার পাঁচ বছর পর নিজের ভালোবাসার বিড়ালকে খুঁজে পেলেন এক ব্যাক্তি। যুক্তরাষ্ট্রের অরেগন অঙ্গরাজ্য থেকে হারিয়ে যাওয়া ওই বিড়ালটিকে উদ্ধার করা হয় প্রায় ২০০০ কিলোমিটার দূরের নিউ মেক্সিকোর রাস্তায়। কালো রঙের বিড়ালটির নাম শাসা। একে উদ্ধার করে সান্তা ফি শেল্টার নামের একটি সংস্থা। এ খবর দিয়েছে বিবিসি।

সংস্থাটি জানিয়েছে, বিড়ালের মধ্যে থাকা মাইক্রোচিপ স্ক্যান করে তারা তার মালিককে খুঁজে পেয়েছে। এরপর তাকে অরেগনে ফিরিয়ে আনা হয়েছে এবং বর্তমানে সে তার মালিকের সঙ্গেই রয়েছে। তার মালিক ভিক্টর উসোভ জানান, তিনি পাঁচ বছর পূর্বেই তার বিড়াল হারানোর বিষয়টি রিপোর্ট করেছিলেন এবং দীর্ঘদিন কোনো খোঁজ না পেয়ে আশাও ছেড়ে দিয়েছিলেন। শাসাকে পাওয়ার খবর শুনে তিনি প্রথমে বিশ্বাসই করতে পারছিলেন না।
কিন্তু এখন সুস্থ অবস্থায় তাকে পেয়ে তিনি অত্যন্ত কৃতজ্ঞ বলে জানিয়েছেন। তবে শাসা কীভাবে এতদূরে চলে গেলো তা এখনো জানা যায়নি। উসোভের ধারণা তার বিড়াল অনেক বন্ধুত্বপূর্ন ছিলো। খুব সম্ভবত কারো সঙ্গে এতদূর চলে এসেছে। তিনি মজা করে বলেন, আমার বিড়াল রোমাঞ্চকর আমেরিকা সফরে বেড়িয়েছিলো।

সাম্প্রতিক সময়ে যুক্তরাষ্ট্রে পোষা প্রাণীর শরীরে মাইক্রোচিপ লাগানোকে উৎসাহিত করা হচ্ছে। সান্তা ফি শেল্টারের কর্মকর্তা মুরাদ কিরদার বলেন, শাসার ঘটনাই স্পষ্ট করে দেয় যে আদরের পোষা প্রাণীর গায়ে মাইক্রোচিপ লাগানো কতো গুরুত্বপূর্ন। একটি সাধারণ মাইক্রোচিপ যা কিনা একটা চালের থেকেও ছোটো আকারে। এটিকে পোষা প্রাণীর ত্বকের নিচে ঢুকিয়ে দেয়া হয়, যাতে হারিয়ে গেলে তার মালিককে সহজেই পাওয়া যায়। তিনি আরো জানান, মাইক্রোচিপ একটি আলাদা ও স্থায়ী বিষয়। প্রতিটির রয়েছে আলাদা আলাদা কোড।

শাসাকে নিউ মেক্সিকো থেকে ফিরিয়ে আনা হয় আমেরিকান এয়ারলাইনসের একটি বিমানে করে। সংস্থাটির মুখপাত্র কুর্টিজ ব্লেজিং বিবিসি বলেন, এই পুনর্মিলনের অংশ হতে পেরে আমেরিকান এয়ারলাইনস গর্বিত। আমরা খুশি যে শাসার দীর্ঘ পথের একটি সুন্দর সমাপ্তি হয়েছে।

বিশ্বজমিন অন্যান্য খবর





আপনার মতামত দিন

বিশ্বজমিন সর্বাধিক পঠিত