বন্ধের নির্দেশ না মেনে আন্দোলনে জাবি শিক্ষার্থীরা (ভিডিও)

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার | ৬ নভেম্বর ২০১৯, বুধবার, ১০:৩২ | সর্বশেষ আপডেট: ১:০১
ভিসির পদত্যাগ দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ওপর ছাত্রলীগের হামলার পর জাহাঙ্গীরনগর বিশ্বদ্যিালয় বন্ধ ও হল ত্যাগের সিদ্ধান্ত প্রত্যাখান করেছেন শিক্ষার্থীরা। প্রশাসনের বেধে দেয়া সময়ে তারা হল ত্যাগ না করে এ সিদ্ধান্তের প্রতিবাদের রাস্তায় নেমে এসেছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের সবক’টি আবাসিক হলের ছাত্রছাত্রীরা এ আন্দোলনে যোগ দিয়েছে। তাদের সঙ্গে রয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের একটি অংশ। গতকাল রাতের ঘোষণা অনুযায়ী আজ সকাল থেকে আবারও ক্যাম্পাসে অবস্থান নিয়েছে আন্দোলনকারী শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।

জানা গেছে, সকাল থেকেই বিশ্ববিদ্যালয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে জড়ো হতে শুরু করেছেন আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। এছাড়াও আসতে শুরু করেছেন শিক্ষকরা। এর আগে সকালে কিছু শিক্ষার্থী রেজিস্ট্রার অফিসের সামনে জড়ো হতে শুরু করলে সেখান থেকে তাদেরকে সরিয়ে দেয় কর্তৃপক্ষ।


শহীদ মিনারের সামনে ব্যানার ফেস্টুন হাতে তৈরি হচ্ছে শিক্ষার্থীরা। সকাল  থেকেই ভিসির বাড়ির সামনে দেখা যায় প্রায় শতাধিক পুলিশ সদস্য। সশস্ত্র পুলিশ সদস্যের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, তারা যেকোন অপ্রীতিকর ঘটনা রোধে সচেষ্ট রয়েছে।
কয়েকজন শিক্ষার্থী জানিয়েছেন, হল ছাড়ার নির্দেশনা দেয়া সত্ত্বেও তারা হলে অবস্থান করছেন। ভাসানী হলে শিক্ষার্থীরা আন্দোলনের জন্য একত্রিত হচ্ছেন বলেও জানান একাধিক শিক্ষার্থী। তারা কিছুক্ষণের মধ্যে একত্রিত হয়ে আন্দোলনে যোগ দেবেন। এই হলের ইমরান আহমেদ নামে এক শিক্ষার্থী বলেন তাদের যৌক্তিক দাবি মেনে না নেয়া পর্যন্ত এই আন্দোলন চালিয়ে যাবেন। প্রীতিলতা হলের সামনে একত্রিত হতে শুরু করেছেন শিক্ষার্থীরা।

এর আগে গতকাল রাতে তালা ভেঙে বেশ কয়েকটি হলের ছাত্রীরা বেরিয়ে এসে বিক্ষোভ মিছিল করে। তারা ভিসির বাসভবনের সামনে অবস্থান নেয়। এদিকে আজ সকাল থেকে আবারও কর্মসূচি পালনের ঘোষণা দিয়ে গতকাল মধ্যরাতে নিজ নিজ হলে ফিরে যান শিক্ষার্থীরা।

মঙ্গলবার রাতে এক সংবাদ সম্মেলনে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট (মার্কসবাদী) এর সভাপতি মাহাথির মোহাম্মদ  বলেন, বুধবার সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের মুরাদ চত্ত্বর থেকে বিক্ষোভ মিছিল এবং পরে শহীদ মিনারে সংহতি সমাবেশ করা হবে। সমাবেশের পরে পরবর্তী কর্মসূচি  ঘোষণা করা হবে বলেও জানান তিনি।

এর আগে রাত পৌনে ১০টার দিকে ভিসির অপসারণের দাবিতে চলমান আন্দোলনে হামলা ও বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ  ঘোষণার প্রতিবাদে বেগম সুফিয়া কামাল হল ও প্রীতিলতা হলের গেটের তালা ভেঙে মিছিল বের করেন ছাত্রীরা। বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হল থেকেও এ সময় ছাত্রীরা বের হয়। এ সময় তাদের সঙ্গে যোগ দেন অন্যান্য সহপাঠীরাও।

এছাড়াও রাত ৮টার কিছু পর বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবহন চত্বর থেকে আরও একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করেন শিক্ষার্থীরা। পরে দুটি মিছিল একত্রিত হয়ে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে অবস্থান নিয়ে ভিসি বিরোধী স্লোগান দিতে থাকেন। তখন হলের গেটের তালা ভেঙে বেরিয়ে মিছিলে যোগ দেন বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হল, প্রীতিলতা হল, সুফিয়া কামাল হল, জাহানারা ইমাম হল ও ফয়জুন্নেছা হলের আবাসিক শিক্ষার্থীরাও।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Citizen 21

২০১৯-১১-০৬ ০০:২৯:৩৩

জাগো, জাগো মায়ের জাতি ভাঙ্গ তালা, মার লাথি । ছুঁড়ে ফেল সব অপমান মাতৃভূমির এই অসম্মান ।

আপনার মতামত দিন

একধাপ এগোলেন সহকারীরা, প্রধান শিক্ষকের বেতন ১১তম গ্রেডে

শিক্ষকদের উপর হামলা, নোবিপ্রবির ১৬ ছাত্রলীগ নেতাকর্মী বহিষ্কার

পরিচয় শনাক্তের পর সবার লাশ হস্তান্তর

‘অপেক্ষায় আছি নতুন কিছুর জন্য’

৬০ বাংলাদেশি আসছেন, ৩ লাখের বিতাড়ন বেঙ্গালুরু থেকেই

ইন্দো-প্যাসিফিকের ধারণা স্পষ্ট করার দাবি, বিআরআই নিয়ে বিতর্ক

গাফিলতির বলি এতগুলো প্রাণ!

বাসটি চলে যায় রানুর ওপর দিয়ে

ছোঁয়ার মৃত্যুতে বাকরুদ্ধ স্বজনরা

হবিগঞ্জে শোকের মাতম

সম্রাট ও আরমানের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

বুলবুলে ২৬৩ কোটি টাকার ফসলের ক্ষতি

দুর্ঘটনার পুনরাবৃত্তি রোধ করতে সংশ্লিষ্ট সকলকে সতর্ক থাকার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

সংসদে রাঙ্গার কড়া সমালোচনা

রাঙ্গা অনুতপ্ত, বক্তব্য প্রত্যাহার, তবে...

ডা. শফিক জামায়াতের নতুন আমীর