ঢাকা ডায়ালগের সমাপ্তি

অংশীদারিত্ব জোরদারে দৃঢ় অঙ্গীকার

কূটনৈতিক রিপোর্টার

দেশ বিদেশ ১৪ নভেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার

পার্টনারশিপ বা অংশীদারিত্ব জোরদারের দৃঢ় অঙ্গীকারের মধ্য দিয়ে শেষ হয়েছে ৩ দিনের ঢাকা গ্লোবাল ডায়ালগের। ৪৫ রাষ্ট্রের শতাধিক প্রতিনিধি প্রায় ৭২ঘণ্টা আলোচনা করেছে ইন্দো-প্যাসিফিক অঞ্চলের সম্ভাবনা থেকে শুরু করে দ্বিপক্ষীয়, আঞ্চলিক এবং বৈশ্বিক নানা বিষয়ে। আলোচনা, পর্যালোচনার পাশাপাশি প্রাণবন্ত বিতর্ক হয়েছে সংলাপের বিভিন্ন সেশনে। কেবল আনুষ্ঠানিক বৈঠক বা আলোচনাই নয়, অনানুষ্ঠানিক মতবিনিমিয়েও অংশগ্রহণকারীরা পরস্পরকে জানা-বুঝার ক্ষেত্রে সমৃদ্ধ হয়েছে। সব মিলিয়ে সফল ওই আয়োজনে সামগ্রিক উন্নয়ন প্রশ্নে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সুপারিশ এসেছে। যা নীতিগতভাবে অনুমোদন হওয়া ঢাকা ঘোষণা হিসাবে স্থান পেয়েছে বলে জানিয়েছেন আয়োজকরা। তবে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ওই ঘোষণা প্রচার হয়নি। সমাপনী দিনে কো-হোস্ট বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেন, আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিকভাবে অংশীদারিত্ব বাড়াতে বাংলাদেশ রাজনৈতিকভাবে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ।
মোমেনের ভাষ্য মতে, গ্লোবাল ভিলেজের যে কনসেপ্ট তাতে কোন দেশের পক্ষে একা চলা কষ্ট সাধ্য। প্রয়োজন পারস্পরিক সহযোগিতা। এ নিয়ে সামনে এগিয়ে যেতে হবে। বাংলাদেশ সবার সঙ্গে বন্ধুত্ব, সহযোগিতা ও অংশীদারিত্ব বাড়াতে চায়। মন্ত্রী জোর দেন শান্তি এবং স্থিতিশীলতার ওপর। বলেন, টেকসই উন্নয়নের অপরিহার্য শর্ত হচ্ছে শান্তি ও স্থিতিশীলতা। এটি ছাড়া সব অর্জন বৃথা। পারস্পরিক সহযোগিতায় বাংলাদেশ ও ভারত দুনিয়াতে অন্যন্য উদাহরণ সৃষ্টি করেছে দাবি করে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, প্রতিবেশী, কাছের দূরের সবার সঙ্গে বাংলাদেশ সহযোগিতামূলক সম্পর্কে বাড়াতে আগ্রহী। এটাই বাংলাদেশের পররাষ্ট্র নীতি। সমাপনী অনুষ্ঠানে মন্ত্রী মোমেন ছাড়াও পরারাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য নাহিম রাজ্জাক এবং সহ-আয়োজক ভারতের অবজার্ভার রিসার্চ ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান সঞ্জয় যোশী বক্তব্য রাখেন। গত ১১ই নভেম্বর রাজধানীর হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে ঢাকা গ্লোবাল ডায়ালগের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গবেষণা প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ইন্টারন্যাশনাল অ্যান্ড স্ট্র্যাটেজিক স্টাডিজ (বিস) ও ভারতের অবজার্ভার রিসার্চ ফাউন্ডেশন (ওআরএফ) যৌথভাবে এই ডায়ালগের আয়োজন করে।
পার্টনারশিপেই জোর দিলেন ভারতীয় দূত: এদিকে সমাপনী দিনের গণমাধ্যমের সঙ্গে আলাপে ঢাকায় নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার রিভা গাঙ্গুলী দাস বলেন, ইন্দো প্যাসিফিক অঞ্চলে কানেক্টিভিটির জন্য জরুরি হচ্ছে পার্টনারশিপ বা অংশীদারিত্ব। সবার সহযোগিতার মধ্যে দিয়ে এটি এগিয়ে নিতে হবে। ভারতীয় দূত বলেন, ঢাকা গ্লোবাল ডায়ালগের মধ্য দিয়ে ইন্দো-প্যাসিফিক অঞ্চলে বাংলাদেশের যে গুরুত্ব, সেটা সবাই নতুন করে উপলব্দি করতে পেরেছে। এটা একটা খুবই ইতিবাচক উদ্যোগ ছিলো। হাইকমিশনার বলেন, আমরা কী চাই? আমরা চাই উন্নয়ন। সেই উন্নয়নের জন্যই একে অপরের সঙ্গে কানেক্টিভিটি বা যোগাযোগ প্রয়োজন। এক প্রশ্নের জবাবে রিভা গাঙ্গুলী বলেন, সব কিছু ফ্রেমওয়ার্কের মাধ্যমে হয় না। ইন্দো-প্যাসিফিক নিয়ে আমাদের নিজস্ব কনসেপ্ট আছে, চীনের নিজস্ব কনসেপ্ট আছে, আসিয়ানের নিজস্ব কনসেপ্ট আছে। এর মধ্যে দিয়েই আমাদের একে অপরের সহযোগিতা বাড়াতে হবে। সামনের দিকে এগিয়ে যেতে হবে।



দেশ বিদেশ অন্যান্য খবর

বাজার সম্প্রসারণে জার্মান বিনিয়োগ পেলো ওয়ালটন

১৫ ডিসেম্বর ২০১৯

আন্তর্জাতিক বাজার সম্প্রসারণে বিশ্বের দ্রুত অগ্রসরমান ইলেকট্রনিক্স ব্র্যান্ড হিসেবে ওয়ালটনের পাশে দাঁড়াচ্ছে জার্মান বিনিয়োগ এবং ...

ট্রাম্পকে অভিশংসনের দুটি আর্টিকেল অনুমোদন কংগ্রেসে

১৫ ডিসেম্বর ২০১৯

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পকে অভিশংসন প্রক্রিয়ায় দুটি অভিযোগ বা আর্টিকেল অনুমোদন করেছে কংগ্রেসের প্রতিনিধি পরিষদের ...

ক্ষমতা না-ও ছাড়তে পারেন মাহাথির মোহাম্মদ

১৫ ডিসেম্বর ২০১৯

 ২০২০ সালের পরেও ক্ষমতায় থেকে যেতে পারেন মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী ড. মাহাথির মোহাম্মদ। কাতারের রাজধানী দোহা’য় ...

সুদানের ক্ষমতাচ্যুত বশিরের রায় ঘোষণা

১৫ ডিসেম্বর ২০১৯

প্রায় ত্রিশ বছর পর ক্ষমতাচ্যুত সুদানের শাসক ওমর আল বশিরের বিরুদ্ধে দুর্নীতি মামলার রায় ঘোষণা ...

ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চল সফরে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্যের সতর্কতা

১৫ ডিসেম্বর ২০১৯

 নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনকে কেন্দ্র করে ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলে চলমান সহিংস বিক্ষোভের প্রেক্ষিতে ভ্রমণ সতর্কতা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র ...

বিতর্কিত নাগরিকত্ব আইনে ঢাকা-দিল্লির ‘স্বর্ণালী’ সম্পর্ক কেঁপে উঠেছে

১৫ ডিসেম্বর ২০১৯

বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্ককে ‘ট্রাবল-ফ্রি’ বা ঝামেলামুক্ত হিসেবে দেখে ভারত, যেখানে বহুবিধ সমস্যা রয়েছে। এমনকি বলা ...

শহীদ বুদ্ধিজীবীদের জীবনাদর্শ অনুসরণ করতে হবে: ঢাবি ভিসি

১৫ ডিসেম্বর ২০১৯

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান বলেছেন,শহীদ বুদ্ধিজীবীদের জীবনাদর্শ অনুসরণ করে উদার, অসাম্প্রদায়িক ও ...

বিজয়ের শেষ ৩ দিন পাগলা কুকুরের মতো ছিল হানাদাররা

১৫ ডিসেম্বর ২০১৯

 চট্টগ্রামে মুক্তিযুদ্ধে বিজয়ের শেষ ৩ দিন পাক হানাদার বাহিনীর আচরণ ছিলো পাগলা কুকুরের মতো। রসদ ...

এনআরসি সমস্যা উপমহাদেশে অস্থিতিশীল অবস্থা তৈরি করবে-মির্জা ফখরুল

১৫ ডিসেম্বর ২০১৯

ভারতের এসআরসি বিল শুধু বাংলাদেশেই নয় পুরো উপমহাদেশে একটা অস্থিতিশীল অবস্থা তৈরি করবে বলে মন্তব্য ...





পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

ahammad

২০১৯-১২-১৪ ১২:১৮:৪৬

জনাব,জুয়েল সাহেব জনগনের শেষ বিশ্বাসের জায়গা সশস্রবাহিনী। দয়া বির্তকসৃষ্টির সুযোগ করে দিবেন না। কথায় বলে ঠকুরঘরে কেরে,আমি কলা খাই নাই।

আপনার মতামত দিন

দেশ বিদেশ সর্বাধিক পঠিত