ভোলায় সংঘর্ষের ঘটনায় মামলা, আসামি ৫ হাজার

অনলাইন ডেস্ক

অনলাইন ২১ অক্টোবর ২০১৯, সোমবার, ১:৩৬ | সর্বশেষ আপডেট: ৯:৩৬

ফাইল ফটো
ভোলার বোরহানউদ্দিন উপজেলায় পুলিশ-জনতা সংঘর্ষে চারজন নিহতের ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে অজ্ঞাতনামা ৪০০০ থেকে ৫০০০ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করা হয়েছে। বোরহানউদ্দিন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. এনামুল হক জানান, গতকাল রাতে বোরহানউদ্দিন থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আজিজুর রহমান বাদী হয়ে এই মামলা করেছেন।

মামলায় আসামিদের বিরুদ্ধে পুলিশকে দায়িত্বপালনে বাধা, পুলিশ সদস্যদের ওপর হামলা এবং বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির অভিযোগ আনা হয়েছে।

এর আগে, ফেসবুক মেসেঞ্জারে বিদ্বেষমূলক কথোপকথনের অভিযোগে অভিযুক্ত এক ব্যক্তিকে জনরোষ থেকে রক্ষা করতে গিয়ে পুলিশ উত্তেজিত জনতাকে লক্ষ্য করে গুলি চালালে অন্তত চারজন নিহত এবং শতাধিক ব্যক্তি আহত হন। পরে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ঘটনাস্থলে বিজিবি মোতায়েন করা হয়।




পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Mohd.Makbul Hossain

২০১৯-১০-২১ ০৪:৩৪:১৬

এক ব্যক্তি কে রক্ষা করতে গিয়ে পাঁচ ব্যক্তিকে হত্যা! এই ঘটনাটি দ্বারা আমরা যতদূর বুঝতে পেরেছি তা হলঃ ভারতীয় গোয়েন্দাদের পরিকল্পনা অনুযায়ী বাংলাদেশে হিন্দু ও মুসলমানদের মধ্যে দাঙ্গা লাগানোর জন্য একটি সংগঠন বিশেষভাবে কাজ করে যাচ্ছে।ওই দাঙ্গায় ভারতীয় সরকার বাংলাদেশের সরকারকে অভিযুক্ত করবে মাইনোরিটি হিন্দুদের ক্ষয়ক্ষতির জন্য এবং এবং ভারতীয় সরকার বাংলাদেশ সরকারকে সেনাবাহিনী পাঠিয়ে হিন্দুদের সাহায্য করার পরিকল্পনা গ্রহণ করবে।

জাহিদ

২০১৯-১০-২১ ০২:৪০:৪৫

পরম দয়ালু আল্লাহ তায়ালা মুসলমানদের হেফাজত করো।কাফেরদের হেদায়েত দান করো না হয় তাদের ধংশ করে দেও।

babul

২০১৯-১০-২১ ০১:৫৪:০১

পুলিশ যদি গুলি করে ৪জনকে হত্যা করে থাকে, তাহলে ৪/৫ হাজার লোকের নামে মামলা হয় কিভাবে?

শহীদ

২০১৯-১০-২১ ১৪:১১:২৩

যারা মরেছ সেরে গেছ। যারা হাসপাতালে কাতরাচ্ছে তারা জেলের ঘানি টানার জন্য প্রস্তুত হও। জনগণের সুরক্ষায় নিয়োজিতরা নিজেদের আত্মরক্ষা করছে খুন করে!

Chowdhury

২০১৯-১০-২১ ০০:৫৬:১৮

আল্লাহ কাফেরদের কে ধ্বংস করেন

আপনার মতামত দিন

অনলাইন -এর সর্বাধিক পঠিত